কে কোথায় যায়? পর্ব ১৬

0
362

কে কোথায় যায়? পর্ব ১৬
তামিম সরু গলায় বললো,
——-‘জ্বর কিছু কমছে দোস্ত?’
শুভা তামিমের কলার চেপে ধরলো।নির্বিকার গলায় বললো,
——‘প্রচুর জ্বর রে!একটু উষ্ণতার ছোয়া দে,দে না প্লিজ!’
এমন আকস্মিক কথাগুলোর জন্য তামিম মোটেও প্রস্তুত ছিল না।কাপা কাপা গলায় বললো,
——–‘তু-তুই কোন অন্যায়ের শাস্তি আমায় দিচ্ছিস দোস্ত?মাফ কইরা দে!’
শুভা তামিমের শার্টের কলারটা আরো জোরে টেনে নিলো।তামিমের মাথাও অনেকটা ঝোকে গেছে!সে দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে বললো,
——‘এবার কাইন্দা দিমু শুভা।ছাইড়া দে না আমায়!আমি সহজ সরল ছেলে!’
শুভা হাসলো।ভেংচি কেটে বললো,
——-‘আরে ঢং করতাছি!তোর উষ্ণতার ছোয়া আমার লাগবে নাকি?হিহিহি!’
তামিম হাফ ছেড়ে বাচলো।মন খারাপের অতল গভীর কূপ থেকে দুটা শব্দ প্রতিধ্বনির মত বেরিয়ে এলো তামিমের গলায় থেকে,
——-‘নাটক করতেছিলি?ধ্যাত!’
কিঞ্চিৎ আড়ষ্ট গলায় শুভা বলল,
——–‘ভুল করেছি নাকি?এসব তো ফ্রেন্ডশিপে হয়।’
তামিম চোখ দুটো মেঝেত আবদ্ধ করে বললো,
——‘এমন না করলেও পারতি!’
শুভা বিটকেল মার্কা হাসি হাসলো।উষ্কখুস্ক চুল,এলোমেলো মুখে আর সে হাসি লক্ষ করলো না।তামিম একটু নুইয়ে গেল!মেয়েটা ঠিক এমন কেন?
তামিম শান্ত ধারালো কন্ঠে বললো,
——‘তোরে যদি আমি আমার করে নেই তো?তো কি করবি?বাচাতে পারবি এই নিজেকে?’
শুভা এমন প্রশ্নের বেক্কল বনে গেল।আত্মভাব প্রবল রেখেই বললো,
——-‘কি করবো আবার?থ্রীপল নাইন কল করে বলবো তুই আমাকে কিডন্যাপ করেছিস।’
তামিম বিরক্তমুখে বললো,
——-‘এই এইটা করবি?হাহাহা!’
শুভা ভেংচি কাটলো!তামিম শুভার মুখের কাছে এসে বললো,
——-‘তুই কি আমার হবি রে?’
প্রশ্নটা যেন কেমন!এমন কেমন?তামিমের এমন কন্ঠ শুনে শুভার মনটা কেমন হয়ে যায়।ও বুঝতে পারে ওর বুকের ভেতরটায় জখম হয়েছে।ক্ষত থেকে রক্ত পড়ছে!আশ্চর্য,সম্পর্ক­ কী এমন?তামিম না হয়ে আর কেউ হলে ও কি এমন করতো?তামিম শুভার হাত ধরে বললো,
——–‘তুই কি আমাকে ছেড়ে চলে যাবি?’
——-‘না,যাব না।’
তামিম নির্বিকার গলায় বললো,
——‘হ্যা,যাস না।’
শুভা তামিমের দিকে তাকিয়ে বললো,
—–‘কেন?গেলে কি হবে?’
তামিম মাথা নিচু করে বললো,
——-‘খুব খারাপ লাগবে রে পাগলী!খুউউব বেশিই!’
শুভা ভ্রু কুচকিয়ে বললো,
——‘খারাপ লাগবে কেন?’
তামিমের কন্ঠস্বর এক মুহুর্তে যেন বদলে যায়।ওর মনে হয় এই কন্ঠস্বর ওর কাছে নতুন আবিষ্কার!
শুভা তামিমের গালে হাত দিয়ে বললো,
——‘যাবো না কখনো!খারাপ লাগতে দিবোই না।’
শুভা বিছানা থেকে উঠলো।নিজের ড্রয়ার থেকে একটা আম আনলো!কাচা আম!বেশ টক হবে।
শুভা সুর নিচু করে বললো,
——-‘সবাই ঘুমাই গেছে তো?’
তামিম ঘাড় নাড়িয়া বললো,
——‘হুম।’
শুভা সর্তকতামিশ্রিত গলায় বললো,
——-‘রান্নাঘর হতে একটু মরিচ আর লবণ আনতে পারবি?কাচা আম দিয়ে খেতে সে কী মজা!’
তামিম আহ্লাদের সহিত বলে উঠলো,
——-‘কোথা থেকে কিনেছিস রে?আমারে একটু দিবি?’
শুভা ভেংচি কেটে বললো,
——‘তোর জন্যই তো আনলাম আজ বাজার থেকে!কাচা আমে যা দাম!’
তামিম নিরবতার সহিত রান্নাঘর থেকে লবণ ও গুড়ো মরিচ নিয়ে এলো।নয়তো মেয়েটা তাকে এলটু টুনকোও খেতে দিতো না!লবণ ও মরিচ এনে রাখলো তামিম।শুভা একটা আস্ত আম তামিমের হাতে দিল!তামিম দেখলো শুভার হাতে দুটো আম।সে নিম্নসুরে বললো,
——-‘তুই অতগুলা খাবি দোস্ত?’
শুভা অবাক হয়ে বললো,
——-‘অতগুলা বুঝি হলো?এত কষ্ট করে আনলাম আমি।এটা আমার টেক্স!’
তামিম সরু গলায় বললো,
——-‘আরো একটু দে না!’
নিঃসংকোচ আবেদন।সংকোচ ছিল তবে প্রাণপণ চেষ্টায় অতিরিক্ত জয় করে ফেলেছে!
শুভা রেগে বললো,
——-‘এত খাদক তুই?’
চমকে লাল হলো তামিম।অনাবশ্যক জোর দিয়ে বলল,
——–‘হ্যাঁ,আমি খাদক।আম খাদক!’
চলবে…..
©ইভা আহমেদ চৌধুরী
এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার।
শুধুমাত্র আপনার লেখা মানসম্মত গল্প/কবিতাগুলোই আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে। এবং সেই সাথে আপনাদের জন্য থাকছে আকর্ষণীয় পুরষ্কার।
▶ লেখকদের জন্য পুরষ্কার-৪০০৳ থেকে ৫০০৳ মূল্যের একটি বই
▶ পাঠকদের জন্য পুরস্কার -২০০৳ থেকে ৩০০৳ মূল্যের একটি বই
আমাদের গল্পপোকা ফেসবুক গ্রুপের লিংক:
https://www.facebook.com/groups/golpopoka/

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here