নীলপরী (পর্ব ০৩)

0
754

নীলপরী (পর্ব ০৩)
#শান্তনা_ইসলাম
·
·
·
নীলঃঃ এই ছাড়ো

পরী জোর করেই নীলের গলায় কিস করতে থাকে,,
আর নীল কেপে উঠে বারবার বাধা দিতে লাগে,,বাট কে শুনে কার কথা পরীতো জোড় করেই কিস করছে নীলের গলায়,,
পরী নীলের গলাতে কিস করাতে নীল আর সইতে না পেরে বেন্চের ওপর শুয়ে পেট চেপে হাসতে শুরু করে,,,

নীলঃঃ প্লিজ আমায় ছেড়ে দাও,, আমি আর পারছি না,,,,তোমার ঠোট আমার গলার কাছাকাছি আসলেই আমার অস্থির লাগছে,,আর ছুইলে কেমন যেন লাগছে বুকের ভিতর,,আর খুব সুরসুরি লাগছে,,প্লিজ বাবু আর করোনা,,সব জায়গায় টাচ করো বাট গলাতে না,,,আমি পারছিনা,,৷৷ কথাগুলো বলছে আর হাসছে

পরী নীলের এমন ছটফটানি দেখে বুঝতে পারছে নীলের গলায় প্রচুর কাতুকুতু,,এটা ওর সবথেকে দু্র্বল জায়গা

পরীঃঃএ হারামিটা আমায় বহুত জালাইছে,,, আজকে এরে একটু শায়েস্তা করা যাক,, (মনে মনে)

পরীঃঃঠিক আছে আর করবোনা,,,

নীলঃ ধন্যবাদ জান,,,বলে উঠতে লাগে,,,,,,,ওমনি পরী দুহাতে নীলের মাথাটা টেনে ভ্্যামপেয়ার এর মতো করে নীলের গলায় কিস করতে থাকে,,,,,,

নীল ছটপট করতে থাকে,,,খুব কস্টে নিজেকে ছাড়িয়ে

নীল;ঃ তুমি এমন কেনো বলোতো??যেটা মানা করি ওটাই বেশি করো,,,,,,এই নিরীহ বাচ্চার ওপর কি একটুও দয়া হয়না তোমার?????আমারে এভাবে অত্যাচার করতে বাধছে না তোমার,,,,???

পরীঃঃ আমিতো আদর করছি আর তুমি অত্যাচার বলছো??

নীল ঃঃ অত্যাচার বললে ভুল বলা হবে,,রীতিমতো আমায় রেফ করছো,,,এতো দিন জানতাম ছেলেরা রেফ করে,,এই প্রথম বুঝলাম এটা ভুল কথা,,,,আমায়তো আমার জি এফ আমায় রেফ করছে,,,,আমার গলাটাতে কামড় দিয়ে বারোটা বাজায় দিছে,,,ঐ ডাইনিদের মতো আমার গলা নিয়ে পড়লে কেনো??
এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি মাসে জিতে নিন নগদ টাকা এবং বই সামগ্রী উপহার।
শুধুমাত্র আপনার লেখা মানসম্মত গল্প/কবিতাগুলোই আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে। এবং সেই সাথে আপনাদের জন্য থাকছে আকর্ষণীয় পুরষ্কার।

গল্পপোকার এবারের আয়োজন
ধারাবাহিক গল্প প্রতিযোগিতা

◆লেখক ৬ জন পাবে ৫০০ টাকা করে মোট ৩০০০ টাকা
◆পাঠক ২ জন পাবে ৫০০ টাকা করে ১০০০ টাকা।

আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন: https://www.facebook.com/groups/golpopoka/?ref=share


পরীঃ
কি বললে আমি তোমায় রেফ করছি???আমি ডাইনি???ওকে যাও আর জিবনে টাচ করবোনা তোমায়,,,,বাই,,,,,,

বলেই উঠে হাটতে লাগে,,,,নীল উঠে দৌড়ে গিয়ে ওর সামনে দাড়ায়,,,,

কান ধরে বলতে থাকে

নীলঃঃজান সরি আমার ঘাট হয়েছে,,আমি আর বলবোনা,আমিতো মজা করছিলাম ,তুমি তো ডাইনি না,,তুমি আমার জান পাখি,,কতো কিউট একটা মেয়ে, আর তুমি কি রেফ করতে পারো বলো,,,রেফ কেমনে করতে হয় তুমিতো এটাই বুঝোনা,,,,তুমিতো আমার সোমা বাবু,,,কথায় কথায় এতো রাগগ করো কেন?

পরীঃঃ(চুপ)

নীল জান কথা বলো,, এই দেখো কান ধরছি,, উঠবস করছি,,,

পরীঃঃঅন্্য দিকে মুখ ঘুরিয়ে আছে

নীলঃঃকি রাগরে বাবা,,, নিজেই ওমন করবে আবার কথায় কথায় নিজেই রাগ করবে,,এবারে কি তোমার রাগ ভাঙাতে পায়ে ধরতে হবে???

পরী ঃঃ হুম ধরো( পা এগিয়ে দিয়ে)

নীলঃঃ কি মেয়েরে,,আল্লাহ তুলে নাও আমায়,,,আমি ভাবলাব এটা৷ বললে তুমি পা সরিয়ে বুকে টেনে নিবে,,তা না করে পা এগিয়ে দিচ্ছো,,বাহ কপাল গুনে একটা জি এফ পাইছি,,এমন কপাল সবার হয়না,,,,,বস্তা বস্তা রাগ আর জিদে ভরপুর,,,,দাও দাও তোমার পায়েই ধরি বলেই ধরতে যাবে
ওমনি

পরীঃঃঠাসটাস করে চর দিবো,,আমি বললেই ধরবে নাকি??মজা করে ধরতে বলছিলাম

নীল ঃঃতাও ভালো,,,রাগ কমছে তাহলে মেডাম,

পরীঃ না কমেনি,,

নীলঃঃতাহলে??? কি করতে হবে??

পরীঃঃ গলায় কিসি করতে দিতে হবে

নীলঃঃওরে ভাই,,

পরীঃঃ আমি ভাই,

নীলঃঃথুরি ওরে বউ,,,তোর পায়ে পরি, এটা চাস না,,,,জান একটু বুঝার চেস্টা করো,,তুমার লিপ গার অবদি আসলেই আমার শরীর কাপছে,,গলায় কেমন লাগছে,,,আমার হার্টবিট কতো বেড়ে যাচ্ছে,মনে হচ্ছে বুক থেকে ফেটে বের হয়ে আসবে

পরীঃঃতাই আমি তোমার হার্টবিট শুনবো,,,(নবলেই নীলকে জড়িয়ে ধরে নীলের বুকে মাথা রেখে ওর হার্টবিট শুনতে লাগলো,,,,

পরীঃঃএকদম চুপটি করে দাড়ায় থাকবে একটা কথাও বলবেনা,,আমায় শুনতে দাওতো ভালো করে,,,,,,,
২ ঘন্টা পর
নীলঃঃ,, জান

পরীঃঃহুম বলো

নীলঃঃ এবারেতো ছাড়ো,
,,আর কতক্ষণ এমন করে হার্টবিট শুনবে

পরীঃঃজানিনা,,সারাজিব­ন শুনবো,,,খুব ভালো লাগছে আমার শুনতে,,,শান্তি লাগছে,,,আজকে বুঝতে পারছি মেয়েদের সব থেকে নিরাপদ ও শান্তিময় জায়গা হলো ছেলেদের বুক,,,৷ সারাজিবন এখানে মাথা রেখে থাকতে চাই আমি

নীলঃএকটা কথা বলবো??

পরীঃঃ বলো,,??

:::আমার বুকে মাথা দিতে তো তোমার শান্তি লাগে,, তাই না???

পরীঃঃহুম,, তো

নীলঃঃতো আমারোতো তোমার বুকে মাথা রেখে শান্তি পেতে ইচ্চা করছে,,

পরীঃঃকি বললে,,,,(বুকে থেকে মাতা তুলে বললো)

নীলঃঃকি বললাম বুঝোনা??নারী পুরুষ সমান অধিকার আছে,,সো তুমি আমার বুকে মাথা রাখতে পারলে,, আমারোতো অধিকার আছে তোমার বুকে মাথা রেখে হার্টবিট শোনা,,

পরীঃনা নাই,,লুচু শয়তান একটা,সরো

নীল,,ঃঃ আমি মুখে বলাতে লুচু বলছো,,আর তুমিতো প্র্যাকটিক্্যালি করছো,,তুমিতো বর লুচ্চি,,,

পরীঃঃঐ চুপ,,বেশি বকলে গলা টিপে মেরে ফেলবো,,,তোমারে টাচ করার অধিকার আমার আছে,,বাট আমায় টাচ করার অধিকার নাই

নীল কিছু বলতে যাবে তার আগেই

পরীর হটাত নীলের ঘড়ির দিকে চোখ যায়,,

পরীঃঃওহ মাই গড আমি শেষ,,বিকেল,,৪ টা বেজে গেছে,,আমি রোজ ২ টায় বাসায় চলে যায়,,,এতো লেট হয়ে গেলো,, আমার মা আজ চেলাকাঠ ভাংবে,,তোমার সাথে এতোদিন পর ঘুরতে আসায় আমার ভুল হয়ছে,,আজ আমি শেষ,,বাসায় যাবো,,চলো তারাতাড়ি,,

নীলঃঃহুম যাবোতো চলো,,

পরীঃচলো

নীল ঃঃদাড়াও দারাও তোমার গালে কি যেনো লেগে আছে,,,

পরীঃঃকয় কোথায় লাগছে?

নীলঃঃএই যে এখানে,, বলেই,,চট করে পরীর ঠোটে কিস করে,,

পরীঃঃএটা কি হলো??শয়তান হারামি,,পচা,,বাজে লোক একটা,,,বলেই নীলের পিঠে কিল মারতে লাগে

নীল ঃঃআর একটা মারলে কিন্তু এবারে ঠেসে ধরে কিস করতে থাকবো,,আর একবার ধরলে ১ঘন্টার আগে ছারবো না,,

পরী মার বন্ধ করে চুপ হয়ে গেছে

নীলঃঃ এইতো গুড গার্ল,,,চলো এবারে যাওয়া,,যাক

পরীঃঃহুম,,,

তারপর দুজনে অটোটে উঠলো,,,পরী আর একটা কথাও বললো না,,,,

ওরা যেতে থাকুক ততোক্ষণে

এদের পরিচয় দেওয়া যাক,,,পরীর পুরো নাম হলো মুনতাহা পরী,,ও অনার্স ২য় বর্ষে পড়ে,,বাবা মার আদরের একমাত্র মেয়ে,,,,আর নীলের পুরো নাম আকাশ রহমান নীল,,মাস্টার্স পড়ে আর পাশাপাশি ওর নিজে একটা প্রাইমারি স্কুল আছে,,,স্কুলের হেডমাস্টার,,

নীল আর পরী দুজন দুজনকে পাগলের মতো ভালোবাসে,,,,পরী খুব রাগি জেদি মেয়ে,,,কথায় কথায় রাগ করে,,,,আর নীল সব সবসময় পরীকে খেপাতে থাকে,,,দেড় বছরের রিলেশন ওদের,,,এই দেড় বছরে কতোবার যে ব্রেকাপ হয়ছে,,তা গুনে শেষ করা যাবে না,,,প্রতি ঘন্টায় ওদের ব্রেকাপ হয়,,,ঘন্টা বললে ভুল হবে,প্রতি সেকেন্ডে ব্রেকাপ হয়,,আবার ঠিক ও হয়ে যায়

রাস্তায় নীল নেমে গেলো,,আর পরী পরীর বাসায় চলে গেলো,,,বাসায় ঢুকতেই,,,

ঃঃঠাসঠাসঠাঠাস
·
·
·
চলবে…….………….

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here