নেশালো সে পর্ব-১২

0
1533

#নেশালো_সে💖
#লেখনীতে:#তানজিল_মীম💖

১২.

“কলিংবেল বাজার আওয়াজে রান্নাঘর থেকে দৌড়ে চলে আসলেন আয়াফের আম্মু’!!দরজা খুলে আফিয়াদের দেখে চরম খুশি হয় উনি’!!খুশিতে বলে উঠলেন উনিঃ

———-“কেমন আছিস তোরা…

“আফিয়া মুচকি হেঁসে বললোঃ

———–“আমরা ভালো আছি আম্মু তোমরা কেমন আছো!’

————“আমরাও ভালো আছি,এখন তোরাও এসে পড়েছিস আরো ভালো থাকবো…..

“তারপর আয়াফ আফিয়া দুজনেই ভিতরে ঢুকে গেল’!!আয়াফ বাড়ির ভিতরে ঢুকেই সোজা নিজের রুমে প্রবেশ করলো’!!এরই ভিতর আরিশা এসে হাজির’!!তারপর তিনজন মিলে কিছুক্ষন গল্প করে করলো’!!তারপর আফিয়া চলে যায় ফ্রেশ হতে…..

“মাঝখানে কাটলো দুদিন…..

||

“রান্না ঘরে দাঁড়িয়ে আছি আমি’!!উদ্দেশ্য হচ্ছে রুটি আর আলুভাজি তৈরি করবো’!!এই মুহূর্তে বাসায় আমি ছাড়া কেউ নেই’!!শাশুড়ী মা আর আরিশা গেছে শপিং করতে’!!আমাকেও বলেছিল বাট আমি রাজি হই নি’!!শশুর মশাই আর আয়াফ দুজনেই অফিসে’!!বর্তমানে আমি আর একজন কাজের মেয়ে শিউলি ছাড়া কেউ নেই’!!শিউলি বর্তমানে উপরে কাজ করছে’!!আর বাড়িতে কেউ নেই তাই ইচ্ছে করলো সবার জন্য কিছু তৈরি করি’!!এমনিতে এই বাড়িতে তেমন কাজ করতে হয় না আমার’!!তাই ভাবলাম আজকে কিছু তৈরি করে সবাইকে জাস্ট চমকে দিবো’!!যেই ভাবা সেই কাজ’!!আটা ভিতর পানি দিয়ে আটা মাখছি আমি’!!এমন সময় কলিং বেল বেজে উঠল’!!এই সময় আবার কে আসলো’!!একরাশ হতাশ হয়েই আটা মাখানো হাত নিয়েই রান্নাঘর থেকে বের হলাম আমি’!!ওদিকে কলিংবেল বাজছে তো বাজছেই’!!

———-”আরে বাবা আসতে সময় লাগবে তো নাকি’!!
“বলেই দরজা খুলে ফেললাম আমি’!!সামনে আয়াফকে দেখে বেশ অবাক হয়ে বললামঃ

———“তুমি এই সময়….

———–“এমনি একটু ক্লান্ত লাগছে তাই চলে আসলাম

———-“ওহ তাহলে তুমি বসো আমি শরবত নিয়ে আসি!

———-“তার প্রয়োজন নেই আমি আগে গোসল করবো তারপর বাকি সব!

“আমিও হাল্কা হেঁসে বললামঃ

———-“ঠিক আছে!

“আয়াফও আর কিছু না বলে উপরে চলে গেল!আর আমি কিচেনের দিকে’!!আবারো মন লাগালাম রুটি দিকে’!!

______________________

“বেশকিছুক্ষন পর….

“আয়াফ ফ্রেশ হয়ে আসলো রান্নাঘরের দিকে’!!পড়নে তার ব্লাক ট্রাউজার আর সাদা টিশার্ট’!!চুলগুলো দিয়ে অল্প অল্প পানি পরছে সদ্য গোসল সেরেই এসেছে সে’!!রান্না ঘরে আসতেই আফিয়াকে দেখে চোখ আঁটকে যায় আয়াফের’!!এই প্রথমবার অন্যরকম লাগছে আফিয়াকে আয়াফের কাছে’!!আফিয়া তার শাড়ির আঁচল কোমড়ের গুজিয়ে রেখেছে’,চুলগুলো কাঁকড়া ব্যান্ট দিয়ে উঁচু করে খোঁপা করা,অল্প কিছু ছোট ছোট চুল আসছে সামনে যেগুলোকে বার বার আফিয়া তার হাত দিয়ে নাড়িয়ে পিছনে সরিয়ে দিচ্ছে’!!গ্যাসে রুটি বাজছে আফিয়া!কপালের পাশ পেয়ে বিন্দু বিন্দু ঘাম গড়িয়ে পরছে’!!এক কথায় বলতে গেলে একদম বউ বউ দেখাচ্ছে আফিয়াকে’!!আয়াফ অপলক ভাবে তাকিয়ে আছে আফিয়ার দিকে’!!এই মেয়েটাকে যেভাবে দেখে সেভাবেই ভালো লাগে আয়াফের’!!যতবার দেখে যেন ততবারই নতুন ভাবে প্রেমে পড়ে যায় আয়াফ’!!মুচকি হাসলো আয়াফ’!!তারপর আস্তে আস্তে আফিয়ার পাশে দাঁড়িয়ে ওর দিকে কিছুক্ষন তাকিয়ে থেকে ওর সামনে থাকা চুলগুলোর দিকে একটা ফু দিয়ে সরিয়ে দিল’!!

.

“আচমকা এমনটা হওয়াতে আমি ভয় পেয়ে ঘাড় বাঁকাতেই দেখলাম আয়াফ’!!আমি কিছুটা ভড়কে গিয়ে বললামঃ

———“তুমি,,

———“হুম আমি তা কি করছো তুমি?

———-“কি করছি রুটি বানাচ্ছি….

———–“ওহ তুমি রান্না করতে জানো জানতাম না তো…

“আমি সামান্য রেগে বললামঃ

———-“কি বলতে চাইছো তুমি আমি রান্না করতে পারি না!

———-“না না সেটা কখন বললাম, আসলে এত দিনে তো কোনোদিনও রান্না করতে দেখিনি তোমায় তাই আর কি?

———–“সেটা অবশ্য ঠিক বলেছেন শাশুড়ী মা তো আমায় কিছু করতেই দেয় না,তাই আজকে মা আর আরিশা নেই বাসায় সেই সুযোগে…

আফিয়ার কথা শুনে আয়াফ অবাক হয়ে বললোঃ

———-“মা ওরা বাসায় নেই কোথায় গেছে…

———-“শপিং করতে গেছে আমাকেও বলেছিল আমি যাই নি,

———-“ওহ..

———-হিম!আলুভাজি আর রুটি তৈরি করছি আমি, সবাইকে খাইয়ে জাস্ট অবাক করে দিবো কেমন হবে বলো তো….

“আফিয়ার কথা শুনে আয়াফ উৎসাহের সাথে বললোঃ

———-“খুব ভালো হবে,

———-“হু হু…

“আফিয়া প্রচন্ড আনন্দমূলক উওেজনা নিয়ে কাজ করছে’!!আর আয়াফ পাশে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ওকে দেখছে’!!হর্ঠাৎই আয়াফের মাথায় একটা শয়তানি মার্কা বুদ্ধি আসলো’!!একটু না জ্বালালে ভালো লাগে নাকি’!!ভেবে হাল্কা হাসলো আয়াফ’!!

……

“রুটি বানানো প্রায় শেষ’!!আর আলুভাজি অনেক আগেই হয়েছে’!!ভাবতেই খুশি খুশি লাগছে আমার’!!এমন সময় হর্ঠাৎই মনে হলো কেউ গালে কিছু লাগিয়ে দিল’!!গালে হাত দিতেই অবাক আমি কারন কেউ আটা মাখিয়ে দিয়েছে মুখে’!!আমি অবাক হয়ে পিছনে ঘুরে তাকাতেই দেখলাম আয়াফ তার হাতে আটা মেখে দাঁড়িয়ে আছে’!!যাতে আমার আর বুঝতে বাকি রইলো না কাজটা কে করলো’!!আমি একটু গম্ভীর আওয়াজে বললামঃ

———–“এটা কি হলো….

“আয়াফ হাল্কা হেঁসে বললোঃ

———-“তুমি বুঝতে পারো নি….

———–“ওহ এই ব্যাপার আচ্ছা ওয়েট আমিও একটু বুঝিয়ে দেই তাইলে….

“বলেই গ্যাসটা অফ করলাম আমি’!!তারপর আটার প্যাকেট থেকে অল্প আটা বাটিতে রেখে তার ভিতর অল্প পানি দিয়ে দু-হাত ভরে আটা নিয়ে নিলাম তারপর আয়াফের দিকে এগিয়ে যেতে যেতে বললামঃ

———–“তুমি কিছু বুঝিয়ে ছো এখন আমি কিছু বুঝাবো ছুনা…

“আয়াফ রীতিমতো ঘাবড়ে গেছে একটু আগে গোসল করেছে সে এখন আবার আটা লাগিয়ে দিলে তো নো নো আটা লাগানো যাবে না’!!

———-“দেখো তুমি কিন্তু এমনটা করতে পারো না….

———–“কেনো পারি না তুমি লাগিয়ে দিয়েছো আমার গালে এখন আমি লাগাবো তোমার গালে….

————“না এমনটা করো না আমি এইমাএ গোসল করেছি এখন ওগুলো লাগালে আবার গোসল করতে হবে….

————“গোসল করা লাগলে করবে বেবি নো প্রবলেম…..

“এদিকে আয়াফ রান্নাঘর টপকে দৌড়’!!আর আয়াফের পিছনে আফিয়াও দৌড়’!!পুরো বাড়ি জুরে দৌড়াদৌড়ি শুরু করল দুজন’!!এক পর্যায়ে আয়াফ দৌড়ে নিজের রুমে চলে যায় আফিয়াও তার পিছন পিছন যায়’!!রুমে ঢুকে দুজনেই হাঁপাচ্ছে!কারন অনেকটা সময় ধরে তাঁরা দৌড়াচ্ছে’!!আয়াফ হাঁপাতে হাঁপাতে বললোঃ

———-“আর দৌড়াইও না…..

———–“আমি দৌড়াচ্ছি না কি তুমি দৌড়াচ্ছো…..

———–“দৌড়াবো না তো কি করবো না দৌড়ালে তো তুমি আটা লাগিয়ে দিবে….

———–“তুমি তো লাগিয়েছো তার বেলা….

———–“আমি তো মজা করে লাগিয়ে দিয়েছি…

“আফিয়া কিছুক্ষন চুপ থেকে বলে উঠলঃ

————“ওহ এই ব্যাপার ঠিক আছে যাও আর লাগাবো না…….

————“সত্যি তো….

———–“হুম সত্যি….

“তারপর আয়াফ ও আর কিছু না বলে চুপটি করে বিছানায় বসে পরল’!!প্রচুর কষ্ট হয়েছে তার দৌড়াতে’!!এমন সময় আফিয়া তার হাতের দিকে তাকিয়ে একটা শয়তানি মার্কা হাসি দিয়ে আয়াফের সামনে গিয়ে ওর দু-গালে আটা মাখিয়ে দিয়ে বললোঃ

———–”আমিও মজা করে লাগিয়ে দিসি জামাই..

”বলেই দৌড় আফিয়া’!!আর অন্যদিকে আয়াফ হাবলা কান্তের বসে রইল’!!যেন কি বললো সব মাথার উপর দিয়ে গেল’!!

__________________________________________

_______________________

“রাত_১০ঃ০০টা……

“সবাইকে খাবার খাইয়ে রুমে আসলো আফিয়া’!!প্রচন্ড খুশি লাগছে তার!!সবাই তার খাবার খেয়ে প্রশংসা করেছে’!!শাশুড়ী মা একটু রেগে গিয়েছিল রান্না করেছিল বলে’!!কিন্তু পরে পুরোটা মেনে নেয় সে’!!এ বাড়ির সবাই এই প্রথম আফিয়ার হাতে রান্না খেলো’!!ভালো লাগছে আফিয়ার’!!আফিয়া একটু ফ্রেশ হয়ে টিভিটা অন করলো’!!আয়াফ একটু বেরিয়েছে আর আফিয়ারও ঘুম আসছে না তাই বসে বসে টম এন্ড জেরি দেখছে’!!যেটা খুব ভালো লাগছে’!!কিন্তু খালি মুখে ঠিক টিভি জমছে না’!!সাথে পপকন থাকলে আরো ভালো লাগতো কিন্তু এতরাতে পপকন কোথায় পাবো এই ভেবে হাঁটা শুরু করলাম আমি’!!তারপর বাটিতে করে অল্প আমের আচার নিয়ে আসলাম আমি’!!তারপর আর কি আচার খেতে খেতে টিভি দেখছি আমি’!!অসম্ভব ভালো লাগছে এখন…..

||

“বেশকিছুক্ষন পর……

“রুমে ঢুকলো আয়াফ’!!আফিয়াকে এইভাবে এতরাতে কার্টুন দেখতে দেখে বেশ অবাক হলো সে’!!পরক্ষণেই হেঁসে আফিয়ার পাশে বসে বললোঃ

———-“কি করছো তুমি?

———–“আরে তুমি দেখতে পারছো না টম এন্ড জেরি দেখছি….

———–“তুমি বাচ্চাদের মতো এখনও কার্টুন দেখো…

———–“আমি বাচ্চা নই আমি বড় হয়ে গেছি শুধু টম এন্ড জেরি দেখতে ভালো লাগে তাই দেখি….. 😁

———-“ওহ…

———-“হুম,তারপর আয়াফও আফিয়ার সাথে তাল মিলিয়ে কার্টুন দেখতে লাগলো!

“আরো কিছুক্ষন কাটানোর পর আয়াফ দেখলো আফিয়া ঘুমানোর প্রতি কোনো হেলদোল নেই’!!তাই সে নিজেই বলে উঠলঃ

———-“আর কতোক্ষন টিভি দেখবে তুমি….

———-“এই তো আর দু’মিনিট….

———-“এই নিয়ে পাঁচ বার দু’মিনিট দু’মিনিট বলেছো আর দু’মিনিটে কাজ হবে না এখনই ঘুমাতে যাবে তুমি,,ঘড়ির দিকে তাকিয়ে দেখছো কয়টা বাজে?

———-“কয়টা বাজে….

———-“রাত_১ঃ০০টা বেজে গেছে’ আর তুমি এখনো বসে বসে কার্টুন দেখছো….

———-“প্লিজ প্লিজ আয়াফ আর দু’মিনিট দেখি….

———-“না আর কোনো দু’মিনিট নয় আবার কালকে…

“বলেই আয়াফ রিমোটটা হাতে নিয়ে টিভি বন্ধ করে দিলো সাথে সাথে আফিয়া দাঁড়িয়ে আয়াফের কাছ থেকেই রিমোটটা নিতে ব্যস্ত হয়ে পরলো’!!কিন্তু আয়াফ আফিয়ার থেকে এতোটাই লম্বা যে ওর হাত আয়াফের হাত পর্যন্ত পৌঁছাচ্ছে না’!!আয়াফ বিষয়টা নিয়ে মজা করে বলে উঠলঃ

———“তুমি আমার কাছ থেকে কখনোই রিমোট নিতে পারবে না….

———-“তুমি আমার থেকে লম্বা হলে আমি কি করে নিবো রিমোট…

“আয়াফ হাল্কা হেঁসে বললোঃ

———“তুমিও লম্বা হও তবে…..

“আফিয়া বিষ্ময় মাখা মুখ নিয়ে বললোঃ

———-“আমি কি করে লম্বা হবো….

———“সেটা আমি কি জানি….

“আফিয়া কিছুক্ষন চুপ করে থেকে হর্ঠাৎই বলে উঠলঃ

————“হচ্ছি আমি লম্বা….

“আয়াফ বেশ অবাক হলো আফিয়ার কথা শুনে কারন সে সত্যি বুঝতে পারছে না আফিয়া কি করে লম্বা হবে’!!হর্ঠাৎই আয়াফ তার পায়ে ব্যাথা অনুভব করছে কারন আফিয়া আয়াফের পায়ের উপর পা রেখে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে’!!আয়াফ পুরো বোকা বনে গেল আফিয়ার কাজে’!!এদিকে আফিয়া আয়াফের গলা জড়িয়ে ধরে অনেকটা উচু হয়ে বললোঃ

———“দেখছো লম্বা হয়ে গেছি এখন রিমোট দেও…

“হুট করেই আয়াফ আফিয়ার কোমড় জড়িয়ে ধরল’!!সাথে সাথে আফিয়া পুরো কেঁপে উঠল’!!এতক্ষণ পর আফিয়ার হুস ফিরলো সে এতক্ষণ কি করছিল’!!লজ্জায় কিছু বলতেও পারছে না আফিয়া’!!কিছু বলার জন্য মুখ খুলতে নিবে আফিয়া তার আগেই আয়াফ আফিয়ার মুখে হাত দিয়ে বললোঃ

———-“হুস…..

“আফিয়াও আর কিছু বললো না চুপচাপ রইলো সে’!!এদিকে আয়াফ আবারো চলে গেল তার নেশালো আসক্তের দিকে’!!আফিয়ার চোখ,চুল,ঠোঁট সব আবারো তাকে ঘোর লাগানো মুহূর্তে নিয়ে গেছে’!!আফিয়ার হুট করো এতটা কাছে আসাটা একদমই এক্সপেক্ট করো নি আয়াফ’!!এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে আয়াফ আফিয়ার ঠোঁটের দিকে’!!আয়াফ একটু একটু করে এগিয়ে যাচ্ছিল আফিয়ার ঠোঁটের দিকে’!!দুজনেই এক ঘোর লাগানো মুহূর্তে চলে গেছে’!!এমন সময় কারেন্ট চলে যায়।

–ব্যস বাকিটা ইতিহাস…🥱

____________________

“পরের দিন সকালে…….

!
!
!
!
!
!
!
!
!
!
!
!
!
#চলবে…………

🤍🤍🤍[ভুল-ত্রুটি ক্ষমার সাপেক্ষ!!
আর গল্প কেমন লাগছে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবে!!]💖💖💖

#TanjiL_Mim♥️

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে