নীলপরী (পর্ব ০৯)

0
1028

নীলপরী (পর্ব ০৯)
#শান্তনা_ইসলাম_শান্তা
·
·
·
ভয়ে নীলকে পেছন থেকে জড়িয়ে ধরে পরী

পরী বুঝতে পারে নীল ইচ্ছা করেই এরকম করছে,,,পরীর প্রচন্ড রাগ উঠলো মাথায়,, নীলকে ছেড়ে দিয়ে বললো

পরীঃঃশয়তানের হাড্ডি,,,টিকটিকি,,, তেলাপোকা,,ইদুরের বাচ্চা,,,বিড়ালের বাচ্চা,,,,বৃটিশ শয়তান,,রাক্ষস একটা,,

বলছে আর পেছন থেকে নীলের পিঠের ওপর কিল ঘুসি মারছে সমানে)

,

নীলঃঃযা বাবা আমি আবার কি করলাম,,মারছো কেন আমায়??,লাগছেতো,,

পরীঃঃনেকা সাজা হচ্ছে,,,,কি করছেন জানেন না??লুচু একটা,, আমারে বলদ পাইছেন??? জানিতো ইচ্ছে করে এরকম করলেন,?? আআমি আর জিবনে কথা বলবো না,

নীলঃঃএই কান ধরছি,,আমার ভুল হয়ছে সরি,,৷ আর কখনো এমন করবোনা,৷

পরীঃঃআর একটা কথাও বলবেন না,,আমি কিছু শুনতে চাইনা,, ২মিনিটের ভিতর যদি বাসায় নিয়ে না যান,গাড়ি থেকে লাফ দিবো,,,(চিল্লিয়ে বললো)

নীলঃঃএই না না এ কাজ করিস না মা,,,লাফ দিস না,,,,আমি এখনি নিয়ে যাচ্ছি,,,,

,

,,তারপর নীল স্বাভাবিকভাবে গাড়ি চালিয়ে পরীকে ওর বাসার সামনে নামিয়ে দিলো,,,

পরী বাসার ভিতরে ঢুকতে যাবে তখনি নীল পরীকে পেছন থেকে ডাক দিলো,,,,

নীল;ঃপরী,,একটু এদিকে একবার আসো

পরী নীলের কাছে গিয়ে মাথা নিচু করে দাড়িয়ে থোকে বললো

ঃঃজি বলুন

নীল পকেটে থেকে কয়েকটা ললিপপ বের করে পরীর হাতে ধরিয়ে দিয়ে বললো,,

ঃঃ এটা তোমার জন্য পরী

পরীতো ললিপপ পেয়ে খুশিতে নীলকে জড়িয়ে ধরে বলে
এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি মাসে জিতে নিন নগদ টাকা এবং বই সামগ্রী উপহার।
শুধুমাত্র আপনার লেখা মানসম্মত গল্প/কবিতাগুলোই আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে। এবং সেই সাথে আপনাদের জন্য থাকছে আকর্ষণীয় পুরষ্কার।

গল্পপোকার এবারের আয়োজন
ধারাবাহিক গল্প প্রতিযোগিতা

◆লেখক ৬ জন পাবে ৫০০ টাকা করে মোট ৩০০০ টাকা
◆পাঠক ২ জন পাবে ৫০০ টাকা করে ১০০০ টাকা।

আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন: https://www.facebook.com/groups/golpopoka/?ref=share


ঃঃএততো থ্যাংকস,,,

নীলঃঃএই পাগলি কি করছো ছাড়ো কেও দেখলে কি বলবে,,,,

ললিপপ পেয়ে খুশিতে পরী নীলকে যে জড়িয়ে ধরে আছে পরীর খেয়াল ছিলোনা,,,,,,৷
পরী খুব লজ্জা পেলো,,,তাড়াতাড়ি নীলকে ছেড়ে দিয়ে বাসার ভিতরে দৌড় দিলো,,,,

নীল পরীর চলে যাওয়ার দিকে তাকিয়ে থাকলো,,

নীল পরীর পাগলামির কথা ভেবে মুচকি হাসলো,, পরীটা ভিষন অদ্ভুদ একটা মেয়ে ,,কতো অল্পতেই পরীর রাগ ভাঙানো যায়,,,,

নীল নিজের বাসার দিকে রওনা দিল

বাসায় এসে ফ্রেশ হয়ে খেয়ে,,পরীকে ফোন দিলো,,কিছুক্ষণ কথা বলে ঘুমিয়ে গেলো দুজনেই,,,

এভাবেই দুমাস কেটে গেলো,,,,ঝগড়া খুনসুটি অভিমান,,,সব মিলিয়ে দুজনের মাঝে খুব ভালো বন্ধুত্ব হয়ে গেছে

একদিন রাতে পরী নীলকে ফোন দিয়ে বললো

পরীঃঃতোমার সাথে দরকারি কথা আছে ফেসবুকে আসোতো

নীল সাথে সাথে ফেসবুকে গিয়ে মেছেজ করলো

ঃঃবলো কি বলবে

পরীঃঃজানো আজকে একটা ছেলে আমায় প্রপোজ করছে,,আমার সাথেই পড়ে দেখতে দারুন,,তুমি পিক দেখে বলোতো কেম

কেমন,,,যদি তোমার এই রে সরি সরি ভুলে খালি তুমি বলে ফেলছি ডোন্ট মাইন্ড যদি আপনার ভালো লাগে তাহলে ওর প্রপোজ একসেপ্ট করবো,,,,,কারন আমিতো ছোট ওতো বুঝিনা,,আর আপনিতো সিনিয়র আপনি ভালো বুঝবেন,, তারওপর আপনি আমার সব থেকে ভালোবন্ধু,,তাই আপনার থেকে পরামর্শ নিয়েই প্রেম করবো ভাবছি,,,,

(পরী ছেলেটার পিকসহ,,তার বায়োডাটা দিয়ে ইয়া লম্বা একটা মেছেজ পাঠালো নীলকে,,)

নীলের মেছেজের কোনো রিপ্লাই না পেয়ে পরী আবার মেছেজ দিলো,,ঃ’কি হলো কথা বলুন,,,ছেলেটা কেমন লাগলো বলুন,,,,,??আমারতো হেব্বি লেগেছে,,,আপনার কেমন লাগল বলুন তাড়াতাড়ি,,

নীল বা
তবুও উত্তর দিলো না,,,

পরী বারবার মেছেজ করছে, নীল সিন করেও উত্তর দিচ্ছেনা,,,

পরী আবার মেছেজ দিলোঃঃ

ঃঃওহ বুঝেছি চুপ থাকাতো সম্মতির লক্ষন,,,ওকে বন্ধু তাহলে আমি ওর প্রপোজে রাজি হয়ে গেলাম,,,,

নীল এবারে মেছেজ করলোঃঃতুমি আমার সাথে আর কোনদিন কথা বলবেনা,,,,,তোমার নিউ এফ কে নিয়ে সুখে থেকো বাই,,,,(বলেই নীল ফেসবুক থেকে চলে গেলো)

পরী ভাবতে লাগলো নীলের হঠাত কি হলো??ও কেন এমন কথা বললো,,,,পরীর মাথায় কিছু আসছেনা,,,নীলকে ফোন দিলো বাট নীল ফোন ধরলো না,,,অনেকবার কল দেওয়ার পরেও রিসিভ করছেনা,,,,

এবারে ফোন দিতেই ফোন অফ পেলো

পরীর খুব মন খারাপ হয়ে গেলো,,,নীল কেনো এমন করছে পরীর মাতায় আসছেনা,,,ওতো খারাপ কিছু বলেনি,,তাহলে কেন নীল এমনটা করছে,,,একটু পর ,পরী নীলকে অনলাইনে দেখেই মেছেজ করলো,, ঃঃকি হয়ছে আপনার বলবেন আমায়??

ওপাশ থেকেঃঃআমি নীল না,, আমি নেহা বলছি,,

পরীঃঃতোমার ভাইয়ার ফোন তোমার কাছে কেনো??

নেহা ঃঃ ভাইয়া ফোনটা আমার হাতে দিয়ে চলে গেলোতো

নীল ঃঃওহহ

নেহাঃঃভাইয়া এতো রেগে আছে কেনো গো??না খেয়ে দরজা লক করে শুয়ে আছে,,,ওকে কি তুমি কিছু বলিছো???

পরী ঃঃওর সাথে করা মেছেজগুলো দেখো তাহলেই বুঝবে,,,

একটু পর মেছেজ করে বললোঃঃআসলে আমার কি মনে হয় জানো??মনে হয় না,বলতে পারো আমি শিওর,,

পরীঃঃহুম কি মনে হয়?

নেহাঃঃভাইয়া তোমারে ভালোবাসে,,আর খুব বেশি ভালোবাসে

পরীঃঃধুর পাগলের মতো কি বলছো,,,আমরা জাস্ট ভালো বন্ধু,,,,ও আমায় যদি ভালোবাসতো তাহলেতো বলতো তাইনা??

নেহাঃঃভাইয়া এরকমি মুখে কিছু বলতে পারেনা,,বাট আমিতো ওরে ছোট থেকেই চিনি,,আর আমি শিওর ও তোমাশ ভালোবাসে,,নয়তো তুমিই ভাবো অন্য ছেলের সাথে প্রেম করতে চাওয়ার কথা শুনে এতো রাগলো কেনো??ওতো সারাদিন হাসিখুশি ছিলো,,তোমার ঐ

মেছেজের পর থেকেই ও এমন করছে,,,,,আর ভালোবাসলে কি মুখে বলতে হয়??রিদয় দিয়ে বুঝে নিতে হয়,,চোখের ভাষাতেই বোঝা যায়,,মুখে বলার দরকার হয়না,,তুমি ভাইয়ার চোখের দিকে তাকিয়ে দেখো সেখানে তোমার জন্য অফুরন্ত ভালোবাসা খুজে পাবে,,,,যায় হোক শুনো আমি যে তোমারে এসব বলে দিছি ভাইকে বলবেনা,,আমি মেছেজ ডিলেট করে দিচ্ছি ঘুমাবো এখন,, আর যদি পারো আমার ভাইটাকে আপন করে নিও কস্ট দিয়োনা,,ও অন্য কারো সাথে তোমায় সহ্য করতে পারেনা বড্ড বেশিই ভালোবাসে,,,,গুড নাইট মিস্টি ভাবি,,,,,(মেছেজটা দিয়েই নেহা অনলাইন থেকে চলে গেলো)

পরীর নেহার মেছেজ পড়ে অবাক,,,নেহার মেছেজে বলা কথাগুলো পরীকে খুব ভাবাচ্ছে,,এখনো বিশ্বাস করে উঠতে পারছেনা,,,পরী বার বার একটা কথায় মাথায় ঘুরছে ,নীল কি সত্যি ওকে ভালোবাসে,,,??
·
·
·
চলবে…………………

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে