Crush যখন বর?61/62/63

0
3006

Writer -Afnan Lara
Crush যখন বর?
#Part_61
রাত ৯টায় তনু উঠে পরলো,উঠে দেখলো তনুর বরাবর শিশির বসে আছে হাতে খামটা,,এমন ভাবে তাকিয়ে আছে যেনো খেয়ে ফেলবে
তনু-খামমমম
শিশির-চুপ,
শিশির তনুর কাছে এসে গাল টিপে ধরলো,কি সমস্যা কি??আমাকে এমন ভয় দেখাইলা কেন???
তনু-আসলে
শিশির-আবার থাপ্পড় দিবো
তনু চুপ,
তনু-আপনি বাসায় যান
শিশির-কেনো আমি এখানে থাকলে কি কোনো সমস্যা??
তনু-হ্যাঁ,
শিশির-ওহ তাই?তাহলে একা যাবো না,তোমাকেও নিয়ে যাবো
তনু-আমি যাবো না,
শিশির -যেতে হবে,Right now
তনু-না
শিশির তনুকে কোলে তুলে নিলো,আমি যাবো না ছাড়ুন,ছাড়ুন,আপনিই তো বললেন আমি নাকি মিথ্যা বলসি সেটার prove দিয়ে তারপর যাবো,
শিশির-লাগবে নাহ আমার prove,
তনু-ছাড়ুন আমি যাবো না,তনু ইচ্ছা মতো কিল ঘুষি দিয়ে যাচ্ছে,,
শিশির তনুকে নিয়ে রাত ১০টায় বাড়ি ফিরলো,
তনু মুখ কালো করে আছে গাড়ি থেকে নামছে না,শিশির হাত ধরে টেনে নিয়ে এলো,
তনু রুমে ঢুকে Shock খেলো,একি রুমের এই অবস্থা করেছেন কেন??
শিশির দেখলো তনু নিজ থেকে ঝুঁকে ঝুঁকে সব মদের বোতল সরাচ্ছে,শিশির এসে কোলে তুলে খাটের মাঝখানে বসিয়ে দিলো,
শিশির-চুপচাপ বসে থাকো,আমাদের বাসায় কাজের বুয়া আছে ২জন,
তনু বসে রইলো,বুয়া এসে পরিষ্কার করে দিলো,আগেই করতে পারতো কিন্তু শিশির না থাকলে তার বিনা অনুমতিতে ওর রুমে কেউ ঢুকে না,
তনু উঠে আয়নায় দাঁড়ালো,হ্যাঁ ঠিক আছে একটু বড় হয়সে পেট টা এখন আমাকে pregnant লাগে,হিহি
শিশির ফাইল খুঁজতেছিলো,হঠাৎ ওর চোখ তনুর দিকে গেলো,তনু দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে পেট ধরে হাসতেছে,
শিশির গিয়ে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরলো,গলায় চুমু খেলো,
শিশির-একটুখানি বড় হয়েছে
তনু-পুরা বড় কখন হবে?
শিশির-আমি জানি না,Maybe আরও পরে,,
তনু-আচ্ছা শুনেন
শিশির-জী বলেন
আমি মিনুর সাথে কথা বলবো চুপ থাকবেন,কোনো sound না
তনু মিনুরে কল দিলো
হুম মিনু আমি শিশিরকে divorce দিসি,ওর মতো এমন characterless ছেলেকে আর সয্য করা যাবে না,
মিনু-তো শিশির সাইন করেছে?
তনু-হ্যাঁ
মিনু-তুই এখন কই?
তনু-আমাদের বাসায়,ওর সাথে তো আমার সব সম্পর্ক শেষ
মিনু-ও আচ্ছা,থাক কাঁদিস নাহ ও তো এমনিতেও ভালো ছেলে না,
ফোন রাখলো,শিশির রাগী চোখে তাকিয়ে আছে
শিশির-এ্যাই আমি? আমি? আমি? characterless???
তনু-এগুলা বলার কারন আছে,,কাল বুঝতে পারবেন,
শিশির-আমি তো characterless??তাহলে এখন সেটার prove দিব,
তনু-না না
শিশির শয়তানি হাসি দিয়ে এগচ্ছে,
তনু পিছাচ্ছে,,
শিশির-ভয় লাগে নাকি??
তনু-একদম না,
শিশির-তাহলে পিছাচ্ছেন কেন??
তনু-না আসলে
তনু সাইড দিয়ে পালাতে নিলো শিশির হাত দিয়ে আটকালো,
শিশির-আমার সাথে পারবা না
তনু-??
শিশির-pregnant হওয়ায় একটু বেশি মিষ্টি হয়ে গেসেন,কি করব নিজেকে আটকাতেই পারি না,
তনু-কথাগুলা এমন করে তাকিয়ে বলতেছেন কেন আমার শরম করে,????
শিশির-ওহ তাই নাকি??
শিশির আরও কাছে এগিয়ে গেলো,তনুর কাঁপুনি দেখে শিশির মুচকি হাসতেছে,
সেই আগের মতন থুতনি নি ধরে তনুর মুখ উপরে তুললো,,
তুলে এক হাত দিয়ে তনুর চোখ ডেকে রেখে আরেক হাতে ধরে কিস করতে লাগলো?????
(???এর পরেরটা তো আপনারা জানেনই?)
পরেরদিন সকালে♥
শিশির ঘুম থেকে উঠে সাইডে হাত দিয়ে তনুকে বিছানায় না দেখে লাফ দিয়ে উঠে পরলো একি কই গেলো???
শিশিরের ফোনে মেসেজ আসলো,,
তনু-Don’t worry,আমি বাসাতেই আছি,,Just ভাব টা এমন করবেন যে আমি বাসায় নেই
শিশির-কিছু বুঝতেছি না,
শিশির fresh হয়ে বাইরে বেরিয়ে এলো,মা বাবা বাসায় নেই নানু বাসায় গেছে,মীম স্কুলে,
তনু কই?ধুর,এখন আবার কে নক করতেছে,শিশির দরজা খুলে দেখলো মিনু,
শিশির-তুমি???
মিনু শিশিরকে ধাক্কা দিয়ে ভিতরে ঢুকে গেলো,
শিশির-what the***
মিনু-আজ তোমাকে কে বাঁচাবে???
মিনু নিজের ওড়না খুলে ফেলে দিলো,,
শিশির-এসব কি আজিব
মিনু-এরপরে তুমি আমাকে বিয়ে করতে বাধ্য,Divorce তো হয়ে গেছে তনুর সাথে,
শিশির-এতো টা স্বার্থপর কারোর best friend হতে পারে??
মিনু-হাহা,best friend? কিসের??আমি কখনও ওরে আমার friend ভাবি নাই,
মিনু-ও তো বোকা সেরা বোকা,,হাহাহা,মিনু সোফায় বসলো,পায়ের উপর পা তুলে,
মিনু-কে বাঁচাবে??একটা মেয়ের সাথে একলা ঘরে, আশে পাশের মানুষ কি ভাববে??বউ নেই ঘরে বাসায় আরেকটা মেয়ে??হাহাহা
তোমরা দুজনেই বোকা,তনু তো এতো বোকা যে আমি ওর থেকে ওর এফবি আইডি চাইলাম আর ও আমাকে দিয়েও দিলো,,,,ও তো ছেলেদের পাত্তাই দিতো না,আমার তো এই স্বভাব না,আমি ওর পিক নিয়ে কতোজনের সাথে প্রেম করসি হিসেব নেই তাও ওর আইডি থেকে,তনু এফবিতে আাসার টাইম আমার জানা ছিলো আমি সে বুঝে চ্যাট করে ডিলেট দিয়ে দিতাম ও জানতেও পারতো না,
শিশির-best friend হিসাবে ও তোমাকে trust করেছিলো আর তুমি??? আমি ওকে কতটা অবিশ্বাস করেছি শুধুমাত্র তোমার জন্য
মিনু-oh come on,এগুলা ভেবে লাভ নেই,Divorce হয়ে গেসে,আর আমি একা একা তুমিও একা একা বাসায়,Already আশেপাশের মানুষ কথা বলাও শুরু করে দিসে????
মিনু এসে শিশিরের Shirt এ হাত দিবে তনু ধরে ফেললো,
তনু-Dont touch my man
মিনু হঠাৎ তনুকে দেখে Shock খেলো,
তনু সজোরে মিনুকে থাপ্পড় দিলো,
তনু-স্বার্থপর!!!!!তোর মতো best friend যেন আর কারও না হয়,
মিনু-তনু সব মিথ্যা আমি কিছু করিনি,তোর husband আমাকে ডেকেছে
তনু-আমি সব শুনেছি,সো মিথ্যা কথা বলে লাভ নেই,
মিনু-ও তাহলে সব শুনেছস,
মিনু শিশিরের সামনে গিয়ে দাঁড়ালো,
শয়তানের মতো হেসে নিজের জামার হাতা টান দিয়ে ছিঁড়ে ফেললো,
মিনু তনুর তাকিয়ে আবার হাসলো,তারপর ন্যাকা কান্না শুরু করে দিলো জোরে জোরে,
মিনু-বাঁচাও বাঁচাও,
মিনু গিয়ে দরজা খুলে দিলো,কয়েকজন ভিতরে ঢুকলো,কি হয়সে???
মিনু-এই ছেলেটা আমার সাথে খারাপ কাজ করেছে,দেখুন আমার অবস্থা,,
শিশির-এই তুমি পাগল হয়ে গেসো??
তনু দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে নাটক দেখতেছে,
সবাই শিশিরের দিকে রাগি চোখে তাকিয়ে আছে,
তনু এবার জয়ের হাসি দিলো,সবাই অবাক হয়ে তাকিয়ে আছে,
তনু হাসতে হাসতে গিয়ে সোফায় বসলো,,
তনু-এই যে আংকেল এই দিকে আসুন তো,এই নেন ভিডিও দেখেন সবাইরেও দেখান,Great Grand Masti??season 3?
মিনু চোখ বড়বড় করে তাকিয়ে আছে,
তনু মিনুর দিকে তাকালো,
তনু-মিনু, আমাকে এখনও চিনস নাই??আমি কাঁচা মাছ খাই নারে,,আমি তে বোকা তো বোকা মেয়ে কি করছে দেখবি না??
তনু ফোনটা নিয়ে মিনুকে দেখালো শিশিরের সাথে বলা সব কথা তনু দাঁড়িয়ে ভিডিও করেছে,,
তনু-এখন আপনারা ডিশিসন নেন,চোখে যেটা দেখেছেন সেটা বিশ্বাস করবেন নাকি কানে যেটা শুনেছেন সেটা,,আর তাও বিশ্বাস না হলে ওরে হসপিটালে নিয়ে psycal test করান,
চলবে♥

Writer -Afnan Lara
Crush যখন বর?
#Part_62
যতজন ছিলে সবাই একেক করে মিনুকে insult করতে লাগলো,
তনু-শুধু মাত্র আমার friend তুই তার জন্য ছাড়ছি তোকে,Next time আমার আশেপাশেও জেনো তোকে না দেখি,Now get out!!
সবাই চলে গেলো,
তনু রুমে যাওয়া ধরলো শিশির এসে পথ আটকালো,
তনু-সরি বলতে হবে না,
শিশির সরি বলবো না,,
তনু-তাহলে??
শিশির-ভালোবাসা দিয়ে মাফ চাইবো,মানা করতে পারবা না
তনু-মানা করলে শুনেন?
শিশির-,,,,,,,
তনু-btw doctor হসপিটালে যেতে বলেছে আজকে আলট্রাসোনোগ্রাফি করবে,,বেবি দেখবে
শিশির-সত্যি???
তনু-হুমমমমম
শিশির তাহলে চলো,,দুজনেই রেডি হয়ে hospital গেলো,
শিশির বাইরে দাঁড়িয়ে আছে,তনুর হাসি শুনা যাচ্ছে খিলখিল করে হাসতেছে,,
শিশির-কি হয়সে doctor? ও এতো হাসতেছে কেন?
Doctor -আপনার wife কে বুঝান উনার নাকি আমি পেটে হাত দিলে কাতুকুতু লাগে,জেলি লাগানোর পর থেকে হাসতেছে হাত লাগাতেই পারছি না,
শিশির-আমি হাত লাগালেও এমন করে
তনু-আপনার মুখে কিছু আটকায় না??
শিশির-আমাকে দিন, আমি করবো ওর Altra,
শিশির পেটে হাত দিতেই তনু আবার হাসি শুরু করলো,শিশির শক্ত করে মুখ চেপে ধরলো,
শিশির-চুপ,বেবি দেখো ঐদিকে তাকিয়ে
তনু চোখমুখ খিঁচে হাসি বন্ধ করে তাকালো,বেবিকে দেখে শান্তি পেলো,
শিশির-আমাদের বেবি,,
বাসায় যাওয়ার পর তনু বারান্দায় বসে আছে হেলান দিয়ে,, শরীর ভালো নেই,,১২দিনে শিশির যেমন ঠিকমতো খায়নি তনু ও খায়নি,,তারউপর বমি তো আছেই,,
শিশির এসে পিছন থেকে চোখ ধরলো,
তনু-শিশির বাবু♥
শিশির-হুম,Surprise একটা আছে
তনু-কি??
শিশির album টা তনুর হাতে দিলো,Album এ তাদের বেবির 1st পিক,আলট্রার
তনুর খুশিতে চোখে দিয়ে পানি যেতে লাগলো,
শিশির পাশে বসে চোখ মুছে দিলো,
শিশির-বেবির সব পিক আমরা এই albumএ রাখবো,
তনু-হুম,
শিশির-আচ্ছা চলো বাইরে থেকে ঘুরে আসি
তনু-কই?
শিশির-শিশু পার্ক যাবা?
তনু-আমাদের এখানের?ওহ মাগো যে ছেলেটা পার্ক হওয়ার পর থেকে জীবনেও যায়নি সে আজ যাবে?
শিশির-হাঁটবো just,
তনু-ওকে,
দুজনেই হাঁটতেছে,ঘাটে এসে তনু শিশিরের কাঁদে মাথা রাখলো,,
শিশির-কি হয়সে??ভালো লাগে না?
তনু মাথায় উঠিয়ে বলতে যাওয়ার সময় মাথার উপরে থাকা গাছের সাথে বারি খাওয়া ধরলো তার আগেই শিশির উপরে হাত দিয়ে দিলো,
শিশির-সাবধানে
তনু-হুম,,জানেন আমি এই পার্কে আসলেও আপনাকে খুঁজতাম যদি একবার দেখা পাই সেই আশায়
শিশির-হাহা,আমি এইদিকে তেমন আসতাম না,
তনু-আপনি তো কলেজ রোড এর ঐদিকে থাকতেন
শিশির-হুম
তনু-চলেন বাসায়, ভালো লাগতেছে নাহ আমার
শিশির-চলো,,
গাড়ীতে উঠার সময় এক বৃদ্ধ মহিলা তনুর হাত ধরলো,,
মহিলা-মা আমাকে কিছু দাও,
তনু উনাকে দেখলো,,ছোটবেলা থেকে এসব ক্ষেত্রে তনু সবচেয়ে বেশি আবেগি,তনু গাড়ী থেকে কেক আর জুস উনার হাতে দিলো,শিশিরের কাছে গিয়ে ওর পকেট থেকে মানিব্যাগ নিয়ে দেখলো ৩০০০টাকা,,
তনু এনে উনার হাতে ধরিয়ে দিলো,,নিজের গায়ের থেকে চাদর টা নিয়ে উনার গায়ে দিয়ে দিলো,,
তনু-ওয়েট,,তনু নিজের ছোট সাইড ব্যাগটা উনার হাতে দিলো,ধরেন টাকা গুলা এখানে রাখেন,,টাকা রাখার পর তনু ব্যাগটা উনার গলায় দিয়ে ঢুকিয়ে ব্যাগটা উনার বোরকার ভিতরে ঢুকিয়ে দিলো,
তনু-কেউ আপনার থেকে আর টাকা টা নিতে পারবে না,,
মহিলা-আল্লাহ তোমাদের ভালো করুক, সুখে থাকো,শত সন্তানের জননী হও,এটা বলে চলে গেলো,
শিশির-ওমা এটা কি বলে গেলো??? শত?ইন্নালিল্লাহ,আমি শেষ হয়ে যাবো,তনু হাসতে লাগলো,
শিশির-যাই হোক ভালো কাজ করসো,Thanks,
তনু-Thanks আপনাকে,আপনার টাকাই তো দিলাম,
শিশির-তা ম্যাডাম আপনার গায়ে তো কিছু নাই,ঠান্ডা লাগবে তো,
তনু-তাহলে চিন্তা করেন উনারা কতো কষ্টে জীবন যাপন করে,
শিশির নিজের জ্যাকেট খুলে পরিয়ে দিলো,
শিশির -জানো একদিন নাতাশা আমার সামনে একজন বুড়ো লোককে ৩টাকা দিসিলো,বলেছে ওর এগুলা ভালো লাগে,
৩টাকাতে ওদের কিছু হয় না,৬জনের ৩টাকা জমিয়ে ওরা সামান্য খাবার খায়,ওদের দেওয়ার হলে সবসময় বেশি দেওয়া উচিত,,তোমার মতো করে যদি সবাই ভাবতো
তনু-ঐ ফইন্নির কথা বাদ দেন,একটা পাগল
দুজনেই বাসায় আসলো,,
তনু শিশিরের বুকে মাথা রেখে শুয়ে আছে,মা কখন আসবে? আমার একা লাগে,
শিশির-এসে যাবে,,আমি কাল থেকে অফিস যাবো,
তনু-ওকে,একটা গান শুনান,
শিশির-আমি English গান শুনি,English পারি
তনু-শুনান
শিশির-The club isn’t the best place to find a lover So the bar is where I go Me and my friends at the table doing shots
Drinking fast and then we talk slow
And you come over and start up a conversation with just meAnd trust me I’ll give it a chance now
Take my hand, stop, put Van the Man on the jukebox
And then we start to dance, and now I’m singing like[Pre-Chorus]
Girl, you know I want your loveYour love was handmade for somebody like me
Come on now, follow my lead
I may be crazy, don’t mind me Say, boy, l
et’s not talk too much
Grab on my waist and put that body on me
Come on now, follow my leadCome, come on now, follow my lead[Chorus]I’m in love with the shape of youWe push and pull like a magnet doAlthough my heart is falling tooI’m in love with your bodyAnd last night you were in my roomAnd now my bed sheets smell like youEvery day discovering something brand newI’m in love with your bodyOh—I—oh—I—oh—I—oh—II’m in love with your bodyOh—I—oh—I—oh—I—oh—II’m in love with your bodyOh—I—oh—I—oh—I—oh—II’m in love with your bodyEvery day discovering something brand newI’m in love with the shape of you♥♥♥♥
তনু-ছাতার মাথাও বুঝি নাই?
শিশির-?
তনু-হাহাহা খালি একটা জিনিস বুঝছি
শিশির -কি
তনু-আপনি আমার বডি পছন্দ করেন???
শিশির-সেটা তো করি,লম্বা,চওড়া,,একটু চিকন বেশি না,pregnant হওয়ার পরে তো নাদুসনুদুস,,
তনু-ইস???
শিশির-লজ্জা পাইলা??
তনু-হুম পাইলাম,
শিশির-এতো লজ্জা কিসের,রোডে আমাকে দেখলে তো চোখ মারতা
তনু-সেটা দুষ্টুমি করে
শিশির-আচ্ছা
চলবে♥

Writer -Afnan Lara
Crush যখন বর?
#Part_63
শিশির বাথরুমে চলে গেলো,,
তনু ভাবতে লাগলো, যে ছেলেটাকে দেখার জন্য পাগল হয়ে যেতো,হুদাই বাসা থেকে বের হতো সে আজ সারাদিন তার চোখের সামনে থাকে,কিছুদিন পর তার দেওয়া সবচেয়ে বড় ভালোবাসার উপহার আসতে চলেছে,,
তনু যেনো নতুন করে শিশিরের প্রেমে পড়েছে,
তনু ভাবতেছে আর মুচকি মুচকি হাসতেছে,
শিশির বাথরুম থেকে বেরিয়ে দেখলো হাসতেছে,
শিশির-কি হয়সে ম্যাম??এতো হাসি?
তনু-কিছু না
শিশির-কিছু তো আছেই
তনু-না না
শিশির-হ্যাঁ হ্যাঁ
শিশির-এদিকে আসো
তনু কাছে আসলো,
শিশির-আরেকটু কাছে
তনু-আসলাম,
শিশির পিঠে হাত দিয়ে আরও কাছে এনে কানে ফিসফিসিয়ে বললো,,,,,,,,ভালোবাসি,,,♥
তনু-হুহ
শিশির-কি?
তনু-পুরাটা বলতে হবে নইলে বুঝব কিভাবে কে কারে ভালোবাসি কইসে
শিশির-হাহাহা,,আচ্ছা,আমি তোমাকে ভালোবাসি♥
তনু-আমিও তোমাকে খুব ভালোবাসি,উম্মাহ ?
শিশির-এই পাগলামি আর গেলো না,
তনু-আপনি দিবেন না?
শিশির-জী,উম্মাহ?
তনু-??????তনু শিশিরের ঠোঁটের দিকে তাকিয়ে আছে
শিশির-কিস??
তনু-না
শিশির-তাহলে কি দেখো?
তনু-আপনি যখন মায়ের পেটে ছিলেন মা কি খেতো,আপনার ঠোঁট দেখি আমার থেকেও গোলাপি
শিশির-আমি কখনও cigarette খায়নি
তনু-হুম তা না বাট এমনিতেই পিংক
শিশির-বুঝতে হবে
তনু-কি এরই,এগুলা আমার?Already ১৯বার কিস করে ফেলছি, এখন আর কেউ আপনাকে কিস করবে না????
শিশির-আবার count ও করসো??এতো কিছু কখন করো
তনু-?বুঝবেন না
শিশির-আচ্ছা ১৯?২০করে দিই,বলতে সুবিধা হবে তাহলে
তনু-?????
শিশির তনুর মুখে ধরে নিজের দিকে ফিরালো,
শিশির-বিয়ের বয়স হয়সে ৮মাস,,এখনও নতুন বউয়ের মতো লজ্জা?
তনু-তো কি?
শিশির-যদিও প্রথম প্রথম আমাকে জোর করে ধরে??করেছিলা
তনু-?না করলে তো জোরই করতে হয়
শিশির-হুম সেটা ঠিক
তনু -হুমম,তনু আরেক দিকে কিছু বলতে যাবে শিশির খপ করে ধরে কিস করে দিলো,
তনু ঠেলতেছে শিশিরকে,,
কিছুক্ষন পর,আপনার লজ্জা শরম নাই??আমি কথা বলতেছিলাম,ভয় পাইসি
শিশির-আমার কি?আমি আমার কাজ করে দিসি
শিশির গিয়ে laptop নিয়ে বসলো,তনু উঁকি মেরে মেরে কিছুক্ষণ দেখলো,তারপর উঠে গেলো, কফি বানাবে,
বানিয়ে আনলো,শিশিরকে দিলো,
শিশির-তুমি রান্না ঘরে কেন গেসো??
তনু-বুয়া help করসে
শিশির-না,যাবা না,দরকার হলে আমি বানাবো,
তনু-খান,
তনু কফি খাওয়ার পর কফির ফ্যানা ওর ঠোঁটের উপর লেগে আছে,
শিশির-পাগলি,শিশির হাত দিয়ে মুছে দিলো,,
তনু শিশিরের দিকে তাকিয়ে আছে,
তনু-(কে বলছে হালকা দাঁড়ি রাখতে,এমনিতেও handsome আবার দাঁড়ি পাগল হয়ে যাবো),,,,,,
শিশির-কি ভাবতেছো?
তনু শিশিরের গালে হাত দিলো,
তনু-এগুলা রাখসেন কেন?
শিশির-এই কদিনে সেভ করি নাই,করবো,
তনু-না
শিশির-কেন?
তনু-এমনি থাক ভালো লাগে
শিশির-ওওওওওওওওওওওও
তনু-কি ওওওওওও?
শিশির-কিস করলে যে গালের সাথে গাল লেগে যে খোঁচা লাগে ওটা ভালো লাগে বুঝি??
তনু-না কই
শিশির-তাই না??
শিশির তনুকে টান দিয়ে শুইয়ে দিলো,ওর গালে দাঁড়ি দিয়ে খোঁচা দিতে লাগলো
তনু দুই হাত দিয়ে সরানোর চেষ্টা করছে,শিশির দুহাত চেপে ধরলো,
তনু-কাতুকুতু লাগে,pls ছাড়েন,আম্মুউউউউউ,pls pls ছাড়ুন, মরে যাবো
শিশির হাসতেছে আর কাতুকুতু দিতেছে,
তনু-শয়তান ছেলে,কুত্তা বিলাই??
১০মিনিট পর ছেড়ে দিলো,
তনু-কথা কমু না
তনু চলে যাওয়া ধরলো শিশির হাত ধরলো,
শিশির-যাইতে দিব না
তনু এসে শিশিরের বুকে শুয়ে পরলো,হাঁপিয়ে গেসে দুজনেই,,
তনু-আচ্ছা একটা কথা বলি?
শিশির-হুম
তনু-বেবি হওয়ার সময় যদি আমার কিছু হয়ে যায়,?
শিশির রাগী চোখে তাকালো,
তনু-কি হলো বলেন
শিশির তনুকে বুক থেকে সরিয়ে দিলো,
তনু-বলবেন না?
শিশির-তোমাকে একদিন বলসি এসব কথা বলবা না,থাপ্পড় ও দিসিলাম,
তনু-সরি
শিশির উঠে বসে পরলো,
তনু-সরি,রাগ করবেন না,কানে ধরসি
শিশির উঠে গেলো,যাওয়ার সময় বললো অফিসে কাজ আছে
তনু-ধুর,এটা বলা ঠিক হয়নি,উত্তর দিলেও বা কি হতো?
সন্ধা হয়ে গেসে,শিশির এখনও আসেনি,
৮টায় আসলো,আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে shirt খুলতেছে,
তনু এসে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরলো,,শিশির কোনো কথা বললো না,
তনু দেখেন আপনার shirt পরেছি,
শিশির পিছনে তাকালো,তনু মুচকি হেসে তাকিয়ে আছে,
শিশির ব্রু কুঁচকিয়ে ওরে কোলে তুলে নিলো
তনু ভাবসে শিশির রাগ করসে,কিন্তু একি?? ও দেখি কোলে তুলে নিলো
শিশির তনুকে বিছানায় নামিয়ে কম্বল গায়ে দিয়ে দিলো
শিশির-এই শীতে ঠান্ডা লেগে যাবে,
তনু-খাবো চলেন
শিশির-বসো আমি আনতেছি
শিশির খাবার এনে তনুকে খাইয়ে দিতে লাগলো,
তনু -সরি আর বলবো না তাও রাগ করে থাকিয়েন না,
শিশির-নাহ রাগ করিনি,আসলে একটা bad news আছে
তনু-কি?
শিশির-আমাকে অফিস থেকে America যেতে হবে,project টার client সেখানে,
তনু-কতোদিন থাকবেন??
শিশির-৩মাস
তনু-আমি থাকবো কি করে,এটা হবে না??????
আমি একা একা বেবি সামলাবো কি করে???
চলবে♥

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে