মেয়েটি তখনোও একা

0
42

এক দিন, দুই দিন… নব্বইতম দিন
রাস্তার মোড়ে ছেলেটি ঠাঁয় দাঁড়িয়ে রইল!
এ কি মানুষ? না খুঁটি?
মেয়েটির মনে সন্দেহ জাগে!

সে ভাবে-
“ভালো যদি বেসেই থাকে
তাহলে এগিয়ে আসে না কেন?
হাঁটু গেড়ে ভালোবাসার কথা জানান দেয় না কেন?
ভালোবাসা তো নিভৃতে রাখা যায় না!”

না, না, না
সে কী ভাবছে!
ছেলেটি যে’ই হোক
পাগল, খারাপ লোক কিংবা ভদ্রলোক
তার কিছু যায় আসে না, কিছুতেই না।

মেয়েটি হাঁটার সময় আচমকা
তার চোখ দুটো চলে যায় রাস্তার মোড়ে!
কী জানি, হয়ত ছেলেটার প্রতি মায়া জন্মাচ্ছে!
এই মায়া জিনিসটা খারাপ; বড্ড খারাপ
মানুষকে উন্মাদ করে দেয়, বোধহয়
মেয়েটাকেও করে দিয়েছে!
রাস্তার মোড় পেরিয়ে যেতেই
সে অবচেতন মনে ঘাড় ফিরিয়ে দেখে
ছেলেটি ঠাঁয় দাঁড়িয়ে থাকে; একচুলও নড়ে না!
মেয়েটি কী যেন ভাবে!
তার ঠোঁটের কোণে দুষ্টুমির ফুটে ওঠে…

চলে যায় দিন
আলোর তীব্রতা কমে; আঁধার হানা দেয়-
মেয়েটি কি মনে করে
রাস্তার মোড়ে উঁকি দেয়!
কোথাও কিছু নেই; কিচ্ছু না!

সে হেয়ালি মনে ঘুরে দাঁড়ায়, মন তার আনচান করে।
ঘাড় ফিরিয়ে দেখে-
হ্যাঁ, ওই তো; ছেলেটা ঠাঁয় দাঁড়িয়ে আছে!

ওমা!
স্ট্রিট লাইটের আলোয় ছেলেটার কোনো ছায়া পড়ছে না…

———–
©Arafat Leo Tonmoy

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here