মোবাইলে সেভ করা নাম্বার গুলো ফেসবুকে সার্চ দিয়ে দেখতেছিলাম ?

- Advertisement -
- Advertisement -

"এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে। আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার। আমাদের গল্প পোকা ডট কম ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এখানে ক্লিক করুন "

মোবাইলে সেভ করা নাম্বার গুলো ফেসবুকে সার্চ দিয়ে দেখতেছিলাম ?

কারো ফেসবুক আইডি পাওয়া যায় কিনা।
অনেকক্ষণ সার্চ করার পর ভাবলাম আমার নাম্বারটাই সার্চ দিয়ে দেখি কোনো আইডি আসে কিনা(আমার আইডি ইমেল দিয়ে খোলা ছিল)
এমা, ?
দেখি ফোনের স্ক্রিনে জলজ্যান্ত একটা আইডি ভেসে উঠলো,
“মৃত্তিকার অপ্সরী ”
দেখে আমি তো পুরাই হাম্বা বলদ হয়ে গেলাম।
আমার নাম্বার দিয়ে ফেসবুক আইডি,
অথচ আমি জানিনা।
যাইহোক, ভাবলাম আমিও একটু দেখি কে আমার নাম্বার ব্যবহার করে এই মহৎ কাজটা করছে।
একটা ফেক ইমেল একাউন্ট খুলে “নীল আকাশের রাজপুত্র” নাম এবং দক্ষিণ ভারতীয় অভিনেতা আল্লু অর্জুন এর একটা পিক দিয়ে একটা ফেক ফেসবুক একাউন্ট ওপেন করলাম।
এরপর সেই মৃত্তিকার অপ্সরী আইডিতে রেকুয়েষ্ট দিলাম।?
মনে হয় উনি ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট এক্সেপ্ট করার জন্যই প্রস্তুতি নিয়ে ছিল।
আমার রিকুয়েস্ট দিতে দেরি হল,ওনার এক্সেপ্ট করতে দেরি হলনা।
এরপর আমি ওনাকে নক দিলাম
:হাই,কেমন আছেন?
:হ্যালো।
ভাল নাই গো।
বাড়ি থেকে শুধু বিয়ে দিতে চায়।
কিন্তু আমি Arrange marriage করতে চাইনা।
(শুধু হাই,কেমন আছেন এর রিপ্লে দিতে যে রচনা লেখা শুরু করছে না জানি পরে আবার মহাকাব্য লেখা শুরু করে কিনা সেই ভয় পেয়ে গেলাম।
এবার আমিও একটু মজা নেওয়া শুরু করলাম)
:আহারে,খুব কষ্ট না?
(আমি আবার আহসান হাবীব পেয়ারের ভক্ত ছিলাম)
:হ্যা গো।
যদি একটা প্রেমিক থাকতো তাহলে বাসায় তার কথা বলে লাভ ম্যারিজ করতে পারতাম।
:আমিও প্রেম করে বিয়ে করার জন্য একটা মেয়ে খুজতেছি কিন্তু পাচ্ছিই না।আমাদের দুজনের কত মিল তাইনা?
:হ্যা গো,আপনার মত কাউকে যদি পেতাম
(লাভ ইমো)?

:আমার মত পেতে হবে কেন,আমিই তো আছি(আমিও একটা কিসের ইমো দিলাম।

ইশ,আপনি তো হিরোর মত দেখতে।

আপনি কি আমাকে পাত্তা দিবেন?
(সে হয়তো আল্লু অর্জুন কে চেনেনা,
তাই পিপি এর পিক টা আমার মনে করছে)
-আপনিও তো অনেক সুন্দরী, আপনার কথা শুনলেই বোঝা যায়।
(না দেখেই বাতাস দিলাম)
:কি যে বলেন না(লজ্জার ইমো)
আমি মৃত্তিকার অতল গহবরে নিজেকে হারিয়ে ফেলতে চাই।
এক টুকরো জায়গা হবে কি এই প্রেম ভিখারির জন্য?
(সোজা ইয়র্কার মারলাম)

আমিও চাই ওই নীল আকাশ থেকে একটা রাজপুত্র ধপাস করে পরে আমার মনের শুন্যস্থান টা পূর্ণ করে দিক।
(বোল্ড আউট হয়েছে)?

তাহলে আজ থেকে শুরু হোক আমাদের প্রেমের গাড়ির ধিকিধিকি যাত্রা
:তুমি সেই গাড়ির ড্রাইভার আমি একমাত্র যাত্রি।

লাভ ইউ জানুটা ?

লাভ ইউ টু বেবিটা?

এতক্ষণ বুকের উপর পাথর চেপে এই আপদের সাথে চ্যাট করলাম।

একদিনেই তার এতো অগ্রগতি দেখে ভাবতেছি দিন-দুনিয়া নষ্ট হয়ে গেছে।আমাদের আগের জেনারেশন কত ভাল ছিল,
আর এই কলিযুগে পোলাপান সব নষ্ট হয়ে গেছে।
এরপর প্রতিদিন টুকটাক ভালই কথা বলতাম।
মাঝেমাঝে রোমান্টিক কথাও বলতাম।দেখি সে রোমান্সের জোয়ারে ভেসে যাচ্ছে।
কথা শুনে মনে হয় সে আমার জন্য লাইলী,শিরি,রজকিনী, পার্বতী সব হয়ে গেছে।

একদিন অফিসে বসের সাথে রাগারাগী করে বাসায় ফিরে দেখি বউ বাসায় নাই।

রাগে মাথা আগ্নেয়গিরির মত জ্বলতেছিল।

ফোনের ডাটা অন করতেই দেখি সেই আইডি থেকে ম্যাসেজ।

রাগের মাথায় ইচ্ছামত বকা দিয়ে ঘুমিয়ে পড়লাম।
সন্ধ্যায় আমার ওয়াইফের ফোনে ঘুম ভাংলো।
ফোন রিসিভ করতে ওইপাশ থেকে বউ হাউমাউ করে কেঁদে উঠে বললো,

মা অনেকগুলো ঘুমের ওষুধ খেয়েছে।আমি হাসপাতালে নিয়ে এসেছি তুমি তাড়াতাড়ি চলে আসো।

আমি লাফ দিয়ে উঠে ফ্রেস হয়ে হাসপাতালে চলে গেলাম।

গিয়ে দেখি ডাক্তার আমার শাশুড়ির গলায় নল ঢুকিয়ে পানি দিয়ে ওয়াশ করতেছে।

ওয়াশ করা শেষ হলে ডাক্তার বললো কয়েকদিন হাসপাতালে থাকতে হবে।আমার শশুর বেঁচে নেই,

ইন্টারমিডিয়েট পড়া একটা শালা আছে শুধু।
তাই যা ঝামেলা সব আমাকেই বইতে হবে।
আমি আমার শশুরবাড়ি গেলাম হাসপাতালে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিষপত্র আনতে।
শাশুড়ির রুম থেকে জিনিষপত্র নিতে গিয়ে দেখি ওনার স্মার্টফোনটা বেডের উপর পরে আছে।

সেটা নিতে গিয়ে কৌতুহলবশত একটু চেক করতে চাইলাম।

ফোন চালু করতেই দেখি ম্যাসেঞ্জার ওপেন করা আর উপরে “নীল আকাশের রাজপুত্র” নামটা জ্বলজ্বল করছে।

এটা দেখে মনে হল একগ্লাস সুইসাইড খেয়ে আত্মহত্যা করি।?

আমার একমাত্র শাশুড়ি তার একমাত্র মেয়ে জামাইয়ের জন্য suicide attempt করেছে।

সত্যিই ঘোর কলিযুগ এসে গেছে,

যেখানে বুড়িরাও প্রেমের সাগরে হাবুডুবু খায়।??

গল্প পোকা
গল্প পোকাhttps://golpopoka.com
গল্পপোকা ডট কম -এ আপনাকে স্বাগতম......

Related Articles

নীলপদ্ম ১৫তম পর্ব(শেষ পর্ব)

#নীলপদ্ম #১৫তম_পর্ব কালো মুখোশধারী কিছু মানুষ এসে তার হাত পা,মুখ চেপে গাড়িতে তুলে দিশাকে। ঘটনার আকর্ষিকতায় কি করবে বুঝে পাচ্ছে না দিশা। তারা তাকে একটি অন্ধকার...

নীলপদ্ম ১৪তম পর্ব

#নীলপদ্ম #১৪তম_পর্ব মনে মনে একটাই চাওয়া, হৃদয় যাতে ফিরে আসে সুস্থ ভাবে, দরকার হলে ক্ষমা চেয়ে নিবে সে। রুমের মাঝে পায়চারি করছিলো ঠিক তখন দরজা খোলার...

নীলপদ্ম ১৩তম পর্ব

#নীলপদ্ম #১৩তম_পর্ব ঘুমন্ত প্রেয়সীকে নির্দ্বিধায় একটা ফুটন্ত নীলপদ্মের থেকে কম কিছু লাগছে না। সূর্যের স্নিগ্ধ কিরণে তাকে আরোও সুন্দর লাগছে। এও নেশা যে যে সে নেশা...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest Articles

নীলপদ্ম ১৫তম পর্ব(শেষ পর্ব)

#নীলপদ্ম #১৫তম_পর্ব কালো মুখোশধারী কিছু মানুষ এসে তার হাত পা,মুখ চেপে গাড়িতে তুলে দিশাকে। ঘটনার আকর্ষিকতায় কি করবে বুঝে পাচ্ছে না দিশা। তারা তাকে একটি অন্ধকার...

নীলপদ্ম ১৪তম পর্ব

#নীলপদ্ম #১৪তম_পর্ব মনে মনে একটাই চাওয়া, হৃদয় যাতে ফিরে আসে সুস্থ ভাবে, দরকার হলে ক্ষমা চেয়ে নিবে সে। রুমের মাঝে পায়চারি করছিলো ঠিক তখন দরজা খোলার...

নীলপদ্ম ১৩তম পর্ব

#নীলপদ্ম #১৩তম_পর্ব ঘুমন্ত প্রেয়সীকে নির্দ্বিধায় একটা ফুটন্ত নীলপদ্মের থেকে কম কিছু লাগছে না। সূর্যের স্নিগ্ধ কিরণে তাকে আরোও সুন্দর লাগছে। এও নেশা যে যে সে নেশা...

নীলপদ্ম ১২তম পর্ব

#নীলপদ্ম #১২তম_পর্ব নিজের চুল নিজের টানতে ইচ্ছে করছে দিশার। কেনো যে এই কোম্পানিতে চাকরি করতে হলো তার। এসব চিন্তায় যখন মগ্ন সে তখন অনুভব করলো তার...

নীলপদ্ম ১১তম পর্ব

#নীলপদ্ম #১১তম_পর্ব হঠাৎ টুং করে মোবাইলটা বেজে উঠে হৃদয়ের। ছোট নিঃশ্বাস ছেড়ে মোবাইলের লক খুললে দেখে একটা আননোন ইমেইল এড্রেস থেকে একটা মেইল এসেছে। মেইলটা ওপেন...
error: ©গল্পপোকা ডট কম