অদ্ভুত ভালোবাসা season 2  পর্ব:৯

0
723

অদ্ভুত ভালোবাসা season 2  পর্ব:৯
writer :অন্না
,

,

,

,
নীরা নিলয়ের কোল থেকে নেমে যায়,,,।,
,
নিলয়:::: সরি নীর পাখি,
,
নীরা :::বাসায় চলো আজ তোমার হবে….
,
নিলয়::: কি হবে? আদর দিবা?
,
নীরা;::: চুপ,,,,
,
নিলয়::: নীর পাখি,,,,,
,
নীরা:::,,,,,,
,
নিলয়:: ও,,,,,,,, নীর পাখি
,
নীরা::: কিহ্???
,
নিলয়::: i love you
,

নীরা::::…..
,
নিলয়;::: নীর পাখি,,,,
,
নীরা:::….

নিলয়::: নিরু,,,,,
,
নীরা::: মরে গেছে নিরু,,
,
নিলয়::: তাই?? তাহলে তুমি কে শাকচুন্নি??
,
নীরা:::: আর একটা কথা বললে একটা বারি দিয়ে মাথা ফাটিয়ে দিবো,,,
,
নিলয়::: বিয়ের পর থেকে এই কথা আমার হাজার বার বলেছো কিন্তুু একবার ও দাও নাই,,,
,
নীরা::: তাই??? তাহলে তো এখনি দিতে হয়,,,
,
নীরা রাস্তা থেকে একটা ইট তুলে নিলয়ের দিকে দৌড় দেয়,,,
,
নিলয়::: এই নীর পাখি কি করছো কি,,,, আমায় মেরে ফেলবে নাকি???
,
নীরা::: কেনো বারি খাবার তো খুব ইচ্ছা,,, খাবে না এসো এসো,,,,
,
নিলয় নীরার সামনে এসে দাড়ায়,,
,
নিলয়::’ তোর হাতে মরতেও রাজি আছি,,, ,বলে নীরার হাত টা টেনে ধরে
,
নীরা::: পাগল হয়ে গেলে,,,
,
নিলয়::: সে তো অনেক আগেই হয়েছি,,,, তোকে ভালোবেসে,,,, কথা দে কখনও আমায় ছেরে যাবি না,,,,
,
নীরা ইট টা ফেলে দিয়ে নিরবকে জরীয়ে ধরে,,,,
,
নিলয়::: এই জন্যই তোকে এতো ভালোবাসি পাগলি,,, কোনো কথা মুখে বলিস না ভালোবাসা দিয়ে বুঝিয়ে দিস,,,,
,
নীরা::: অনেক হয়েছে এখন তারাতারি বাসায় চলেন,,, আজ তো,,,,
,
নিলয়:::হা,,,, হ,,,, হাঁচ্ছি,,,,,,
,
নীরা::: ব্যাস হয়ে গেলো,,,,,,
,
নিলয়::: নীর পা,,,,পাখ্খি,,,,,
,
নীরা::: হ্যা এই পাখ্খি টা শোনাই বাকি ছিলো,,, চলো বাসায় এত্ত বড় বড় ইন্জেকশন নিয়ে দিবো
,
নিলয়’::: এই একদম ঠিক হচ্ছে না কিন্তুু,,,,
,

বাসায় এসে নিলয় হাঁচির পর হাঁচি দিয়েই যাচ্ছে,,,,
,
নীরা::: কি গে আর ভিজবে না,, এখনও তো বৃষ্টি হচ্ছেই,,,
,
নিলয়’::: নীর পাখি,,,, কাছে এসো
,
নীরা::: কি???
,
নিলয় নীরার কপাল এ হাত দিয়ে দেখছে নীরার জ্বর আসছে নাকি,,
,
নিলয়::: নীর পাখি,,, হাঁচি,,,,,, তোমার শরীর গরম লাগছে,,, তারাতারি আমাকে জরীয়ে শুয়ে পরো,,,,
,
নীরা::’ মোটেই না, আমি ঠিক আছি,,,,
,
নিলয় উঠে একটা চাদর এনে নীরার শরীরে পেচিয়ে দিলো,,
,
নিলয়::: চুপ করে বসে থাকো,আমি আসতেছি
,
নীরা::: আরে,,,, কই যাচ্ছো?
,
নিলয় এক গ্লাস গরম দুধ এনে নীরার হাতে ধরীয়ে দেয়,,,
,
নীরা::: আমি খাবো না,,
,
নিলয়::: কি বললে শুনি নাই,, আবার বলো,,,
,
নীরা রাগে গজগজ করতে করতে গ্লাস ফাকা করে নিলয়ের হাতে ধরীয়ে দেয়,,,
,
নিলয় ::: এখন গিয়ে,,,,, হাঁচ্ছি,,,,, বিছানায় কাঁথা মুরিয়ে শুয়ে পরো,,,,
,
নীরা::: কেনো?
,
নিলয়::: কেনো মানে জ্বর আসতে পারে,, ঘুমোলে আর কিছু হবে না,,,,যাও
,
নীরা::: কে বলেছে তোমায় ঘুমাইলে আর জ্বর আসে না,,, আর অসুস্থ আমি না তুমি,,, তুমি যাও আমি াআসতেছি,,,,
,
নিলয়::: রুম থেকে বের হলে খবর আছে,,, যাও
,
নীরা::: তুমি আসলেই
,
নিলয়::: গুন্ডা আমি ভালো করে জানি,
,
নীরা;::: ফরিদা আপা,,,,, ফরিদা আপা,,,,
,
ফরিদা::: জ্বি ভাবি বলেন,,,
,

,
নীরা গিয়ে নিলয়ের পাশে বসে নিলয়ের মাথাটা নিজের কোলে তুলে নেয়,,, নিলয় নীরার পেটে মুখ গুজে নীরার কোমড় জরীয়ে শুয়ে পরলো,,,
,
নিলয়::: নীর পাখি,,,,,
,
নীরা::: কি?.
,
নিলয়:: তুমি কি ইউস করো
,
নীরা::: গাধার মতো প্রশ্ন করোনা,,, কি ইউস করি মানে কি?
,
নিলয়::’ কিছুনা
,
নীরা::: তুমি?
,
ফরিদা::: ভাবি,,,,,,
,
নীরা::: আসেন,,, এগুলো এখানে রাখেন,,,
,
ফরিদা জিনিসপত্র রেখে চলে গেলো,,
,
নীরা::: এই যে,,,
,
নিলয়:::,,,,,,,
,
নীরা::: শোনোনা,,,,,,,,
,
নিলয়’::::,,,,,
,
নীরা আর নিলয়কে ডাকলো না নিলয়কে বালিশে শুইয়ে দিয়ে, হালকা গরম সরিষার তেল নিলয়ের হাতে পায়ে, বুকে মালিশ করে দিলো,, তারপর ওষুধ খুলে নিলয়ের হাতে ধরীয়ে দেয়
,
নীরা::: জলদি খেয়ে নাও,,
,
নিলয়::: নাহ্ মুখ তেতো হয়ে যায়,,,,
,
নীরা নিলয়ের কানে ফিসফিসিয়ে বলে
,
নীরা::: খেয়ে নাও,মুখ মিষ্টি করে দিবো,,,
,
নিলয় মুচকি হেসে ওষুধ খেয়ে নেয়,,,
,
নীরা সব ঠিকঠাক করে ওরনা টা খুলে রেখে নিলয়ের কম্বলের মধ্যে ঢুকে পরে,,,
,
নিলয়::: নীর পাখি,, এভাবে আমার কাছে এসেছো কেনো? আমার নিজেকে কন্ট্রোল করতে কষ্ট হয় যে,,,
,
নীরা::: চুপ্
,
নিলয় চুপ হয়ে যায়,,,নীরা নিলয়কে জরীয়ে নিজের বুকের মধ্যে নিয়ে নেয়,,,
নিলয় ছোট্ট বাচ্চার মতো নীরার কোলের মধ্যে গুটিশুটি মেরে নীরাকে জরীয়ে শুয়ে পরে,,,
,
নিলয়ের ঠান্ডা টা বেরে আর সাথে জ্বর ও এসে গেছে ,,, নীরা তো পাগল হয়ে আছে নিলয়কে নিয়ে,,,, নিলয়ের কপালে জলপট্টি দিয়ে দিচ্ছে,,, নিলয় জ্বরে কেপে কেপে উঠছে,,,, নিলয়ের অবস্থা দেখে নীরা কান্না করে দিয়েছে,,,
,
তিশা ::: ভাবি গো কান্নার কি আছে,,, অসুস্থ হয়েছে ঠিক হয়ে যাবে,,,
,
মামুনি ::: আরে পাগলি কিচ্ছু হবে না,, সব ঠিক হয়ে যাবে,,,,
,
নীরা;;:: দেখোতো কেমন করছে ও,আমি হাজার বার বললাম ভিজতে হবে না, আমার কথা একটাও শোনে না , দেখো কেমন কষ্ট পাচ্ছে,,,,,
,
মামুনি ::: আরে কিচ্ছু হবে না, ডাক্তার তো বললো রাতের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে,,, এভাবে কাদিস না মা,, সকালে আবার তুই বকা খাবি,,,
,
নীরা ;:: তোমরা গিয়ে শুয়ে পরো আমি আছি দেখছি,,,
,
সবাই চলে গেলো,,, নীরা বসে নিলয়ের মাথায় জলপট্টি দিতে লাগলো,, এর মধ্যে নিলয় চোখ আধো আধো খুলে নীরাকে দেখতে লাগলো,,
,
নীরা::: খুব মজা লাগছে তাই না? লাগবেই তো
,
নিলয় হাত বের করে নীরাকে বুকের মধ্যে নেবার জন্য ইশারা করে,,, নীরা নিলয়ের বুকের মধ্যে ঢুকে পরে,,,,
,
একটু পরে নীরা উঠে নিলয়ের মাথায় জলপট্টি দিতে লাগলো,,,,
,
সকালে নীরা উঠে নিলয়ের জন্য হালকা নাস্তা বানিয়ে এনে দেখে নিলয় রেডি হচ্ছে
,
নীরা;;: কই যাবে তুমি?
,
নিলয়:::নীর পাখি অফিসে যাবো একটু,,, জরুরি কাজ আছে,,, যাবোবো আর আসবো,

,

নীরা::: না যাওয়া যাবেনা
,
নিলয়::: প্লিজ নীর ১ ঘন্টা টাইম দাও,, আর আমি তো এখন ঠিক আছি,,,,
,
নিলয় নীরার কোনো কথাই শুনলোনা বেরিয়ে পরে,,,,
,
,
,
,
তিশা::: কি গো ভাবি মন খারাপ কেনো?
,
নীরা::: এমনি
,
তিশা::: তাই? চলে আসবে তো মন খারাপ করে আছো কেনো?.
,
নীরা::: তিন ঘন্টা হতে চললো কোনো খোজ নাই,,, আজ আসুক বাড়িতে,,,,
,
এর মধ্যে কলিং বেল বেজে উঠে
,
তিশা::: যাও তোমার গুন্ডা চলে এসেছে,,,
,
নীরা দৌড়ে গিয়ে দরজা খুলেই থমকে দাড়ায়,,,,
,
নিলয় মুনিরাকে কোলে নিয়ে দাড়িয়ে আছে,,,,
,
,
continue ♥♥♥

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here