Crush যখন বর?Season_2Part_22/23/24

0
2867

Writer-Afnan Lara
Crush যখন বর?Season_2Part_22/23/24
তনু-উহ মাগো,আমার মাথা
শিশির-একদম ঠিক হয়সে, আমারে কাতুকুতু দেওয়ার শখ না??
শিশির তনুকে কাতুকুতু দিতে লাগলো,
তনু-এ্যা এ্যা ছাড়ুন,,আম্মুউউউউউউ
শিশির ইচ্ছামত কাতুকুতু দিতেছে, তনু হাসতেছে,শিশির থেমে গেলো,তনু খিলখিল করে হাসতেছে,শিশির অবাক চোখে তাকিয়ে আছে,,
তনু হাসি থামিয়ে নিজেও তাকিয়ে রইলো,,
শিশির তনুর মাথার নিচে হাত দিয়ে তনুকে কাছে আনলো,তনু জোরে জোরে শ্বাস নিতেছে,,
শিশির চোখ বন্ধ করলো,ঘ্রান নিলো তনুর,,চোখ খুলে তাকালো তনুর দিকে,,শয়তানি হাসি দিয়ে তনুর বুকের দিকে তাকালো,
তনু চোখ বড়বড় করে তাকালো,
তনু-ছিঃ,লুচু,,
তনু ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে উঠে গিয়ে ওড়না নিতে গেলো শিশির ওড়না দিলো না, ধরে রাখলো,
তনু-লুচু ছেলে,আমার ওড়না ছাড়েন
শিশির-নাহ
তনু-দিতে হবে না,
তনু আলমারি থেকে আরেকটা ওড়না নিয়ে পরলো,
শিশির ওড়নাটা গলায় পেঁচিয়ে খাটে বসলো,,
কলিং বেলের আওয়াজ আসলো,তনু গিয়ে দরজা খুললো,তৃনা আপু
তৃনা-তনু,কেমন আছিস
তনু-ভালো,
তৃনা-শিশির কই??
শিশির আসলো,কিরে বল,কেমন আছিস??
তৃনা-ভালো,শুন আমি আর তোর দুলাভাই সিলেট যাবো ঘুরতে,,তোরা যাবি??
মা-হ্যাঁ নিয়ে যা,,বিয়ের পর কোথাও ঘুরতে যায়নি
শিশির-?আমার অফিস
মা-ছুটি নিবি,
তৃনা-তনু সব গুছিয়ে নে,পরশু যাবো,,শিশির তোর দুলাভাই টিকেট কেটে নিবে,,তোরা রেডি হয়ে station আসিস,,আমরা একসাথে বাসে উঠবো,,
শিশির-ঠিক আছে,,
শিশির অফিসে কল দিলো,,
তনু সব গুছাতে লাগলো,,,শিশির হাতে তনুর ওড়না গিট্টু দিয়ে রাখসে,তনু হামাগুড়ি দিয়ে শিশিরের কাছে গেলো, নিচে বসে শিশির হাত থেকে গিট্টু খুলতেছে,শিশির আরেকদিকে তাকিয়ে ফোনে কথা বলতেছে,,
তনু-আর একটু আর একটু,,
শিশির নিচের দিকে তাকিয়ে দেখলো তনু মুখ ব্যাকা করে গিট্টু খুলতেছে,
শিশির নিচে বসে তনুকে হাত দিলো,
শিশির-হুম খুলো,
তনু তো গাছ থেকে পরলো,চুপচাপ খুলে দৌড় দেওয়া ধরলো শিশির হাত ধরে ফেললো,,
শিশির-তোমার নাহ একটা শাড়ী আছে পিংক কালারের
তনু-কোনটা?
শিশির-ঐ যে পেটের দিকে নেট যে
তনু-?আমি তো ওটা পরে কখনও বের হয়নি,,আপনি জানলেন কিভাবে?
শিশির-আমি একদিন দেখসিলাম ছাদে উঠে পিক তুলতেছিলা,সেই শাড়ীটাও নাও,
তনু-কেন??ওখানে এত মানুষের ভিতর পরবো??
শিশির-না,আমার সামনে পরবা,আমি দেখবো,
তনু-ইহ?শখ কত
শিশির-না নিলে আসার সময় তোমাকে মাঝপথে রেখে আসবো,,
তনু-হুহ
তনু শাড়ীটাও নিলো,
শিশির রুমে আসলো,,তনু যে বারান্দায় শিশির জানতো না,,শিশির দরজা লাগিয়ে আলমারি থেকে Shirt pant নিয়ে change করতে লাগলো,
তনু বারান্দায় গাছে পানি দিয়ে বের হয়েই শিশিরকে দেখে চিৎকার দিলো,
শিশির তাড়াতাড়ি করে shirt নিয়ে নিলো,
তনু-এসব কি?বাথরুমে Change করতে পারেন না
শিশির-আমি ভাবসি তুমি রুমে নেই,,
তনু-আমি গাছে পানি দিতেছিলাম,
যাই হোক সরুন,আমি বের হবো,
তনু চলে যাওয়া ধরলো শিশির হাত দিয়ে আটকালো,,
তনু-???
টান দিয়ে গা থেকে ওড়না নিয়ে নিলো,
শিশির-যাও?
তনু-আপনি আমার ওড়না নিয়ে এমন করেন কেন?শয়তান,Stupid
শিশির-হুহ,শিশির shirt পরে ওড়না পেঁচিয়ে খাটে গিয়ে বসলো,,
তনু আলমারি খুঁজলো ওড়না নাই সব প্যাকিং করে ফেলেছে,শিশিরের দিকে তাকালো,,
শিশির-???
তনু -Pls আমার ওড়না টা দেন,
শিশির-দিমু না,সাহস থাকলে আমার গলা থেকে নিয়ে যাও,কিচ্ছু করবো না,
তনু আস্তে আস্তে শিশিরের কাছে গেলো,,শিশিরের গলায় হাত দিলো,
তনু-(মনডা চায় গলা টিপে মেরে দিই)?
শিশির-সাহস কত আমাকে মারবে, আমি মেরে দিব,
তনু ওড়নায় হাত দিলো,,শিশিরের লুকিং দেখে তনুর গলা শুকায় গেসে,কি হলো এখনও কিছু করতেছে না,??
তনু ওড়না খু্লে হাতে নিবে শিশির টান দিয়ে বিছানায় নিয়ে এলো তনুকে,,,ওড়না দিয়ে টেনে তনুকে নিজের কাছে আনলো,
তনু-কিস করার হলে করেন নাহলে হুদাই এমন পিরিত দেখাইয়েন নাহ,
শিশির-কিহহহহ?
তনু-ঠিকই তো বললাম,ডেইলি আমারে কাছে টেনে দূরে সরে যান,
শিশির-তুমি চাও আমি তোমাকে কিস করি??
তনু-হ্যাঁ করলে তো সমস্যা নাই,,
শিশির-এই বিচ্ছিরি ঠোঁটে?পাগল নাকি তুমি?রুনারে করসিলাম,সেই লাগসে,???
তনু-কি বললেন?
শিশির-কি?রুনারে কিস করসি আমি,
তনু-ওহ,
তনু শিশিরের হাত ছাড়িয়ে ওড়না নিয়ে রুম থেকে চলে গেলো,
শিশির-?রুনা কত বার করতে আসছে,আমি সরাই দিসি,,কিস তো তোমারেই করবো,ওয়েট করো,,
চলবে♥
“এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার।
আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এখানে ক্লিক করুন


Writer-Afnan Lara
Crush যখন বর?
#Season_2
#Part_23
সন্ধ্যা হয়ে গেসে,শিশির রুম থেকে বের হলো,
মুনা, মুনা
মুনা-কি
শিশির-তনু কই?
মুনা-জানি না তো,কেন বাসায় নাই?
শিশির Shirt নিয়ে বেরিয়ে গেলো,,তনুদের বাসায় গেলো,
মা-তনু তো ছাদে মনে হয়,
শিশির-এই সন্ধ্যায় ছাদে গেলো কেন, শিশির ছাদে গেলো,
তনু এক কোনে দাঁড়িয়ে আকাশের দিকে তাকিয়ে আছে,
শিশির গিয়ে পাশে দাঁড়ালো,তনু শিশিরকে দেখে চলে যেতে নিলো শিশির আগের মতো হাত ধরে ফেললো,
তনু-কি?
শিশির-আমাকে না বলে আসছো কেন?আর এত সন্ধ্যায় ছাদে আসছো কেন?
তনু-আমার ইচ্ছা,তনু হাত ছাড়িয়ে চলে গেলো,
শিশির সামনে এসে দাঁড়ালো,
শিশির-আমি না বলা পর্যন্ত কোথাও যাবা না,
তনু দূরে গিয়ে দাঁড়ালো,
শিশির-সরি
তনু কিছু বললো না,
শিশির পকেট থেকে চকলেট এনে ধরলো,তনু নিলো না,
শিশির-ঠিক আছে আমি খাবো তাহলে,
তনু তাও কিছু বললো না,
শিশির-??ঠিক আছে, মানসি মিথ্যা বলসি,আমি রুনারে কিস করি নাই,
তনু শিশিরের দিকে তাকালো,
শিশির-মুনার কসম,
তনু চলে যাওয়া ধরলো শিশির ওড়না ধরে ফেললো,নাও চকলেট,আমার এখন খিধে নেই,,
তনু মুচকি হেসে চকলেট নিয়ে চলে গেলো,,
শিশির তনুকে ধরে বাসায় নিয়ে আসলো, তনু চকলেট খেতে লাগলো বাচ্চাদের মতন,শিশির দূরে দাঁড়িয়ে হাসতেছে,,পাগলি♥
পরেরদিন সকাল সকাল শিশির আর তনু রেডি হয়ে বের হলো,,মা বাবাকে সালাম দিয়ে,,
তনু হালকা বেগুনি কালারের জামা পরেছে,,বাসে উঠে বসলো,,
তৃনা-শিশির ভাই গান ধর,
শিশির-?বাসে?
তৃনা-হ
শিশির তনুর দিকে তাকিয়ে চোখ মারলো,,
Tu mile♥♥ dil khile
Aur jeene ko kya chaahiye
Na ho tu udaas, tere paas paas
Main rahoonga zindagi bhar
Saare sansaar ka pyaar maine tujhi mein paaya Tu mile, dil khile ♥
Aur jeene ko kya chaahiye
Haan tu mile, dil khile Aur jeene ko kya chaahiye
Chanda tujhe, dekhne ko nikla karta hai
Aaina bhi, oh deedaar ko tarsa karta ha
iItni haseen koi nahin
Husn dono jahan ka ek tujh mein simatke aaya
Tu mile♥♥ dil khile
Aur jeene ko kya chaahiye
শিশির তনুর পিঠের পিছনে হাত দিয়ে ধরলো,,
তনু চোখ বড়বড় করে তাকিয়ে আছে,
তৃনা-বাহ বাহ,তনু তুই তো ধন্য?
তনু-???হুদা,তোমার ভাই আমারে ভালোবাসে না
তৃনা-কিরে?
শিশির-?হ বাসি না
তৃনা-এখনও ঠিক হস নাই তোরা??
তনু-হুহ
শিশির-হুহ
তৃনার বর বাস থামার পর বাইরে থেকে আইসক্রিম আনলো,,শিশির আর তনুকেও দিলো,
শিশির হা করে খাইতে গেলো ঠাস করে নিচে পড়ে গেলো,
তনু-হাহাহাহা
শিশির-???
শিশির টান দিয়ে তনুর থেকে আইসক্রিম নিয়ে নিলো,
তনু-এ্যা এ্যা আমার এটা
শিশির এক কামড় দিয়ে তনুকে দিলো,
তনু-আমি এঁটো এটা খাবো?
শিশির-কি হয়সে?
তনু ভেঁংচি দিয়ে খেতে লাগলো,শিশির আবার নিতে চাইলো তনু দিলো না,দুজনে টানাটানি করতে লাগলো,,
তনু-আমার এটা?
শিশির -আমার?
আইসক্রিম কাঠি থেকে পড়ে তনুর গলায় পড়লো,
তনু-আউ,মাগো
শিশির দাঁত বের করে হেসে তনুকে চেপে ধরে গলায় কামড় দিয়ে আইসক্রিম নিয়ে খেয়ে নিলো,,
তনু চিৎকার দিতে পারবে না,সামনের সিটে তৃনা আর তৃনার বর শুভ,
শিশির চুষে পুরাটা খেয়ে তনুকে ছাড়লো,তনু চোখ বন্ধ করে শিশিরের হাত ধরে আছে,,
শিশির তনুর দিকে তাকিয়ে মুচকি হাসলো,
শিশির-খাওয়া শেষ,
তনু-?
শিশির-হিহি
তনু -খবিশ
বাতাসে তনুর চুল উড়তেছে,তনু বাইরের দিকে তাকিয়ে আছে,,
শিশির-বিধাতা আমাকে তোমার জন্য গড়েছে আপন হাতে,জীবনে মরনে থাকবো তোমার সাথে♥
তনু শিশিরের দিকে তাকালো,কিছু বললেন??
শিশির-ঐ আসলে একটা পোস্টারে গানের লাইনটা লিখা ছিলো,
তনু-ওহ,
তনু-যদি না কখনও পুরিয়ে যাবে না আমার ভালোবাসা,,
শিশির-???
তনু-আরেকটা পোস্টারে লিখা ছিলো,
শিশির-ওহ
তৃনা-তনু শিশির দুজনে পারলে Full গান গা,আর স্বীকার কর যে ইচ্ছা করেই গান গেয়েছোস
শিশির আর তনু থ হয়ে গেলো,
শিশির বসে বসে ফোন দেখতে লাগলো,,তনু উঁকি মেরে মেরে দেখতেছে,,
শিশির হাতে ফোন দিলো,নাও দেখো,
তনু তো খুশিতে যেন আকাশের চাঁদ পেয়েছে,,গ্যালারিতে গেলো,পাস চাইলো,গ্যালারি তেও পাস দিয়ে রাখে কেউ??
শিশির-হাহাহা,দাও দেখতে হবে না,,
(সব তোমার ছবি,,চাই না তুমি জানো)
তনু ভেঁংচি দিলো,শিশির তনুর মুখ টিপে ধরলো,
শিশির-কি?এত ভেঁংচি মারো কেন??
তনু-খুশিতে
শিশির-তাই নাকি?এত খুশি??আর একবার ভেঁংচি দিলে খবর আছে,
তনু-কি করবেন??
শিশির-তখনই দেখবা,
তনু-না জানি আবার বাস থেকে নামায় দেয়,,
তনু আর ভেঁংচি দিলো না,
রাতে♥♥♥♥
তৃনা-তনু,এই তনু
তনু চোখ খুললো,চোখ বড়বড় করে তাকিয়ে দেখলো শিশিরের বুকে তনু,শিশির হাসতেছে মিটমিট করে,
তনু সরে গেলো,
তৃনা-এত ঘুমাস কেমনে??তার উপর আমার ভাইটারে জোঁকের মত ধরে,,শিশির তো নড়তেও পারে নাই এমনভাবে ধরছোস
তনু-সরি,আমি আসলে??
শিশির-হয়সে ম্যাডাম উঠেন,,আমরা সিলেট এসে গেসি,
তনু-ও, কখন চোখ লেগে গেসিলো,,বুঝিনি,,
ওরা বাস থেকে নামলো,, রিসোর্টে আসলো♥
তৃনা-বাই,কাল দেখা হবে,টাটা
তনু-বাই,
শিশির রুমে এসে খাটে ধপাস করে শুয়ে পরলো,এই মাইয়া আমারে বাসে একটু ঘুমাতেও দেয় নি,নিজে শান্তিতে ঘুমায়সে,,আসো পা টিপো,হাত টিপো,তোমাকে এক হাত দিয়ে ধরে রাখসিলাম আমি,নইলে গাড়ীর ধাক্কার সাথে গিয়ে জানালায় বারি খাইতেন?
তনু-???
চলবে♥

“এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার।
আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এখানে ক্লিক করুন



Writer-Afnan Lara
Crush যখন বর?
#Season_2
#Part_24
তনু জামা নিয়ে গিয়ে fresh হতে গিয়ে চিল্লাই চলে আসলো,
শিশির-কি হয়সে??
তনু-গ্লাসের বাথরুম সব তো দেখা যাইতেছে,,
শিশির-হাহা,তো কি হয়সে,
তনু-কি হয়সে মানে??
তনু গিয়ে দাঁড়ালো,লম্বাতে গলার উপর পর্যন্ত দেখা যাবে,আর নিচের গুলা ঝাপসা,,
তনু -ঐদিকে তাকান,
শিশির বারান্দায় চলে গেলো
তনু change করতে লাগলো,,
শিশিরের কল আসলো,ফোন নেওয়ার জন্য রুমে এসে চোখ চলে গেলো বাথরুমের দিকে,তনুর গা খালি,,পিঠ দেখা যাচ্ছে,,তনু জামা টানতেছে,,চুল বারবার সরিয়ে দিচ্ছে,শিশির হা করে তাকিয়ে আছে,,ফোনটা আবার আসায় শিশিরের হুস আসলো,,
শিশির ফোন নিয়ে বারান্দায় চলে গেলো,,তনু বের হলো,,ফোন নিয়ে বসতেই শিশির এসে পাশে বসলো,নাও পা টিপে দাও,
তনু ভেংচি দিয়ে ফেললো ভুলে,
মুখে হাত দিয়ে শিশিরের দিকে তাকালো,এরপর দৌড় দিলো,শিশির ও পিছন পিছন দৌড় দিলো,তনু বারান্দায় গিয়ে দাঁড়িয়ে গেলো
শিশির-আজ তোমার খবর আছে
তনু-সরি ভুলে দিসিলাম,
শিশির আসতেছে,,
তনু আর যেতে পারবে না,,গ্রিল ও নেই,,শিশির কাছে এসে হাসতেছে,,পিঠে হাত দিয়ে কাছে নিয়ে এলো,,
শিশির হাত দিয়ে তনুর চোখ ঢেকে ফেললো,,আরেক হাত দিয়ে তনুর একটা হাত চেপে ধরে তনুর ঠোঁটে কামড় দিলো,,আস্তে তবে বেশি আস্তে না,,অনেকটা জোরেই,তনু আহ করে উঠলো,শিশির মুচকি হেসে চুমু দিলো,,তনু কিছুটা অপ্রস্তুত হয়ে শিশিরকে সরানোর চেষ্টা করলো কিন্তু শিশির আরও ঝাঁপটে ধরলো,,তনুকে নিয়ে দেওয়ালের সাথে মিশিয়ে ফেললো,,তনুর দুহাত শক্ত করে ধরে কিস করে যাচ্ছে,তনু মোটেও প্রস্তুত ছিলো না,,তনু শিশিরের দিকে তাকিয়ে আছে,তনুর চোখের চাহনি অবাক,
শিশিরের চোখের চাহনি দুষ্টুমির,শিশির মুচকি হেসে জোরেসোরে কামড় বসিয়ে দিলো,তনু ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিলো,শয়তান,কুত্তা
শিশির-হাহাহা,
তনু মুখ মুছতে মুছতে চলে গেলো,শিশির হাসতেছে,,
শিশির-তা কেমন লাগলো?
তনু-???ছিঃ আপনি অনেক খারাপ
শিশির-জানি,
তনু কম্বল টেনে শুয়ে পরলো,,শিশির টেনে উঠিয়ে বসালো
তনু-কি???
শিশির-কিছু খাও নি যে মনে আছে??
তনু-খিধে নেই
শিশির-আমার তো আছে,,পাউরুটি জেলি আছে,বানিয়ে দাও,
তনু উঠে বানিয়ে দিলো,
শিশির-নাও এটা তুমি খাও
তনু-খিধে নেই,
শিশির টান দিয়ে এনে মুখ টিপে খাইয়ে দিলো,,তনু চিবচ্ছে,,শিশির তাকিয়ে আছে,,
তনু-আমার বিচ্ছিরি ঠোঁটে কিস করলেন যে?
শিশির-তুমি চাইসিলা তাই করসি,
তনু-????
তনু কম্বল টান দিলো,,শিশির ও টান দিলো,দুজনে টানাটানি করতে লাগলো,,ঠাস,ঠাস,দুজনে খাটের নিচে,
শিশির কম্বল নিয়ে বারান্দায় চলে গেলে,
তনু-এ্যা এ্যা আমারে কম্বল দেয় না???
তনু গুটিশুটি মেরে ঘুমিয়ে গেলো খাটে,
শিশির উঁকি মেরে দেখলো তনু ঘুমিয়ে গেসে,কম্বল নিয়ে এসে তনুকে জড়িয়ে ধরে শুয়ে পরলো,,
সকালে♥♥
তনু চোখ খুলে দেখলো দুজন দুজনকে জড়িয়ে ধরে শুয়ে আছে,শিশিরের নাক তনুর কপালে,,তনু একদম শিশিরের গায়ের সাথে লেগে আছে,তনু সরে গেলো,শিশির জেগে গেলো,
তনু-?????
শিশির-তুমি রাতে টেনে কম্বল নিয়ে আসছিলা,,তাই আমিও আসলাম,,?
তনু-কই আমার তো মনে নেই
শিশির-ছোট মাথায় এতকিছু থাকবে না,
তনু-হুহ
তনু উঠে জামা নিলো,তারপর বাথরুমে গেলো,,শিশির উঠে নিজের জামা খুঁজে দাঁড়িয়ে রইলো,,তনু গোসল করতেছে,
শিশির বুঝলো সে এখন তাকালে তনুকে দেখতে পাবে,নিজেকে Control করে আরেকদিকে তাকিয়ে রইলো,তাও অশান্ত মনের প্ররচলনায় চোখ বারবার সেদিকে তাকায়,শিশির তাকালো,তনুর গা ভিজা সাবান দিতেছে,শিশির হাত থেকে জামা ফেলে দিলো,,আস্তে আস্তে বাথরুমের দিকে এগোতে লাগলো,,
তনুর কেমন জানি লাগলো,,পিছনে তাকিয়ে দেখলো বাইরে শিশিরকে দেখা যাচ্ছে,তনু টাওয়েল নিয়ে গা ঢাকলো,,
শিশির দরজা নক করলো,,
তনু-কি চাই??
শিশির-আআআআররর কতক্ষন?
তনু-আর একটু,,
শিশির চোখ বন্ধ করে সরে গেলো,বারান্দায় চলে গেলো,,বোতল এনে মুখে পানি দিলো,
তনু বের হলো,,শিশির পিছন ফিরে তাকালো,তনু শাড়ী পরেছে,,কমলা কালার,,পুরা গা ভিজা,না মুছেই পরেছে মনে হয়,,চুল মুছতে মুছতে আয়নায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে,,শিশির এগিয়ে গেলো,তনুর কাছে গেলো,
তনু-কি হয়সে??
শিশির-কিছু নাহ,শিশির চলে গেলো fresh হতে,,
তনু আর শিশির বের হলো,,তৃনা আর শুভ আসলো,৪জন হোটেলে গেলো খেতে,,
শিশির চুপচাপ,,
তৃনা-কিরে কি হয়সে তোর??
শিশির-কই??
তৃনা-কেমন জানি চুপচাপ
শিশির-ওহ তাই নাকি,তনুর হাত ধরে চিমটি দিলো,
তনু -আহহহ,শয়তান,নাইজেরিয়া উগান্ডা ?
শিশির-তুমি
তনু -আপনি
শিশিরহ-তুমি
তৃনা-এই আবার শুরু হলো,চুপ!
খাওয়া শেষে,,
শিশির-চল চা বাগান দেখতে যাবো,তারপর কমলা বাগান,Then চা খাবো,
তৃনা-ওকে,,
শিশির আর তনু গাড়ীতে উঠলো,,তৃনা আর শুভ ও,,
শিশির হঠাৎ করে একটা হাত তনুর পিঠের পিছন দিয়ে নিয়ে তনুকে ধরে রাখলো,তনু কিছুটা অবাক হলো,এমন করতেছে কেন?
শিশির-পড়ে যাবা না ধরলো,রাস্তা তো ভালো না
তনু-হুম,
চা বাগানে এসে নামলো,,♥
তনু তো এক দৌড়ে ভিতরে ঢুকে গেলো,,
শিশির-আরে তনু সাবধানে সাপ আছে,,
তনু-এ্যা??
তনু শিশিরের কাছে এসে ওর হাত ধরে রাখলো,,
শিশির-হাহাহা
তৃনা আর শুভ পিক তুলতেছে
তনু চারিদিক দেখতেছে,শিশির টান দিয়ে নিয়ে এলো,
তনু-কি??
শিশির-পিক তুলবো,
শিশির পিক তুললো,,তারপর তনুর হাত ধরে দূরে নিয়ে গেলো,
তনু-কোথায় নিয়ে যাচ্ছেন?
শিশির কিছু বললো না,
দূরে নিয়ে তনুকে গাছের সাথে দাঁড় করালো,,তনুর মুখ টিপে ধরে ঠোঁট থেকে লিপ্সস্টিক মুছে ফেললো,,
শিশির-এটা শুধু আমাকে দেখাবা,অন্য কাউকে না,রুমে আমার সামনে পরবা,
তনু থ হয়ে দাঁড়িয়ে আছে,
শিশির চলে যাওয়া ধরলো
শিশির-আর হ্যাঁ আমি তোমাকে ভালেবাসি না,হুহ
তনু-বারবার বলে মনে করাতে হবে না,
চলবে♥

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে