তোমাকে চাই Part 1

0
4221

তোমাকে চাই Part 1
লেখিকা_আরবী_আরভি
আমার আব্বুর ৩ ভাই আমার বড় চাচ্চুর ছেলের নাম রেহান যার সাথে আমার ৯ মাসের রিলেশন আমরা ২ বোন আমার আরও ৩ টা চাচাতো বোন আছে ওদের ভাই নেই আমাদের সব কাজিনদের মধ্যে রেহান ভাইয়া সবার বড় এবং ফেমিলির সব আপুদের ক্রাস সবাই উনাকে অনেক পছন্দ করে উনি আমার সম্পদশালী বড় চাচ্চুর একমাত্র ছেলে দেখতে অস্থির ভার্সিটিতে পরে অনেক স্মার্ট গায়ের রঙ ফরসা মেয়েদের সাথে কম কথা বলে ওনাকে দেখলে খুব কম সংখ্যক মেয়ে অপছন্দ করবে আর আমি হলাম আমার সব কাজিন্দের ছোট বোন,,, এস এস সি দিয়েছি মাত,,,,,বয়স ১৮? আমি যে এখন বড় হইছি তা কারো চোখেই পরে না সবাই আমাকে ফ্যামিলিতে দুধ ভাত মনে করে?? রেহান ভাইয়ার সাথে রিলেশন করতে আমার জান বের হইয়া গেছিল কি পরিমান যে কষ্ট করছি তা শুধু আল্লাহ জানেন প্রথম যখন উনাকে প্রপজ করছিলাম তখন রেহান ভাইয়া টেবিলে বসে পড়ছিলেন আমি আস্তে করে উনার রুমে ডুকে টেবিলের পাশে দারিয়ে ছিলাম আমাকে দেখে উনি কিছুই বললেন না মনোযোগ সহকারে পড়ছিলেন আমাকে কোন পাত্তাই দিলেন না তারপর আমি নিজে থেইখাই সুরু করলাম,,,, -রেহান ভাইয়া, -হুম বল -আমি আপনাকে কিছু বলতে চাই ভাইয়া,, -কি তারাতারি বলে চলে যা,, -ভাইয়া অনেক দিন ধরেই বলব বলব ভাবছি,,, -তো বল,(আমার দিকে বিরক্তভাবে তাকিয়ে) -ভাইয়া মানে -ধুর যা তো,,,, – ভাইয়া I LoVe You,,(কাঁপছি,কারন আমার বড় আপু উনার থেকে কিছুদিনের ছোট হয়েও উনাকে ভয় পায় আর আমি তো একটা পিচ্ছি) -কি,,?? আমি শুধু কাঁপছি,,,,,,,,,, -হাহাহাহা ?????? উনি সুধু হেসেছিলেন আমার এখনো মনে আছে সেই দিনটার কথা তারপর আমি কেঁদে চলে আসছিলাম ঘরে,,,, পরের দিন সকালে রেহান ভাইয়া মিঠি আপুর (আমার আরেকটা কাজিন) সাথে কথা বলছিলেন আমি গিয়ে দাড়াতেই রেহান ভাইয়া রুমে ডুকে পরলেন আর মিঠি আপু আমাকে তারাতারি স্কুলে যেতে বললেন। ঘটনাটার পর থেকে রেহান ভাইয়া আমার সাথে ১ মাস কোন কথা বলেন নি আর আমি সবরকম চেস্টা করছিলাম উনাকে মেনেজ করার জন্য কিন্তু ব্যর্থ হচ্ছিলাম ?? একদিন দুপুরবেলা দেখলাম রেহান ভাইয়া চৌতি আপু মিঠি আপু মিলে সবাই অনেক হাসাহাসি করছেন মিঠি আপু বেস সুন্দরি আর আমার মনে হচ্ছিল উনি রেহানকে একটু অন্যচোখে দেখেন আমার অনেক জ্বলছিল অনেক বেশি ভালবাসি আমি উনাকে কিন্তু আমি জানি ওখানে আমি গেলে রেহান ভাইয়া চলে যাবে কোন একটা বাহানা দিয়ে তাই আর গেলাম না আমি ফ্রেশ হয়ে ডাইরেক রেহান ভাইয়ার রুমে গেলাম গিয়ে দেখি উনিও মাত্র ফ্রেশ হয়েছেন তাই রুম থেকে সরেই আসছিলাম তখন আমার মনে একটা কথা বাজতে থাকে যে উনি আমাকে পছন্দ করেন না কারন আমি পিচ্ছি আমি যদি বড়দের মতো কিছু একটা করি তাহলে হয়তো উনি আমাকে ভালবাসবেন তাই উনার রুমে আবার ডুকে দেখি উনি খালি গায়ে নিচে একটা টাওয়াল পরে আছেন ওলটু দিক হয় ফোনে কারো সাথে কথা বলছেন আমি কিছু না ভেবে দৌড়ে গিয়ে পেছন দিক থেকে তাকে জরিয়ে দরলাম আর বললাম I LoVe You,,,,, উনি পাশ ফিরে আমাকে দেখে জলদি করে নিজেকে ছাড়িয়ে নিলেন আমি আবার তার বুকের সাথে নিজেকে মিশিয়ে দিলাম এবার এবার উনি আমাকে নিজ থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে ঠাঁসসসসসসসসসসসসসসসসস করে কষে একটা থাপ্পর দিলেন আমাকে নিজ থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে ঠাসসসসসসসসসসসসসসসসস করে কষে একটা থাপ্পর দিলেন,,,, আমি অনেক ব্যাথা পাইছিলাম?????,,,,
চলবে,,,

এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি মাসে জিতে নিন নগদ টাকা এবং বই সামগ্রী উপহার।
শুধুমাত্র আপনার লেখা মানসম্মত গল্প/কবিতাগুলোই আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে। এবং সেই সাথে আপনাদের জন্য থাকছে আকর্ষণীয় পুরষ্কার।

গল্পপোকার এবারের আয়োজন
ধারাবাহিক গল্প প্রতিযোগিতা

◆লেখক ৬ জন পাবে ৫০০ টাকা করে মোট ৩০০০ টাকা
◆পাঠক ২ জন পাবে ৫০০ টাকা করে ১০০০ টাকা।

আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন: https://www.facebook.com/groups/golpopoka/?ref=share

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে