গল্প_অতীত_কথা পর্ব -২

0
593

 

গল্প_অতীত_কথা পর্ব -২
#Momo_Nur

হঠাৎ একটা শব্দ শুনে ঘরে ঢুকলো ঘরে ঢুকে যা দেখলো তা দেখার জন্য সে একেবারেই প্রস্তুত ছিল না………………………

সে দেখতে পেলো জিতু অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে আছে। হঠাৎ করে এই ভাবে কি করে পরে গেলো কি হলো শুভ এগুলো ভাবতে ভাবতে দৌড়ে কাছে গিয়ে দেখে ওর হাত টা কাটা আর পাশে ফল কাটার একটা ছুরি পরে আছে ।ছুরি টা রুম এ ফল আর ঝুড়ি তে ছিল ।এর মধ্যেই সে হাত টা লক্ষ্য করে দেখলো যে হাত এর কাটা টা এতটা গভীর নয় ।তবে সে বেহুস হলো কি করে ।শুভ তাড়াতাড়ি করে ফার্স্ট এইড বক্স নিয়ে তাড়াতাড়ি করে জিতু কে ব্যান্ডেজ করে দিল ।ব্যান্ডেজ করে শুভ জিতু কে কুলে তুলে বিছানায় শুয়ে দিল । সে ও জিতুর পাশে বসে আছে আর ভাবছে মেয়ে টা কোনো এমন করছে আমাকে সহ্য না করার কারণ টা হয়ত বুজলাম কিন্তু নিজের ক্ষতি করে কি প্রমাণ করতে চাইলো ।

আগুলো ভাবতে ভাবতে সে আগের স্মৃতি গুলো মনে করতে লাগলো জিতু আগে একবার এমন টা করে ছিল ।আমি রাগ করে কথা বলা বন্ধ করে দিয়েছিলাম তখন রাতে হঠাৎ করে মাসাঞ্জার এ হাত এর একটা ছবিতে হাত কাটা দেখে আমার আরো রাগ হয় আর কষ্ট ও হয়েছিল কিন্তু তবুও আমি ওর সাথে কথা বলি নি জিদ এ জানি না ওকে হারানোর ভয় আমাকে এমন করে দিছিল ।আমি ওর সাথে অনেক খারাপ ব্যাবহার করতাম তবুও আমাকে জিতু শুধু ভালোবেসেই যেত কখনো উল্টে রাগ করে নি। ওর অনেক রাগ ছিল কিন্তু আমার কাছে অভিমান করার ও সুজক পেত না।তবুও সে আমাকে শুধু ভালোবেসে গেছে কিন্তু আজ কি হলো ।
এসব ভাবতে ভাবতে শুভ র চোখে যেনো ঘুম ভর করে আসছে সে জিতুর মাথার পাশে বসে ঘুমিয়ে গেলো।

রাত প্রায় শেষ জিতু তখন চোখ খুলে তাকালো সে দেখতে পেলো শুভ তার মাথার কাছে
বসেই ঘুমিয়ে পড়েছে ।তার মুখ টা কি মায়াবি লাগছে মনে হচ্ছে যেন তার কপালে একটা আদর দিয়ে দিই এর মধ্যই সে লক্ষ্য করলো তার হাত আর ব্যান্ডেজ আর দিকে ।হাত টা সে নিজের উপরে রাগ করেই কাটছে ।যে মানুষ টার জন্য একটা রাত ও না কষ্ট পেয়ে থাকে নি । যার সাথে একটু কথা বলার জন্য মন টা ছট্ফট্ করেছে ।আজ তাকে সে এই ভাবে বাসর রাত a অপমান করেছে নিজের থেকে দূরে থাকতে বলেছে তার এটা সহ্য হচ্ছিলো না তাই সে এমন করেছে ।আর সে অজ্ঞান হয়েছে হোয়ত সারা দিন না খাওয়ার জন্য ।শুভ র মুখ এর দিকে তাকিয়ে দেখলো যে মুখ টা মলিন মনে হতে সে ও সারাদিন কিছুই খায়নি ।

জিতু আস্তে করে শুভ কে বালিশে সুইয়ে দিল যেনো জেগে না উঠে আর মুখ আর দিকে তাকিয়ে বলতে থাকলো ভালোবাসি তোমাকে বড্ড ভালোবাসি ।তোমাকে ছাড়া আমি থাকতে পারবো না ।আমি আজ এমন করলাম শুধু আমার বুকে জমে থাকা অভিমান গুলো তোমাকে বোঝাতে।কিছু খন বাদেই ফজর আর আযান দিল জিতু আস্তে করে বিছানা থেকে উঠে নামাজ পড়তে চলে গেলো ।নামাজ পড়ে আর বিছানায় আসলো না সোফায় বসে রইলো ।ঘুম ঘুম লাগছে তার এর মধ্যেই সকাল সাড়ে আটটা বেজে গেলো বড় ভাবী এসে দরজায় নক করলো আমি গিয়ে দরজা খুললাম(জিতু) ।

শব্দ শুনা মাত্র শুভ জেগে উঠেছে। ভাবী বলে উঠলো এখনও বুজি ঘুম শেষ হয় নি ।মুখ চেপে হাসছে ।ভাবী হঠাৎ করে আমার হাত আর দিকে তাকিয়ে ওমা একি তুমার হাত এ ব্যান্ডেজ কেনো? কি হয়ছে ? আমি যা বললাম সেটা শুনে শুভ একদম হা হয়ে তাকায়া আছে আমি বললাম যে…………..
………………
চলবে……….

#গল্প_অতীত_কথা
পর্ব -২
#Momo_Nur

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here