নিশি কাব্য প্রথম পর্ব

0
1553

নিশি কাব্য প্রথম পর্ব-
নীশির কথা শুনে খানিকটা চমকে উঠলাম।মনে হল যেন বুঝতে পারছিনা কি বলছে।
ঘটনার শুরু এক দিন আগে।অফিস থেকে বাসায় এসেছি,হঠাৎ মা এসে জোর করে আরেক বাসায় বেড়াতে নিয়ে গেল।সেটা যে মেয়ে দেখার জন্য সেটা বুঝলাম যখন ভেতর থেকে শাড়ি পড়ুয়া কলেজে পড়ে এমন বয়সি একটা মেয়ে এসে আমার মা-কে সালাম করল।নীশিকে দেখে আমি সেখানে কোন ধাক্কা খাইনি,কিন্তু বাসায় এসে যখন ভাবতে বসেছি পুরো ঘটনাটা কি ঘটল -তখন দেখি-নীশিকে আমার বেশ পছন্দই হয়ে গেছে।
মেয়েটার মাঝে কিছু একটা আছে-তার কথা বলার ধরন,হাটা-চলা,তাকানো -সব কিছুতে কেমন যেন একটা আকর্ষণ কাজ করে।আমি ঠিক বোঝাতে পারব না।এরকম মেয়ের পিছেই বোধহয় ছেলেদের লাইন পড়ে যায়।তবে নীশির আমাকে পছন্দ হয়েছে কিনা সন্দেহ,কারন আমি মোটেই দেখতে স্মার্ট নই,বেশ-ভুষা-চুল-দাড়ি সবই উল্টা-পাল্টা।এই মেয়ের সাথে আমার বিয়ে হবে না -এমনটাই বার বার ভয় লাগছিল।
ছুটির দিন,সকালে,ঘুমিয়ে আছি,হঠাৎ নীশির ফোন
-আপনি কি একটু আসতে পারবেন? মামা ফুচকা হাউজে বিকাল ৫টায়।
এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার।
আমাদের গল্পপোকা ফেসবুক গ্রুপের লিংক: https://www.facebook.com/groups/golpopoka/



আমি সময়ের অনেক আগে চলে আসলাম অপেক্ষা করছি নীশির জন্য। অপেক্ষা মূহুর্ত এতো মধুর হতে পারে আমার জানে ছিল না।
নীশি আসার পর কিছু টুকটাক কথা-বার্তা হল মা কেমন আছে?আমার কেমন মেয়ে পছন্দ,ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি-এইসব।সবগুলই যে সৌজন্যতাবশত জিজ্ঞেস করা সেটা পরে বুঝেছিলাম।
-আপনি কি কিছু ভাবছেন?
নীশির প্রশ্নে সম্বিত ফিরে পেলাম।
-নাহ,কিছু ভাবছিনা।
-আসলে আমি খুবই দু:খিত।সবারই তো নিজস্ব একটা পছন্দ থাকে……!
আমার পছন্দ গুলো একটু অন্যরকম।
এসব বলে বেশ কিছু জিনিস আমাকে নরম গলায় বোঝাল।
-আমি আসলে যেরকম ছেলে প্রত্যাশা করি সেরকম ছেলে আপনি নন,হয়ত আপনি অনেক ভাল,অনেক গুন আছে আপনার।কিন্তু বোঝেনই তো। দেইখেন,সামনে আপনি আমার থেকে অনেক ভাল একটা মেয়ে পেয়ে যাবেন,বাজি।
আমার কেমন যেন লাগছিল।গত তিন দিনে নীশিকে
নিয়ে কত স্বপ্নই না দেখেছি।জীবনে কখনো কোন মেয়েকে নিয়ে ভাবার সুযোগ হয়নি,সেজন্যই কি এত খারাপ লাগছে?
-আপনি এটুকু করবেন তো আমার জন্য?
-আপনি চিন্তা করবেন না।আমি আপনার পরিবারকে জানিয়ে দেব-মেয়ে আমাদের পছন্দ হয়নি।
-আপনাকে কি বলে যে ধন্যবাদ দেব।
নীশি এক মুহুর্ত কি যেন ভাবল: আমার পরশু এক্সাম।তাই আর বসতে পারছিনা।সরি।
নীশি চলে যাচ্ছে,আর আমার ভিতরে সবকিছু উলোট-পালোট করে দিয়ে যাচ্ছে।তাকে কি এত সহজে ভুলতে পারব?আমার কি কিছুই করার নেই শুধু চেয়ে থাকা ছাড়া?
হঠাৎ আমার ভিতরে কি হল জানিনা, নীশি উঠে চলে যাবে-এমন সময় বললাম:
-আপনার সাথে তো আমার আর কখনো দেখা হবে না।আমি কি একটু আপনার হাতটা ধরতে পারি-খুব অল্প সময়ের জন্য?

নীশি যেন একটু অপ্রস্তুত হয়ে গেল।তবে বুদ্ধিমতী মেয়ে।খুব দ্রুতই নিজেকে সামলে নিয়ে বলল: সরি……..এর বেশি কিছু বলতে চাইনা।আপনি বরং আমাকে একটা রিক্সা ডেকে দিন।

নীশি রিক্সা করে চলে যাচ্ছে………….
আর পিছনে জলে টলমল ঝাপসা চোখে আমি তাকিয়ে আছি………….
চলবে ?
লেখা-Rudro Khan Himu
২য় পর্বের লিংক-https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1689937551069939&id=1366555800074784

এখনই জয়েন করুন আমাদের গল্প পোকা ফেসবুক গ্রুপে।
আর নিজের লেখা গল্প- কবিতা -পোস্ট করে অথবা অন্যের লেখা পড়ে গঠনমূলক সমালোচনা করে প্রতি সাপ্তাহে জিতে নিন বই সামগ্রী উপহার।
শুধুমাত্র আপনার লেখা মানসম্মত গল্প/কবিতাগুলোই আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে। এবং সেই সাথে আপনাদের জন্য থাকছে আকর্ষণীয় পুরষ্কার।

▶ লেখকদের জন্য পুরষ্কার-৪০০৳ থেকে ৫০০৳ মূল্যের একটি বই
▶ পাঠকদের জন্য পুরস্কার -২০০৳ থেকে ৩০০৳ মূল্যের একটি বই
আমাদের গল্পপোকা ফেসবুক গ্রুপের লিংক:
https://www.facebook.com/groups/golpopoka/

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here