খাট নিয়ে বিরম্বনা শেষ পর্ব

0
2230

খাটনিয়েবিরম্বনা শেষ পর্ব

কুমু ওয়াশ রুমে যতেই আমি কানে হেড ফোন লাগিয়ে আমার পছেন্দর গান টা শুনতে শুরু করলাম।

গানটা এক এক করে চারবার শুনলাম।কিন্তু কুমু তো এখনো বের হচ্ছে না।এতক্ষণ তো লাগার কথা না,,,,

বাথরুমের দরজায় গিয়ে নক করতেই,,,

ভেতর থেকে কুমু বলল,

–দুই মিনিট, আসতেছি।

কুমু আসার পর কুমুকে জিজ্ঞাস করলাম আগের বার এমন করলেন কেন।

–কেমন করেছি

–বাথরুমে গিয়েই দৌড়ে এসে এক লাফে খাটে উঠলেন কেন।

–তখন তো আমি ভয় পেয়েছিলাম।

–এখানে তো কেউ ছিল না তাহলে কাকে দেখে ভয় পেলেন,,

–ছিল তো।

–কে ?

–আরশোলা,,,

–কিহ্

–আমি আরশোলা কে খুব ভয় পাই।

–আরশোলা কে ভয় পান ভালো কথা,তাই বলে লাফ দিয়ে খাট ভেঙে ফেলবেন।

–আমি কি ইচ্ছা করে লাফ দিছি নাকি।

–লাফ দেওয়ার আগে একবার চিন্তা করে তারপর লাফ দিতেন।

–কি চিন্তা করব ?

–আমি যে লাফ দিয়ে খাটে উঠব আমার ভার কি এই খাট টা সমলাতে পারবে।

–এত ভাবাভাবির সময় পাইনি তখন।আর আপনার এই খাটের তো আত্বা নেই।আজ না ভাঙলেও দুদিন পর এমনেই ভেঙে যেত।

–হইছে এখন ঘুমান।

–নিচে ঘুমাবো।

–কিছু করার নেই আজকে নিচেই ঘুমাতে হবে।

খাটের জন্য আমার খুব কষ্ট হচ্ছে।কত বছর যে এই খাটে ঘুমিয়েছি তার কোন হিসাব নেই।খাট টার প্রতি এক ধরনের মায়া জন্মে গেছে।

খাটের কথা ভাবতে ভাবতে কখন যানি ঘুমিয়ে গেছি,,,

সকালে ঘুম থেকে উঠার পরে যার সাথে দেখা হচ্ছে সেই আমাকে দেখে কেমন যানি মুচকি মুচকি হাঁসছে।

এই হাঁসির কোন কারণ খুঁজে পাচ্ছি না।

যাই হোক বাড়িতে আর বেশিক্ষণ থাকেনি।চলে গেলাম বন্ধুদের কাছে।সেখানে যেতেই সবাই আমাকে অভিনন্দন জানাল।

বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেওয়ার এক পযায়ে রিপন বলে উঠল ভাই তুই তো লিজেন্ড।

–কেন কি করেছি আমি।

–কাল রাতে তুই নাকি ক্রিকেট খেলে খাট ভেঙে ফেলছিস।

রিপন এই কথা বলতেই সবাই হো হো করে হেঁসে উঠল,,,

এখন সবাই আমাকে নিয়ে হাঁসাহাঁসি করছে।

দূর,,, এদের কথাবার্তা শুনে মেজাজটাই গরম হয়ে গেল।এরা আমার বন্ধু নাকি শক্রু এটা নিয়ে আমার ডাউট আছে।

রাতে বাড়ি ফিরে রুমে ডুকতেই চোখে পরল একটা নতুন খাট।কুমুর দিকে তাকিয়ে দেখি ওকে কেমন যানি খুশি খুশি লাগছে,,,

তাই কুমুকে জিগ্যেস করলাম কি ব্যাপার আপনাকে এত খুশি খুশি লাগছে কেন।

–আমাদের নতুন খাট দেখে।

–খাট দেখে এত খুশি হওয়ার কি আছে।

–আজ থেকে আর নিচে শুতে হবে না।

–ওহ্ এই ব্যাপার,,

কিন্তু আমাদের রুমে নতুন খাট আসলো কোথা থেকে ?

–আমাদের কাল রাতের খাট ভাঙার কথা শুনে বাবা আজকে নতুন খাট পাঠিয়ে দিছে,,,

–আপনি কাল রাতের কথা আপনার বাবাকে বলে দিছেন ?

–আমি বাবাকে এই ব্যাপারে কিছু বলেনি।বাবা কার থেকে যেন শুনল,,,

অবশেষে এই খবর আমার শুশুর বাড়ি পযন্ত চলে গেল,,,আমার আর মান সম্মান বলে কিছু রইল না,,,

–কোথায় যাচ্ছেন কুমু ?

–ওয়াশ রুমে।

–দাড়ান,,,দাড়ান,,,

–কেন ?

–আমি আগে ভেতর থেকে দেখে আসি।

–কি দেখবেন ?

–ভেতরে কোন আরশোলা আছে কিনা

–আজকে আরশোলা থাকলেও কোন সমস্যা নেই।আজকে নতুন খাট লাফ দিলেও ভাঙবে না।

–আমি আর কোন ধরনের রিস্ক নিয়ে চাইনা,,,

একবার খাট ভেঙে যে বিরম্বনায় আমি পরেছি।সে রকম বিরম্বনায় আমি আর পরতে চাইনা।

-(সমাপ্ত)-

লেখা~ Tuhin Ahamed

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে