হায় লেখক

0
609
বন্ধুদের সাথে কক্সবাজার এসেছি বেড়াতে। হোটেল রুমে শুয়ে শুয়ে ফেসবুকিং করছি, একটা নতুন আইডি থেকে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট এলো,ভাইজান, একসেপ্ট করেন!আমি আইডির ভেতরে ঢুকে দেখি, মা! হায় আল্লাহ! এই আকামটা করলো কে? নিশ্চয়ই ছোট বোনের কাজ।মা আমাকে একটা ফেসবুক আইডি খুলে দিতে বলেছিল,আমি রাজি হইনি।
আমি রিপ্লাই দিলাম, মা আমি তোমার পোলা হানিফ ওয়াহিদ!মা সাথে সাথে দুঃখী দুঃখী কয়েকটা ইমোজি দিয়ে অফ লাইনে চলে গেলেন!
আমি বাড়ি ফিরে আসতেই মা বললেন, হ্যা রে হানিফ, কীভাবে ফেসবুকে বন্ধু সংখ্যা বাড়ানো যায় বল তো? চারদিন আগে ফেসবুক খুলেছি,আমার বন্ধু সংখ্যা মাত্র দুই হাজার!আমি বললাম, বন্ধু সংখ্যা বাড়ানো যাবে এটা সমস্যা না,কিন্তু তুমি তোমার আইডি নাম কী রেখেছো?কেন,নিরীহ বালিকা নামটা তোর পছন্দ হয় নাই?তুমি নিরীহ বালিকা? চুলটুল পেকে একশেষ,,,, দুর! কী বলিস তুই! কী এমন বয়স হইছে,,, সামান্য চুলে কয়টা পাক ধরেছে, তোর বাপের সংসারে এসে ঘানি টানতে টানতে আজ আমার এই অবস্থা। জীবনে তোর বাপ আমাকে কী দিয়েছে বল? তোর বাপের চৌদ্দ পুরুষের ভাগ্য আমাকে পেয়েছিল,নইলে কী আর,,,,, আমি মায়ের হাত থেকে বাঁচার জন্য পালিয়ে এলাম। শখের বসে ফেসবুকে লেখালেখি করি,কেউ পড়ে বলে মনে হয় না। সারাদিন কষ্ট করে লিখে দুই চারটা লাইক কমেন্ট পাই। তারপরও আশায় থাকি একদিন বিখ্যাত লেখক হবো! সেদিন ‘নিশি রাতে ঘুঘু ডাকে’ নামে একটা অসাধারণ গল্প লিখলাম।একটা সাহিত্য গ্রুপে পোস্ট করলাম।সর্বসাকুল্যে লাইক পড়লো তেইশটা।কমেন্ট দুইটা। একজন কমেন্ট করেছে, ছাগলামির জায়গা পান না মিয়া? নিশি রাতে ঘুঘু ডাকে? এখন এই দেশে ঘুঘু আছে? লেখালেখি না করে ছাগল চড়ান মিয়া!
আরেক জন লিখলো,ভাইজান, আপনার তো হওয়ার কথা ছিলো ঠেলাওয়ালা রিকশা ওয়ালা, লেখক হইলেন কেমনে? আফসোস! আজকাল পাগল ছাগল ও লেখক হইতে চায়! দুর ছাই! লেখক হওয়ার গোষ্ঠী কিলাই বলে বাসা থেকে বেরুতে যাবো, মা এসে হাজির! তার এক কথা, বন্ধু বাড়ানোর পথ বাতলে দিতে হবে।মাথায় একটা বুদ্ধি এলো। মাকে কিছু গালি খাওয়াই তাহলে ফেসবুকের ভূত মাথা থেকে নেমে যাবে। মায়ের একটা কলেজ লাইফের পিকচার তার প্রোফাইলে সেট করলাম,তারপর অন্য একটা সাহিত্য গ্রুপে আমার সেই’ নিশি রাতে ঘুঘু ডাকে ‘ তার আইডি থেকে পোস্ট করে দিলাম। খাও, আজ সারাদিন গালি খাও! এক ঘন্টা পর বাসায় ফিরে আসতেই মা দৌড়ে আমার রুমে এসে হাঁপাতে হাঁপাতে বললেন, ও রে আমি তো একঘন্টায় সেলিব্রিটি হয়ে গেছি রে! এই দেখ অবস্থা!হায় আল্লাহ! এ কি অবস্থা! এক ঘন্টায় সাড়ে তিন হাজার লাইক চলে এসেছে! চার,শোর উপরে কমেন্ট! একজন লিখেছে, ‘ নিশি রাতে ঘুঘু ডাকে,’ বাংলা সাহিত্যে বিরল একটি নাম। এমন সুন্দর নাম সচরাচর দেখা যায় না। লেখিকার সাহিত্যবোধ প্রবল! আরেক জন লিখেছে,বাংলা সাহিত্য জগতে নতুন প্রতিভার সন্ধান মিলেছে।আমি নিশ্চিত এ লেখিকা অনেকদুর যাবে! এক ঘন্টায় মায়ের কাছে প্রচুর ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট চলে এসেছে। আমি যখন হতভম্ব, তখন আরেকটা কমেন্টের দিকে চোখ আটকে গেল।একজন লিখেছে, লেখিকার লেখাটা এরই মধ্যে চুরি হতে শুরু করেছে। হানিফ ওয়াহিদ নামে এক ছাগল কপিবাজ অন্য গ্রুপে এই লেখাটা কপি পেস্ট করেছে। এই ছাগলকে বর্জন করুন! এখন নিরীহ বালিকার আইডিতে লিখি। মায়ের আনন্দ দেখে কে! যাকে তাকে ফোন দিয়ে বলে, আপা আমার কালকের লেখাটা পড়েছেন? অসাধারণ হয়েছে না? আরে লাইক কমেন্টের তো বন্যা বয়ে যাচ্ছে। আফসোস! কেন যে লেখালেখিটা আগে শুরু করলাম না! একদিন রাস্তায় মায়ের ছোটবেলার বান্ধবীর সাথে দেখা। তিনি বললেন, তোমার মা তো অসাধারণ লিখে! আশ্চর্য! ছোটবেলায় তোমার মা নিজের নাম পর্যন্ত লিখতে ভুল করতো, এখন লিখে লিখে ফেসবুক সেলিব্রিটি হয়ে গেল? সাধনা করলে সবই সম্ভব, তোমার মা প্রমাণ করে দিল! মায়ের দিকে খেয়াল রেখ বাবা!আমি বিগলিত হয়ে বললাম, অবশ্যই! অবশ্যই! একদিন প্রচন্ড জ্বর নিয়ে শুয়ে আছি। মা এলেন লেখা নিতে। লিখবো কি মাথাই তুলতে পারছি না।প্রচন্ড বিরক্তি নিয়ে লিখলাম, দুর ছাই! কিছুই ভালো লাগছে না!শত শত লাইক কমেন্ট পড়তে লাগলো। একজন লিখলো,ঠিক বলেছেন ম্যাম,সব সময় কি আর ভালো লাগে?মাঝে মাঝে মন খারাপ হতেই পারে।আরেক জন লিখলো, মন খারাপ করবেন না, ম্যাম।আপনি মন খারাপ করলে আমাদের কী হব? আমরা যে আপনার লেখা মিস করবো!আরেকটা ছাগল আরেকটু এগিয়ে লিখলো, শিক্ষনীয় পোস্ট! আমি আমার আইডিতে লেখা দেই,তেমন লাইক কমেন্ট পাই না।মন খারাপ করে যখন লেখা ছেড়ে দেবো ভাবছি, ছোট বোন এগিয়ে এলো সাহায্যের জন্য। একদিন বললো, ভাইয়া,যদি আমার থেকে আইডিয়া নিস,তাহলে বিখ্যাত লেখক হতে পারবি।আমি বললাম, আইডিয়া বল।তোর নামটা একটু চেন্জ করে ফেল,প্রচুর লাইক কমেন্ট পাবি।নাম বাদ দিতে বলছিস?না। নাম বাদ দিতে হবে না। তোর নাম তো হানিফ ওয়াহিদ। এখন থেকে তোর ফেসবুক আইডি নাম হবে হানিফ ওয়াহিদা।আইডিতে একটা সুন্দরী মেয়ের ছবি ঝুলিয়ে দে।ব্যস,আর দেখতে হবে না, লাইক কমেন্ট রকেটের গতিতে দৌড়ে আসবে। আমি একটা মেয়ের ছবি দিয়ে হানিফ ওয়াহিদা নামে একটা আইডি খুললাম। তারপর পোস্ট দিলাম, হাই বন্ধুরা, কেমন আছো?অনেক দিন পর ফিরে এলাম।লাইকের চেয়ে কমেন্ট বেশি। ম্যাডাম, আপনি এতদিন কোথায় ছিলেন? ,,,, আপনাকে মিস করছি।,,,, আপনার আইডি কি নষ্ট হয়েছিল?,,, এড মি প্লিজ ম্যাডাম! এখানেও এক ছাগল লিখলো,শিক্ষনীয় পোস্ট! হানিফ ওয়াহিদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here