Crush যখন বর?Season_2Part_25/26/27

0
2797

Writer-Afnan Lara
Crush যখন বর?Season_2Part_25/26/27
তনু আরেকদিকে ফিরে হাঁটা ধরলো,,
তৃনা-কিরে শিশির তনু কই?
শিশির-ঐ তো,শিশির পিছনে তাকিয়ে দেখলো তনুকে দেখা যাচ্ছে না,,
শিশির আবার সেদিকে দৌড় মারলো,,কই গেলো আবার,,শিশির খুঁজতেছে,তনু তনু তনু
তনু নিচ থেকে মাথা তুললো,
তনু-কি হয়সে??
শিশির-এত ডাকি কানে শুনো না?কই গেসিলা??আমার সাথে থাকলে কি হয়,আবার একা একা কই গেসো,
তৃনা-হয়সে থাম,ওরে বলতে দে
তনু-আমি তো চা পাতা নিতেছিলাম
শিশির-এখানে আসিও বাচ্চামো শুরু করে দিসে,,
শিশির তনুর হাত ধরে টেনে নিয়ে গেলো,,
শিশির -একা একা যদি কিডন্যাপ হয়ে যাইতা?,একটা চড় মারবো আর এমন করলে, শিশির তনুর হাত থেকে পাতা নিয়ে তনুর মুখে ভরে দিলো,,
তনু মুখ থেকে ফেলে দিয়ে কাশতে লাগলো,,
তৃনা-কি হয়সে তনুর??
শিশির-কি জানি,,
তনু-কুত্তা
সবাই কমলা বাগানে গেলো,,
তনু কমলা শাড়ী পরেছ,কমলা বাগানে তনুকে খুব মানিয়েছে,,
শিশির তনুর থেকে চোখ সরাতে পারছে না,,
শিশির ফোনে কথা বলে তাকিয়ে দেখলো তনু অনেক দূরে চলে গেসে,,
তনু পিছনে তাকিয়ে দেখলো শিশির রাগী লুকে আসতেছে,Shirt এর হাতা উঠাইতেছে,,
তনু-সরি আসলে,
শিশির তনুর চুল ধরে টেনে নিয়ে এলো,
তনু-আম্মুউউ লাগতেছে,,
শিশির-চুপ,জীবনেও আমার কথা শুনে না???
তৃনা-মেয়েটারে ছাড়,হয়সে ও আমার সাথে থাকবে
শিশির-না আমার সাথেই থাকবে,,
শিশির তনুর শাড়ীর আঁচল টেনে নিজের হাতে গিট্টু দিয়ে দিলো,,
তৃনা-হাহাহা
শুভ-???
সবাই মিলে চা খেতে গেলো,,
সবাই পাহাড়ের কাছ দিয়ে হাঁটতেছে,তনু মুখ গোমড়া করে শিশিরের পিছন পিছন আসতেছে,হাত এখনও বাঁধা,,তনু হাত দিয়ে ছাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে
শিশির তনুর দিকে তাকালো,,
ho..chuye dile tumi ekbar♥
jai hariye anmone hum..♥♥
tai chute asi kache bare bar
ami tomatei…o…hum♥
jodi ekbar bolo valobaso amake
jane januk loke
harabo dujon dujonate
priya…ore priya
bachbo nago tumi chara…
priya…ore priya
kobu a badhon chere jeo na♥♥
o keno asi seto janina hay
keno jani mone hoy ache kono pichu tan
keno asi seto janina hay
keno jani mone hoyache kono pichu tan♥
hum jodi ekbar bolo valobaso amake♥
jane januk loke
harabo dujon dujonate
priya o…re priya
bachbo nago tumi chara
priya…ore priya
kobu a badhon chere jeo na♥♥
তনু-ভালোবাসি
শিশির তনুর দিকে তাকিয়ে মুচকি হেসে টেনে নিয়ে গেলো,,
পাহাড়ের কোনে আনলো,,তনু হা করে দেখতেছে,,শিশির ফোন টা একটা গাছের ঢালে রাখলো,,Timer on করলো,,
তনুকে জোরে এক টান দিলো,তনু এসে শিশিরের বুকে,,Picture captured ♥
তনু-কি হলো?
শিশির-পিক তুলা হলো,,চলো,,
শিশির আবার টেনে নিয়ে গেলো,,
একটা বাবু তার মা বাবার সাথে এসেছে ঘুরতে,
বাবু-মাম্মাম দেখো,ও uncle তা anty কে বেঁধে রেখেছে দেকো
শিশির বাবুর কাছে আসলো,,
শিশির-আসলে তোমার anty ও বাবু তাই বেঁধে রেখেছি নইলে হারিয়ে যাবে,
বাবু-ও আচ্চা
তনু-?শুনেন
শিশির-বলেন
তনু-আপনি আমাকে ছাড়া বাঁচবেন না??
শিশির-ওটা গান ছিলো,,মন চাইছে তাই গাইলাম,
তনু-হুহ??
তনু শিশিরের হাত থেকে শাড়ীর আঁচল টেনে খুলে ফেললো,তারপর হাঁটা ধরলো,,তৃনার কাছে এসে দাঁড়ালো,,
শিশির হাওয়াই মিঠায় নিলো,,৩টা,,তৃনা আর শুভরে দিলে,
তনু-আমার টা??
শিশির-আমার থেকে খাও,,
তনু-আলাদা নিলে কি হতো??
শিশির-থাক খেতে হবে না
তনু-এ্যা?
শিশির নিজের টা তনুর হাতে দিলো,তনু আরেকদিকে ফিরে খেতে লাগলো,
শিশির-এত কিপটা কেন তুমি??আমারে একটু দিতে পারো না,,?
তনু-দিমু না,তনু দূরে গিয়ে দাঁড়িয়ে খেতে লাগলে,,
শিশির-ঐ দেখো বিমান,
তনু আকাশের দিকে তাকালো শিশির হাত থেকে মিঠায় নিয়ে চলে গেলে,
তনু-হারামি,কুত্তা???
তৃনা-মাগো আর পারুম না,,হাঁটতে,,
শুভ তৃনাকে কোলে তুলে নিলো,,
তনু-how romantic ????
শিশির-আপনার পায়ে ব্যাথা করে??
তনু-না?I’m strong,,
শিশির-তাই নাকি??
শিশির হাতের ব্যাগ গুলা তনুর হাতে ধরিয়ে দিলে,
তনু-আরে আমি হাঁটব কিভাবে??
তনু এলোমেলো করে একটু গিয়েই ঠাস করে পড়ে গেলে,
শিশির মুচকি হেসে ব্যাগ সহ তনুকে কোলে তুলে নিলো,,
তনু-?
শিশির-এবার বলো how romantic
তনু-কচু?
সন্ধ্যায় সবাই রিসোর্টে ফিরে আসলো,,
তনু ব্যাগ রেখে বসলো,,
শিশির পানি এনে ইচ্ছে করে তনুর গায়ে ফেলে দিলো
তনু-ইসস,আমার পিছনে না লাগলে শান্তি হয় না আপনার??
শিশির-না,যাও change করে আসো,ঐ নেটের শাড়ীটা পরবা
তনু-এখন??
শিশির-হ্যাঁ,না পরলে যা পরবা তাই পানি ঢেলে ভিজায় দিবো,
তনু নেটের শাড়ীটা নিয়ে পরতে গেলো,,
শিশির বারান্দায় দাঁড়িয়ে আকাশের দিকে তাকিয়ে আছে,,হালকা বাতাসে তনুর গায়ের ঘ্রানটা পেলো,,,পিছন ফিরে তাকালো,তনু দাঁড়িয়ে আছে শাড়ীটা পরে,,হাত দিয়ে পেট ঢেকে রেখেছে,,
শিশির এগিয়ে গেলো,,কারেন্ট নেই,শিশির পা বারাতেই নিচে কিছু একটার সাথে হোঁচট খেয়ে গিয়ে তনুর উপর পরলো,,তনু নিচে,,শিশির উপরে,,
শিশিরের ঠোঁট গিয়ে তনুর ঠোঁটে পরলো
তনু শিশিরের shirt শক্ত করে ধরে আছে চোখ বন্ধ করে,,
শিশির একটু উঁচু হলো,,
তনু লজ্জায় মরে যাইতেছে,,
শিশির হালকা হালকা আলোয় তনুর মাথার চুল কানে গুজে দিলো,,তনুর ঠোঁটের দিকে তাকালো,,হাত নিয়ে তনুর পেটে রাখলো,,
তনু কেঁপে উঠলো,, কারেন্ট এসেছে,,
শিশির শয়তানি করে পেটে খাঁমছি দিলো
তনু হা করতেই শিশির নিজের ঠোঁট লাগিয়ে দিলো,,তনু চোখ বড়বড় করে তাকিয়ে আছে,,
চলবে♥?
“এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার।
আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এখানে ক্লিক করুন



Writer-Afnan Lara
Crush যখন বর?
#Season_2
#Part_26
শিশির কাতুকুতু দিতে থাকলো,তনু যে চিৎকার দিবে তার ও উপায় নেই,,শিশির ছাড়তেছে না,,১০মিনিট পর তনুর হাত ছাড়লো,তনু শিশিরকে সরিয়ে উঠে বসলো,
শিশির শুয়ে আছে,,
তনু চোখ বন্ধ করে বসে রইলো,
আমাকে তো ভালোবাসেন না,তাহলে এসব কি?
শিশির-এসব তোমাকে জ্বালানোর মধ্যে পড়ে
তনু-কথা ঘুরাইতেছেন?
শিশির -নাহ
তনু পিছন ফিরে শিশিরের হাত ধরলো,,তাকিয়ে থাকলো,
শিশির-ভালোবাসি না
তনু হাত ছেড়ে দিয়ে উঠে গেলো,,খাটে গিয়ে শুয়ে পরলো,,শিশির আর কিছু বললো না,,বারান্দায় গিয়ে চেয়ার নিয়ে বসলো,,
পরেরদিন সকালে তনু তাড়তাড়ি উঠে রেডি হয়ে নিলো,,
শিশির-এত তাড়তাড়ি উঠলা?
তনু কিছু বললো না,,শিশির গিয়ে fresh হয়ে তনুকে নিয়ে বের হলো,,তৃনা আর শুভ ও আসলো,,
শিশির-আমরা আজ বিছানকান্দি আর পানতুমাই যাবো
তৃনা-????
শুভ-তাইলে তো নৌকা নিতে হবে,,
তৃনা-এই তনু কিছু বলস না কেন??
তনু-হুম
শিশির-আগে আইরাকান্দি নৌকার ঘাটে যেতে হবে,বাসে উঠবো চলো,,
তনু চুপচাপ বসে আছে,,শিশির আচার কিনে তনুর হাতে দিলো,,
তনু নিয়ে খেতে লাগলো,,তনুর এমন চুপচাপ শিশিরের মোটেও ভালো লাগতেছে না,,এক হাত দিয়ে টেনে তনুকে গায়ের সাথে লাগিয়ে বসালো, তনু তাও কিছু বললো না,,
শিশির মুখ নিয়ে তনুর গলায় লাগালো,,তনু চোখ বন্ধ করে ফেললো,,
শিশির হালকা কামড় দিয়ে ছেড়ে দিলো,,তনু বাইরের দিকে তাকিয়ে আছে,
শিশির- এই পেত্নি,,কুত্তি,,কথা কও না কেন??
তনু-যাকে ভালোবাসেন না তার সাথে কিসের কথা?
শিশির তনুকে ছেড়ে দিলো,উঠে আরেক সিটে গিয়ে বসলো,,তনু আর কিছু বললো না,,
তৃনা-কিরে শিশির তনু একা?
শিশির-থাকুক,
একটা লোক জায়গা না পেয়ে তনুর সাথে বসতে গেলো,,
শিশির-Excuse me,এটা আমার জায়গা,,
শিশির এসে বসে পরলো,,গাড়ীর ধাক্কার সাথে তনু সামনের সিটে বারি খাওয়া ধরলো শিশির হাত দিয়ে ফেললো,,আরেক দিকে তাকালো,তনুর দিকে তাকালো না,
সবাই বাস থেকে নেমে নৌকায় উঠলো,,
তনু হা করে দেখতেছে,,শিশির পানিতে হাত দিয়ে পানি নিয়ে তনুকে ভিজিয়ে দিলো,,তনু নিয়ে শিশিরকে ভিজিয়ে দিলো,,শুরু ঝগড়া,,???
তৃনা-থাম থাম হয়সে,
অবশেষ ঝর্নাতে গিয়ে পৌঁছলো সবাই,,তনু হা করে দেখতেছে,শিশির পাশে দাঁড়িয়ে আছে,
তৃনা শয়তানি করে দুজনকে এক ধাক্কা দিলো, দুজনে গিয়ে পানিতে,
দুজনে ভিজে গেসে,,
শিশির-তৃনা তোর কোনো কাম নাই?আমরা এখন এই ভিজা জামা নিয়ো সারাদিন থাকবো??
তৃনা-সাথে করে জামা আনছি,
শিশির-আগে থেকে planning?
তনু গা ঢেকে দাঁড়িয়ে আছে,,শিশির shirt খুলে তনুকে পরিয়ে দিলো,,
একটা মেয়ে-হটটটটটটটটট?
শিশির মেয়েটার দিকে তাকিয়ে চোখ মারলো, চলে গেলো
মেয়ে-হায়য়য়য় মে মার যাবা
তনু-?????কি বললি?এটা আমার জামাই বুঝছোস???
মেয়ে-সরি বোন আসলে এত কিউট ছেলে না তাকিয়ে পারলাম না,,
তনু গিয়ে change করে আসলো,,শিশির ও change করে নিলো,
শিশির-চলো এই পাহাড়টাতে উঠবো,,
তৃনা-তোরা যা,আমি আর শুভ নিচের দিকে যাবো,,
শিশির-ঠিক আছে,,শিশির তনুর হাত ধরে উঠা ধরলো,,
তনু-আপনি ঐ মেয়েগুলাকে চোখ মারলেন কেন?
শিশির-এমনি,
তনু একটা ছেলের দিকে তাকিয়ে চোখ মেরে দিলো,
শিশির অগ্নি দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে তনুর দিকে,
তনু-সেম টু সেম
পাহাড়ে উঠে শিশির তনুর হাত ছেড়ে দিলো,,
তনু ঘুরে ঘুরে দেখতেছে,,
শিশির-তনু ঐদিকে যাইও না,,Dangerous area
শিশির তৃনাকে কল দিলো,,
তনু উঁকি মেরে দেখতে গেলো area,,মাগো মা পড়লে তো আর বাঁচুম নাহ?????,,তনু চলে আসা ধরলো ওড়না আটকে গেলো,,টানতেছে তাও আসতেছে না,,কাছে গিয়ে টানতে গেলো,,কলিজা কাঁপতেছে,,ওড়না টেনে উঠে পা বারাতেই পড়ে যাওয়া ধরলো,তনু যে জায়গায় ছিলো সেটা ফাটা ছিলো,,
শিশির হাত ধরে ফেললো,,
শিশির-ছেড়ে দিই??এত বেয়াদবির জন্য??তোমাকে মানা করি নাই?আমার মানা কেন শুনো না??
তনু-দেন ছেড়ে,আমি মরে গেলে আপনার শান্তি হবে,,
শিশির টান দিয়ে বুকে নিয়ে এলো,,তনু শিশিরকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে দিলো,শিশিরের কাঁধে মাথা রাখলো,,
শিশির কিছু বললো না,,একটা হাত দিয়ে ধরে রাখলো,,
তৃনা-ভাইয়া
শিশির তনুকে ছেড়ে দিলো,,
তৃনা-এত উপরে উঠতে উঠতে আমরা শেষ,,
শুভ-হুম,,তোমার বোন তো বসে ছিলো মাঝপথে,
শিশির-হাহাহা
সবাই হোটেলে আসলো খাওয়ার জন্য,,খাওয়া শেষে,,
শুভ-এবার নীলকন্ঠ যাবো,,৭রঙের চা খাবো,,
শিশির-চলো
বাসে তনু কাঁদতেছে বসে বসে,,শিশির পকেট থেকে টিসু নিয়ে এগিয়ে দিলো,তনু নিয়ে জানালা দিয়ে ছুঁড়ে ফেলে দিলো,,
বিকালে গিয়ে সবাই নীলকন্ঠ পৌঁছালো,,তনু চুপচাপ চা খাচ্ছে,
তৃনা-তনু তোর চোখ মুখ এত ফুলে আছে কেন??শিশির তনুকে আবার কাঁদাইছস??
শিশির-কেউ যদি হুদাই কাঁদে তো আমি কি করবো,
তৃনা-কি হয়সে? তুই কিছু না করলে ও কেন কাঁদবে??
শিশির তনুর দিকে তাকালো,
তনু-আমি কাঁদি নাই,,চোখে কি পড়ছে,চুলকাইছি
চলবে♥
“এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার।
আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এখানে ক্লিক করুন



Writer-Afnan Lara
Crush যখন বর?
#Season_2
#Part_27
সবাই আর একটু ঘুরে রিসোর্টের জন্য রওনা দিলো,,অনেক রাত হয়ে গেসে,বাসে সবাই,,
তনু জানালায় মাথা রেখে ঘুমিয়ে গেসে,,শিশির আলতো করে টেনে এনে বুকে আনলো,,মাথায় হাত বুলিয়ে দিলো,,
শিশির -সরি সবকিছুর জন্য
তৃনা- তনু ঘুম থেকে জাগলে কথাটা বলিস,অনেক খুশি হবে,
শিশির-ও জাগলে ওর সামনে আমার মুখ দিয়ে এসব কথা আসে না,
রাত ১টায় রিসোর্টে পৌঁছালো সবাই,,শিশিরের তনুকে জাগাতে ইচ্ছে করছে না,মানুষ কম হলে কোলে করে নিয়ে যেতো,,তনুকে উঠালো,,
তনু গিয়ে রুমে শুয়ে পরলো,,
শিশির-তনু
তনু-হুম কি
শিশির এসে তনুর পাশে বসলো,,আমি তোমাকে খুব জ্বালাই তাই না??
তনু শিশিরের দিকে তাকালো,হঠাৎ এমন প্রশ্ন?
শিশির-লাভ নাই,,আজীবন জ্বালাবো,???এটা বলেই তনুর গায়ের থেকে ওড়না নিয়ে চলে গেলো,
তনু-কুত্তা,
তনু ঘুমিয়ে পরলো,,শিশির এসে তনুর কানে সুরসুরি দিতে লাগলো,,
তনু-উফ এমন করেন কেন?রাত কয়টা বাজে খবর আছে??
শিশির-হুম,আমার ঘুম আসতেছে না,,
তনু-তো মুড়ি খান,তনু আরেক দিকে ফিরে শুয়ে পরলো,
শিশির টেনে তুললো,
তনু-?
শিশির-মুড়ি তো নেই,কি খাবো
তনু -আমাকে খান,(এই যাহ,কি বলে ফেললাম?)
শিশির-তাই নাকি??শিশির টান দিয়ে তনুকে কাছে নিয়ে এলো,,
তনু -ইয়ে মানে,মজা করসিলাম?
শিশির-আমি seriously নিসি,,শিশির তনুর দিকে এগিয়ে গলায় কামড় দিতে যাবে,তনু চোখমুখ খিঁচে ভয়ে গুটিশুটি মেরে আছে,
শিশির-হাহাহা,,শিশির তনুর হাত ধরে কামড়ে দিলে
তনু-মাগো,??
শিশির-তুমি তো বললা খাইতে,,
তনু-তাই বলে আমাকে?
তনু পিছিয়ে গেলো,শিশির এগিয়ে এসে আবার কামড়াতে গেলো,তনু একদম খাটের কোনে এসে গেসিলো,শিশির ও খেয়াল করেনি,আবার পিছতেই তনু নিচে পড়ে গেলো,,পড়ে গিয়ে মাথা সাইড টেবিলের সাথে লেগে অনেকটা ফেটে গেসিলো,,
তনু-আহহহ,
শিশির নেমে এসে তনুকে ধরলো,
তনু মাথায় হাত দিয়ে বসে আছে,,শিশির হাত সরিয়ে দেখলো,
রক্তে ভরে গেসে,শিশির তনুকে বললো না,কারন তনু এমন কেটে যাওয়া দেখলে বা শুনলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে,,
শিশির তনুকে উপরে তুলে বসালো,,
তনু-মাথা ব্যাথা করতেছে,,
তনু হেলান দিয়ে শুলো,,
শিশির-কিছু হয়নি,,দাঁড়াও মুছে দিতেছি,,
তনুর এই অবস্থা দেখে শিশিরের নিজেরই অচেতন লাগতেছে,মুখে চিন্তা,ভয়,আর অপরাধ বোধের ছায়া ফুটে উঠেছে,,
আস্তে আস্তে তনুর মাথা পরিষ্কার করে bandage লাগিয়ে দিলো,
তনু-কি হয়সে bandage লাগালেন কেন?
শিশির-এমনি একটু খানি রক্ত বের হয়সে তাই,,
তনু মাথায় হাত দিয়ে আরেকদিকে ফিরে শুয়ে পরলো,,
শিশির নিজের হাতের দিকে তাকালো,রক্তে লাল হয়ে গেসে,,
শিশিরের চোখ থেকে অজান্তেই পানি বেয়ে হাতে পরলো,,উঠে বারান্দায় চলে গেলো,,
আজ নিজেকে অনেক অপরাধী লাগতেছে,,
নিজের খুশির জন তনুকে না জ্বালালে হয়ত আজ ওর এমন ক্ষতি হতো না,,
বেশি করে ফেলেছি,,ওকে সবসময় আগলে রাখি তাহলে আজ কেন পারলাম না,,আমি খুব খারাপ,,
শিশির দেওয়ালে কয়েকটা ঘুষি দিলো,,
হাত ধুতে গিয়ে তনুর কথা ভেবে কেঁদে দিলো,,
তারপর তনুর কাছে এসে বসলো,,
ওকে টেনে নিজের বুকে এনে বসে রইলো
শিশিরের চোখে ঘুম নেই,
তনুকে আগলে বুকের ভিতর ধরে রেখেছে,,

১বছর আগে শিশির একটা মরা টিকটিকি গায়ে কাটা ছিলো,,তনুকে ভয় দেখিয়েছে,,তনু সেদিন জ্ঞান হারিয়ে ফেলছিলো,তারপর থেকে শিশির এমন ভয় তনুকে দেখায়নি,,

তনুর গা গরম,আবার জ্বর এসেছে,,জ্বরের ঘোরে বারবার শিশিরকে চেপে ধরতেছে তনু,,সারা রাত শিশির একটু ও ঘুমায়নি,,
সকালে ♥
৯টা বাজে,তনু ঘুমাচ্ছে,,শিশির উঠে বারান্দা গিয়ে তৃনাকে কল দিলো,
শিশির-তোরা ঘুরতে যা,আমরা আজ যাবো না,তনু অসুস্থ,,না না থাক, কিছু হবে না,আমি আছিতো,,হুম বাই,
শিশির খাবার Order করে এনে তনুকে জাগালো,তনু মাথায় হাত দিয়ে উঠে বসলো,,
শিশির-খেয়ে নাও,তারপর ঔষধ খেতে হবে,,
তনু খাবার মুখে দিয়ে বমি করতে চলে গেলো,,বের হওয়ার পর শিশির জামা হাতে দিলো,নাও রেডি হয়ে নাও তোমাকে নিয়ে Doctor এর কাছে যাবো,,
তনু-কেন?
শিশির-মাথা যে একটু ফাটছে,,
তনু-একটু তো??
শিশির-হুম,
তনু রেডি হয়ে নিলো,শিশির হাত ধরে নিয়ে গেলো,,হসপিটালে শিশির doctor কে বলেছে যেন তনুকে না বলে যে বেশি ফাটছে,
Doctor -সেলাই করতে হবে,
তনু-কিহ??
শিশির-একটু,ব্যাথা পাবা না
তনু-না না,আমি করবো না,,
শিশির Doctor কে ইশারা করলো,,শিশির তনুকে ধরে রাখলো,Doctor এসে অজ্ঞানের ইনজেকশান দিয়ে দিলো,তনু শিশিরের গায়ে শুয়ে পরলো,,Doctor সেলাই করে Bandage লাগিয়ে দিলো,,
শিশির তনুকে নিয়ে সিটে বসে আছে,তনু শিশিরের কাঁধে মাথা রেখে ঘুমাচ্ছে,,
১ঘন্টা পর তনুর জ্ঞান ফিরলো,,
শিশির-চলো রিসোর্টে,
তনু-ঠিক আছে,,
রিসোর্টে এসে তনু গিয়ে বারান্দায় দাঁড়ালো,,
শিশির-Rest নাও,
তনু-নাহ ভালো লাগতেছে না,,
শিশির এসে পাশে দাঁড়ালো,,তনুর কোমড়ে হাত দিয়ে কাছে টেনে নিলে,,খুব লেগেছে??
তনু-একটু
শিশির-সরি,আমার ভুলে
তনু-?
তনু চলে যাওয়া ধরলে শিশির হাত ধরলো,,
তনু-কি?
শিশির তাকিয়ে আছে তনুর দিকে,,
চলবে♥

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে