তোকে চাই❤part:11

0
1388

তোকে চাই❤part:11
#writer:রোদেলা❤



এই আপনি এভাবে হাসছেন কেনো?(সন্দেহ নিয়ে)

কই হাসছি না তো(হাসতে হাসতে উঠে দাড়িয়ে)

হাসছেন না মানে??”কই হাসছি না তো”এই কথাটাও আপনি হেসে হেসেই বললেন,,,তবু বলছেন হাসছেন না,,,(ভ্রু কুচঁকে)

তুমি ভুল দেখেছো,,,হাসছি না (বলে আবারো হেসে খুন)

এই আমাকে আপনার মগা মনে হয় নাকি??যে, যা বলবেন তাই বিশ্বাস করবো??আপনি হাসছেন মানে হাসছেন,,,শুধু হাসছেন বললে ভুল হবে আপনি তো রীতিমতো হাসতে হাসতে নাচানাচি করছেন,,,কাহিনী কি??(ভ্রু নাচিয়ে)

উনি এবার আমার নাকটা হালকা টেনে দিয়ে বেরিয়ে গেলেন,,,যাওয়ার সময় শুধু বললেন,,”দেরী হচ্ছে যটপট নিচে আসো।।”আমি তো শকড হয়ে দাড়িয়ে আছি,,শুভ্র হাসি হাসি মুখে আমার নাক টেনে দিলো,,,ওহ্ মাই গডডডড।।।।।আই কান্ট বিলিভ,,ইচ্ছা তো করছে নাগিন ডান্স দেই,,বাট ইচ্ছাটাকে আপাতত সাইডে রেখে ওনার কথা মতো যটপট নিচে নেমে গেলাম।।।নিচে গিয়ে দেখি উনি গাড়িতে বসে ওয়েট করছেন,,আমি একটু অবাক হলাম,,কারণ উনি গাড়ি খুব কম ইউজ করেন,,ওলওয়েজ বাইক দিয়ে চলাচল করে,,, তাহলে আজ কি হলো??আমার প্রথম থেকেই কতো শখ উনার বাইকে উঠবো,,,কিন্তু কখনো উঠতে পারি নি,,ভেবেছিলাম আজ উঠবো কিন্তু জনাব দেখি আগে থেকেই গাড়িতে উঠে বসে আছে,,কেনো রে??আমি তোর বাইকে উঠলে কি,,তোর বাইকের রং জ্বলে যাবে নাকি হুহ,,,,যত্তসব।।।নিজের মনে বিরবির করতে করতে গাড়িতে উঠলাম।।আমি গাড়িতে উঠা মাত্রই গাড়ি চলতে শুরু করলেন,, ,,দুজনেই চুপচাপ বসে আছি,,,উনি কিছু বলছেন না,,আর আমি বলার সাহস পাচ্ছি না।।পেটের মধ্যে কথাগুলো কিলবিল করছে কিন্তু গলা পর্যন্ত এসে আটকে যাচ্ছে,,,আমি বারবার উনার দিকে করুন চোখে তাকাচ্ছি,,,আর উনি স্ট্রেইট বসে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছেন,,,,হঠাৎ করেই উনি বলে উঠলেন,,

বারবার এভাবে তাকানোর কি আছে??আমায় তো নতুন দেখছো না(বিরক্তি নিয়ে)এভাবে তাকাবে না,,মাইন্ড ইট।।

এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি মাসে জিতে নিন নগদ টাকা এবং বই সামগ্রী উপহার।
শুধুমাত্র আপনার লেখা মানসম্মত গল্প/কবিতাগুলোই আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে। এবং সেই সাথে আপনাদের জন্য থাকছে আকর্ষণীয় পুরষ্কার।

গল্পপোকার এবারের আয়োজন
ধারাবাহিক গল্প প্রতিযোগিতা

◆লেখক ৬ জন পাবে ৫০০ টাকা করে মোট ৩০০০ টাকা
◆পাঠক ২ জন পাবে ৫০০ টাকা করে ১০০০ টাকা।

আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন: https://www.facebook.com/groups/golpopoka/?ref=share


এবার আমার রাগ লাগছে,,,আমি উনার দিকে ঘুরে বসে উনার দিকে ড্যাবড্যাব করে তাকিয়ে রইলাম,,এবার বুঝো মজা,,,?

কি ব্যাপার এভাবে ড্যাবড্যাব করে তাকিয়ে আছো কেনো??(ভ্রু কুঁচকে তাকিয়ে)

আমার বিরক্ত লাগছে,,সোজা হয়ে সামনের দিকে তাকাও,,(রাগী চোখে)

আজিব পাবলিক,,,আরে চোখ আমার,,ইচ্ছা আমার,,জামাইও আমার,,আপনার প্রবলেমটা কি মশাই??(ঠোঁট উল্টে)

এবার উনি আমার দিকে তীক্ষ্ণ দৃষ্টিতে তাকালেন,,,কিন্তু আমার তা নিয়ে বিন্দুমাত্র মাথাব্যাথা নেই,,আমি আগের মতোই উনার দিকে ড্যাবড্যাব করে তাকিয়ে আছি।।।আসলে বিষয়টা খুব উপভোগ করছি,,,কাউকে বিরক্ত করার মধ্যেও অন্য রকম মজা আছে,,যা আমি এই মুহূর্তে বেশ ভালোভাবে পাচ্ছি।।।উনি হঠাৎই গাড়ি থামিয়ে দিলেন,,,এবার আমি একটু ভড়কে গেলাম,,এইরে উনি আমাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে দিবেন না তো?? কিন্তু না,,,উনি আমাকে নামিয়ে দিলেন না,,,কিন্তু এর চেয়েও ভয়ঙ্কর কাজ করলেন,,,যা আমি কখনো আমার চিন্তাতেও আনি নি।।।উনি গাড়ি থামিয়েই আমার দিকে ঝুঁকে পড়লেন,,,আমি তো রীতিমতো কাঁপছি,,,কি করতে চলেছেন উনি?????এই মুহূর্তে আমার মাথায় একসাথে শতাধিক প্রশ্ন ঘুরে বেড়াচ্ছে,,,উনার এভাবে কাছে আসায়,, আমার হার্টবিট হাজার গুন স্পিডে ছুটছে,,,,উনি আমার ভাবনা -চিন্তা থামিয়ে দিয়ে আমার উড়নাটা টেনে নিজের হাতে নিয়ে নিলেন,,,,আমি “হা” হয়ে তাকিয়ে আছি।।।।আগের মতো অসভ্য আচরন শুরু করে দিয়েছেন উনি আমিই ঠিকই ছিলাম,,নীলামার ভূতই চেপেছে উনার ঘাড়ে,,,কেনো যে এমন অদ্ভুত দোয়া করেছিলাম,,এখন নিজেকেই ভুগতে হচ্ছে,,,আমি দুই হাত দিয়ে নিজেকে ঢাকার চেষ্টা করতে করতে বললাম,,,

ক,,,কি করছেন এসব??অসভ্যর মতো আচরন করছেন কেনো??আমার ওড়না দিন বলছি,,,(কাঁদো কাঁদো কন্ঠে)

আজিব,,,অসভ্যর কি আছে??হাত আমার,,ইচ্ছা আমার,,,বউ আমার আর বউয়ের ওড়নাটাও আমার,,,তোমার কি সমস্যা হচ্ছে বুঝলাম না।।।(শয়তানী হাসি দিয়ে)

উনি আমার ডোস টা আমাকেই দিয়ে দিলেন,,,,রাগে-দুঃখে নিজের চুল ছিঁড়তে ইচ্ছা করছে আমার,,,,কি দরকার ছিলো উনার সাথে লাগার??এখন হলো তো??আমি উনার দিকে করুন দৃষ্টিতে তাকিয়ে বললাম,,”উড়নাটা দিন না প্লিজ,,আর তাকাবো না আপনার দিকে প্রমিজ”।।।কিন্তু খাটাস বলে কথা,,এতো সহজে মানবে কেন?না মানার অধিকার তো তার আছে,,,

তাকাবে কি তাকাবে না,,সেটা তো তোমার ইচ্ছের উপর নির্ভর করছে,,,আর আমি উড়নাটা দিবো কিনা,,এটা আমার উপর নির্ভর করছে।।আর এই মুহূর্তে আমার মোটেও উড়নাটা দিতে ইচ্ছা করছে না,,,সো সরি,,,(বাঁকা হাসি দিয়ে)

উনার হাসি দেখে ইচ্ছে করছে,,,উনার গলা চেপে ধরি,,,কিন্তু কি আর করা??কথায় আছে না?হাতি কাদায় পড়লে পিঁপড়াও লাথি মারে,, হুহ।।।আমি উনার দিকে টলমল চোখে তাকিয়ে বললাম,,,প্লিজজজজজ।।।এবার উনার একটু দয়া হলো,,,,উনি বললেন,, উড়না দেবে কিন্তু একটা শর্ত আছে।।।আমিও বাধ্য হয়ে রাজি হয়ে গেলাম।।আর উনি শয়তানী হাসি দিয়ে বলে উঠলেন,,,
গুডডড।।।শর্তটা হলো,,এই এক সপ্তাহ,,, আমি যা বলবো।।তুমি তাই করবা,,,কি রাজি তো??

হুম রাজি।।আর কোনো উপায় রেখেছেন কি??(বিরবির করে)

ভেবে বলছো তে?

হুমম(মাথা নিচু করে)আমি আড়চোখে উনার দিকে তাকালাম,,,উনার শয়তানী হাসি দেখেই বুঝতে পারছি,,,আমার জীবন শেষ?,,,,

#চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here