প্রিয় বাবু – প্রমা মজুমদার

0
624

#গল্পপোকা_চিঠি_প্রতিযোগিতা_২০২০
প্রমা মজুমদার

প্রিয় বাবু,

যেখানেই আছো মনে হয় ভালোই আছো। কারণ সবাই বলে ভালো মানুষের কোন কষ্ট হয়না।আচ্ছা বাবু তোমার কি আমার কথা হয়?আমার তো সবসময় তোমার কথা মনে হয়,যেদিন প্রথম মা হয়েছিলাম তুমি ওটির বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলে।সেদিন হয়তো খুব কষ্ট পাচ্ছিলে আমার কথা ভেবে।নাতনি হওয়ার পর হাসপাতালের সবাইকে মিস্টি খাইয়েছিলে।নিজে দাঁড়িয়ে থেকে আমার মেয়ের জন্য ছোট ছোট বালিশ, কোলবালিশ বানিয়ে নিয়ে এসেছিলে আরও কতো কিছু আমি মনে মনে খুব খুশি ছিলাম কিন্তু কারো মনে হয় নজর লেগেছিল আমাদের সুখে কিছুদিনের মধ্যেই আমাকে একা করে চলে গেলে।
যখন আমার মেয়ের বাবা অপেক্ষা করতো কখন তার মেয়ে বাবা ডাকবে আর আমার বুক ভেঙে কান্না আসতো আমিতো কাউকে আর কোনদিন বাবা ডাকতে পারবো না।
বাবু তোমার মতো কেউ আমাকে মা বলে ডাকে না।বাসায় গেলে এখনো মনে হয় কিছুক্ষণ পরেই তুমি আসবে দরজার বাইরে থেকেই মা বলে ডাকবে।বয়স্ক মানুষ দেখলে মনে হয় ওরাতো বেঁচে আছে তুমি কেন চলে গেলে?
বাবু জানো আমি যখন দ্বিতীয় বার মা হয়েছিলাম তখন মনে মনে ভাবছিলাম তুমি যদি সেখানে থাকতে?বাবু তোমার যাওয়ার এতো কি তারা ছিল,আমাকে কেন একা করে চলে গেলে তোমাকে কতোটা ভালোবাসি সেটা কখনোই বলতে পারিনি বাবা দিবসে আমার মেয়েরা তাদের বাবার জন্য কতো আয়োজন করে আমি ওদের কিছু বুঝতে দেইনা আমার মনটা সেদিন কতোটা খারাপ থাকে।বাবু জানো আমি খুব হিংসুটে হয়ে গেছি আমার বাচ্চাদের যখন তাদের বাবা আদর করে তখন খুব কষ্ট লাগে আমার ভাগ্যটা কেন এতো খারাপ, কেন আমার বাবা নেই?মন খারাপ হলে কেন তোমাকে পাশে পাইনা।
কিন্তু আমার ছোটবেলা তো এরকম ছিলো না। বাড়ির প্রথম সন্তান একমাত্র মেয়ে সবার সবচেয়ে আদরের।কেউ আমাকে বকা দিতে পারতো না তোমার ভয়ে মা সবসময় বলতো তুমি আমাকে বিগড়ে দিচ্ছ।
একদিন মা’র কাছে বকা খেয়ে কিছু খাইনি তুমি নিজের হাতে ভাত মেখে খাইয়ে দিয়েছিলে আমার একদম ধৈর্য্য নাই কথায় কথায় রাগ
ভাইয়ের সাথে ঝগড়া করে কতদিন ওকে খিমচি আর কামড়ে দিতাম। তুমি ভাইকে বলতে, দিদিকে মারিস না আমাকে মার!ও রাগে গজগজ করতো।আমার বন্ধুরা বলত আমার সাথে তোমার সম্পর্কটা খুব সুন্দর তুমি কোনদিন আমাকে বকা দাওনা যা চাইতাম সবকিছুই এনে দিতে। দোকানের সবচেয়ে ভালো জামাটাই আমার হতো।যখনই কোথাও যেতে আমার জন্য কিছুনা কিছু নিয়ে আসতে,একটুও কষ্ট পেতে দাওনি।তাহলে সারাজীবনের জন্য এতো কষ্ট কিভাবে দিতে পারলে?তুমি তো জানতে তোমাকে ছাড়া আমার একটা দিনও ভালো কাটতো না।বাসায় ভালো রান্না হলেই ফোন করতে এখনই চলে আয় আমাকে না খাইয়ে তো তুমি খেতে পারতেনা এখন কিভাবে আছো আমাকে ছেড়ে।
যেদিন তুমি চলে গিয়েছিলে প্রথম কয়েকদিন মন থেকে মেনে নিতে পারিনি তোমাকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলাম মনে হয়েছিল তুমি ঘুমাচ্ছ আমি আমার জীবনের সবচেয়ে ভালো বন্ধুটাকে সেদিন হারিয়েছিলাম সেদিনের পর থেকে আর কাউকে ফোন করে বলতে পারিনা আজ সারাদিন কি কি করলাম কাউকে বলতে পারিনা আজ আমার মেয়ে প্রথম মা ডেকেছে, প্রথম হাটতে পারছে,কেউ আমার গলা শুনে বুঝতে পারে না আমার মন খারাপ।বাবু তোমাকে আমার আরও অনেক দিন প্রয়োজন ছিল।
এখন তোমার পাগলি মা অনেক বড়ো হয়ে গেছে।অনেক সহ্য,ধৈর্য হয়েছে এখন আর কথায় কথায় রাগ করেনা।কিন্তু এমন কোন দিন নেই যেদিন তোমার কথা মনে হয় না, যখনই ভালো কিছু হয় ভাবি তুমি থাকলে কি করতে কতোটা খুশি হতে।কেন যেন মনে হয় তুমি সবসময় আমার পাশে আছো যখনই কোন খারাপ পরিস্থিতিতে পরি মনে হয় তুমি সব কিছু দেখতে পাচ্ছ আর ভাবছো তোমার মেয়ে কিভাবে সব কিছু সামলাতে পারবে?বাবু আমি এখন আমি অনেক ব্যস্ত মা কে তো
আমার কাছেই রেখে গেছো তার একাকিত্বটাও তো দুর করতে হবে
তুমি ফাঁকি দিয়ে অনেক তাড়াতাড়ি
চলে গিয়েছিলে মাকে আমি আগলে রাখতে চাই।আমার স্মৃতিতে তুমি এখনো হাসিখুশি সেই মানুষটিই আছো।
বাবু পরজন্ম বলে যদি কিছু থাকে আমি কিন্তু তোমার মেয়ে হয়েই জন্মাতে চাই আমার এই কথাটা কিন্তু তোমাকে রাখতেই হবে।আর কি লিখবো যদি এই চিঠি তুমি কোনদিন পরো তাহলে যেনো তোমার মা তোমাকে অনেক ভালোবাসে।
ইতি
তোমার আদরের মা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে