4.3 C
New York
Tuesday, November 19, 2019
Home অদ্ভুত ভালোবাসা  অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:-১৩

অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:-১৩

অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:-১৩
—-অন্না

,
নিলয় রুমে এসে নীরা বলে চিৎকার করে উঠে আর নীরা মাথা তুলে তাকিয়ে দেকে বড়সরো ধাক্কা খায়,

নীরার সামনে দরজায় হেলান দিয়ে একটা ছেলে দাড়িয়ে আছে আর নিলয় নীরার সামনে দাড়িয়ে ওর দিকে বিস্ফোরিত দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে,,

l, নিলয়কে দেখে নীরার মনেই নাই যে ও শাড়ি পরতেছিলো,,আর ছেলেটি এখনও ওইভাবেই নীরাকে দেখে যাচ্ছে,,, নীরা কি করবে বুঝতে নে পেরে নিলয়কে জরিয়ে ধরে,,
,
নিলয় ছেলেটির দিকে তাকানো মাত্রই ছেলেটি চলে যায়,, আর নিলয় নীরাকে বিছানায় ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়ে দরজা লক করে দেয়,,,
,
নীরা::: আমি আসলে দেখি নাই ওই ছেলেটা এখানে এসে দারিয়ে আছে,, আমি তো শাড়ি পরতে ব্যাস্ত ছিলাম ,
,

,
নিলয়:::: কি হচ্ছিলো কি এটা হ্যা,চোখে দেখো না ? চেন্জ করার সময় যে দরজা লক করতে হয় সেটা বাচ্চারাও জানে আর তুমি জানো না?? ইডিয়েট এর মতো সবসময় না করলে হয় না ? কত্ত জালাবে তুমি আমায়?
,
নীরা::: আমি সত্তি দেখিনাই ওই,,,
,
নিলয়::: কি দেখোনাই হ্যা কি দেখোনাই,,,সবাইকে দেখাতে চাও তুমি খুব সুন্দরী?
,
নীরা :::: , আপনি ছাড়া রুমে কোনো ছেলে আসে না তো,, তো আমি কিভাবে জানবো? আর আপনি আমায় কি ভাবেন হ্যা আমি আমার শরীর বাহিরের মানুষকে দেখিয়ে বেড়াই?
,
নিলয় ::: তা ছাড়া কি হ্যা, কেউ এতোটা unresponsive কি করে হয় হ্যা,, সামনে কেউ দাড়িয়ে থাকলে দেখা যায় না,,, আমি চাই আমার নীর কে শুধু আমি দেখবো শুধু আমি কিন্তুু তুমি????
,
নীরা ::: আমি কি?

,
নিলয় কিছু না বলে ড্রয়্যার থেকে কাচি বের করে নীরার গা থেকে শাড়ি খুলে নিয়ে কাচি lদিয়ে শাড়ি কুচিকুচি করে কেটে ধপ করে দরজাটা লাগিয়ে চলে গেলো,,, নীরা কিছু বলে না নিরবে কান্না করতে থাকে,,, একটুপর নিলয় রুমে এসে অফিসের জন্য রেডি হয়,,,নীরা ফুপিয়ে ফুপিয়ে কেদেই চলেছে, নিলয় কিছু না বলে নাস্তা না করেই চলে যায়,,, একটু পর তিশা আসে,,,
,
তিশা;::: কি হইছে ভাবি কাদছো কেনো??আর শাড়ি কাটছো কেনো?
,
নীরা::: তোমার ভাই বকেছে, :'( আর তোমার কি ধারনা আমি শাড়ি কেটেছি???
.
তিশা:: অবশ্যই না, কারন আমি জানি আমার ভাই ৃছারা একাজ কেউ করতেই পারে না,,, তো কি হয়েছিলো শুনি,,
,
নীরা :::গোসল করে রুমে এসে শাড়ি পরছিলাম আর কোথা থেকে একটা ছেলে এসে রুমের বাহিরে থেকে দাড়িয়ে আমায় দেখছিলো কিন্তুু আমি তো দেখিনাই,,,এতেই তোমার ভাই আমায় :'( :'( :'(
,
তিশা::: বলোকি তোমায় ওভাবে দেখছে?? ছেলেটা এখানে এসে এসব করে গেছে?
,
নীরা ::: আরে আমার শরীরে শাড়ি পেচানো ছিলো,, আর ছেলেটা কে?
,
তিশা::: অয়ন ভাইয়া,,
,
নীরা::: উনি কে?
,
তিশা::: কে আবার তোমার গুন্ডার পেয়ারে জানের বন্ধু,,, যখন তখন বাসায় চলে আসে, অসহ্য
,
নীরা::: এতে আমির কি দোষ বলো,, তোমার ভাই শুধু শুধু আমায় বকে সব সময়,,,
,
তিশা::: জানোই তো ভাই এমন তো এখন বসে কান্না করবা নাকি বাহিরে যাবে,,, ভাইয়ার জন্য নাস্তা নিয়ে যাবে,,,,
,
নীরা::: আমি একা যাবো না আমায় আবার বকবে ,,
,
তিশা::: আমি বাবা তোমাদের মধ্যে যেতে পারবো না,, কাবাবমে হাড্ডি হবার কেনো ইচ্ছা আমার নাই,,, আমার কলেজ আছে যেতেই হবে,,,,
,
নীরা:::: ঠিক আছে যাও,, আমি কিছু রান্না করে ওর জন্য নিয়ে যাচ্ছি,,,
,
তিশা ::: ঠিক আছে,, ওহ্ আর এই ফোন টা তুমি রাখো ভাই আমায় কিনতে দিছিলো,,, সকালে ডেলিভারি পাইছি,,, আমি সব ঠিক করে দিছি কোনো প্রয়োজন লাগলে আমায় যেনো ফোন দিও না তোমার গুন্ডাকে ফোন করো,,ঠিক্ক আছে??
,
নীরা::: ঠিক আছে,,
,
তিশা চলে গেলে নীরা রুম থেকে বের হতে যাবে ঠিক তখনই অয়ন রুমে ঢোকে,,,
,
অয়ন::: হাই নীরা,,,
,

গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন =>

 

 

 

 

নীরা : আসসালামুয়ালাইকুম ভাইয়া ,
,দ
অয়ন::: ওয়ালাইকুম আসসালাম,,, আমার নাম ধরে ডাকতে পারো ভাইয়া বলতে হবে না,,,
,
নীরা::: না ভাইয়া ই ঠিক আছে,,,আর ও তো অফিসে চলে গেছে,,,
,
অয়ন ::; জানি তো আমি তোমার কাছে আসলাম তোমার সাথে কিছু কথা বলতে,
,
নীরা::: কি কথা,,,
,
অয়ন’::: তুমি খুব সুন্দরী নীরা নিলয় তোমার সাথে যা করছে খুব খারাপ করছে, আমি জানি তুমি ওকে ভালোবাসোনা, আর তুমি ওর সাথে থাকতেও চাও না ,, সো
তুমি যদি চাও আমি,,,
,
নীরা ::: সো? শোনেন ভাইয়া বাঙালি মেয়েদের বিয়ে একবারই হয় সেটা যেভাবেই হোক না কেনো, আর নিলয় আমার সাথে যাই করুক সেটা আমি বুঝে নিবো,,, আপনি না ওর বন্ধু,,, বন্ধু হয়ে বন্ধুর ঘর ভাঙতে আসছেন? দেখুন এ নিয়ে আপনি 2nd time আমার সাথে কথা বলতে আসবেন না, আর এই কথা গুলো যদি ও জানতে পারে তো কি হবে জানেন???

,
অয়ন::: আরে আমি তো তোমার ভালোর জন্য কথা টা বললাম,তুমি যদি না চাও তো ঠিক আছে,,, কিন্তুু তোমার মতো নীরা ২-৪ টা নিলয়ের লাইফ এ আসছে আর গেছে,,,তুমি ভালো মেয়ে তাই তোমায় সাহায্য করতে আসলাম মাত্র,,,
,
নীরা কোনো কথা না বলে রুম থেকে বেরিয়ে আসলো,,,,

নীরা::: সত্তি কি তাহলে আমার কোনো অস্তিত্ব নাই ওর জীবনে সত্তি নিলয়ের লাইফ এ আমার মতো অনেক মেয়ে এসছে??? না না ও আমাকে খুব ভালোবাসে ও এসব কাজ করতেই পারে না,, কিন্তুু ওর বন্ধু মিথ্যা কথা কেনো বলবে?? কিন্তুু,,,, নাহ্ আর ভাবতে পারছি না ,,,
,
মুনিরা::: ভাবি একা একা কি এতো ভাবছেন,,, আসেন আমার ফটোগ্রাফ দেখবেন,,,
,
নীরা:;: না আমার ভালো লাগছে না,,
,
মুনিরা::: আরে ভাবি আসেনই না,,,
,
মুনিরা নীরার হাত ধরে টেনে নিয়ে গেলো ওর রুমে,,, তারপর নিজের ট্যাব বের করে নিজের বেশ কিছু ছবি দেখালো,,, তারপর নিলয় আর মুনিরার একটা ছবি বের করে তারাতারি ট্যাব ওফ করে দেয়,,
,
মুনিরা::: আর ফটো নাই ভাবি,,,
,
নীরা::: বন্ধ করলা কেন আমি ওই ছবি গুলা দেখবো,,
,
মুনিরা::: না ভাবি এগুলো দেখতে হবে না, আজ এগুলো শুধুই সৃতি,,,
জানো ভাবি আগে তো নিলয় আমায় ছারা কিছু বুঝতো না, কিন্তুু এখন তুমি আসাে পর,,,,,
,
নীরা মুনিরার হাত থেকে ট্যাব নিয়ে ফটো গুলা দেখতে শুরু করে,,,, ২ ঘন্টা ধরে নীরা নিলয়ের আর মুনিরার ফটো দেখলো,,, ওনেকগুলা পিক অনেক ক্লোজলি,,,

,

মুনিরা::: ভাবি নিলয় যখন আপনার সাথে থাকবে বলে ঠিক করছে তো আপনি ওর দ্বায়িত্বটা বুঝে নিন,,,

,
নীরা ট্যাব টা বিছানার ওপর ফেলে রুম থেকে বের হয়ে আসে,,,,
,
মুনিরা::::: হাহাহাহাহা তুমি কি ভেবেছো আমি নিলয়কে নিয়ে তোমার সুখে ইচ্ছা আমি পূর্ণ হতে দিবো,,, কখনো না,,, দেখবো এবার তুমি কি করে আমায় নিলয়কে আমার থেকে দুরে সরিয়ে রাখতে পারো,,, সন্দেহর থেকে বড় বিষ আর পৃথীবিতে দুটো নাই, আর সেটাই খুব যত্নে আমি তোমার মনের মধ্যে ঢেলে দিছি,,, এখন দেখবো তুমি কিভাবে নিলয়কে নিজের কাছে আটকিয়ে রাখো,,,,,
,
নিলয়ের মা ;;;; কিরে মা এতক্ষন কই ছিলি,,,
,
নীরা::: এই তো
,
নিলয়ের মা ::::ড্রাইভারকে বলে দিছি রেডি হয়ে চলে যা,,,
,
নীরা::: কই যাবো,,,
,
নিলয়ের মা ::: দেখো মেয়ের কথা আরে তুই নাকি খাবার নিয়ে নিলয়ের কাছে যাবি,,,
,
নীরা ;;;; হুম
,
নিলয়ের মা :::: আমি সব রেডি করে দিছি,,,,তোদের দুজনেরই খাবার দিয়ে দিছি একসাথে খেয়ে নিস,,,যা জলদি বের হো আমার ছেলেটা না খেয়ে বের হইছে আর তুইও না খেয়েই আছিস,,
,
নীরা::: মামুনি খাবার টা ড্রাইভারকে দিয়ে পাঠিয়ে দিলে হয় না,,
,
নিলয়ের মা::: না হয় না,,, রাগারাগি করে বের হইছে,,, তুই গেলে রাগ কমে যাবে ,,,, জলদি যা তো,,,
,
নীরা আর কিছু না বলে খাবার নিয়ে বেরিয়ে পরে,,, আজ আর কোনো কিছু নীরার মাথার মধ্যে নাই,,, অয়ন আর মুনিরার কথা গুলোই ওর মাথার মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছে
নীরা অফিসে গিয়ে নিলয়ের পি,এর কাছে খাবার দিয়ে বেরিয়ে আসে,,, ড্রাইভারকে বাসায় পাঠিয়ে দিয়ে নিজের মনে ফুটপাত দিয়ে হাটতে থাকে,,,
,
আর এদিকে মুনিরা নিলয়কে ফোন দিয়ে নীরার নামে সাতপাচ লাগায় অয়নের সাথে কথা বলা নিয়ে ,, নিলয়তো আরো রেগে যায়,,,
,
নিলয়ের পিএ::: স্যার আসবো??
,
নিলয়:::হুম এসো,,,
,
পি,এ::: স্যার নীরা নামের একটা মেয়ে আপনার খাবার দিয়ে গেছে,,,
,
নিলয়::: নীরা কই???
,
পিএ::: উনি তখনই চলে গেছে,,,
,
নিলয়::; ঠিক আছে তুমি যাও,,,
,
নিলয় খাবার গুলো নিয়ে ফ্লোরে ফেলে দেয়,,,নিলয়ের রাগটা এতে দুগুন বেড়ে যায়,,,

নিলয়::: খুব সাহস বারছে না তোমার,,, তোমার কত্ত সাহস হইছে দেখবো আজ
,
নিলয় অফিস থেকে বেরিয়ে পরে,,,,
,
এদিকে নীরা একা একা যেতে থাকে ঠিক তখনই নিলয় গাড়ি নিয়ে এসে নীরার সামনে ব্রেক করায়,,, নীরা তো রীতিমতো ভয় খেয়ে যায়,,,,
,
নীরা::: এই সয়তান টা আমার পিছু ছারে না কেন আল্লাহ জানেন,,,
,
নিলয় গাড়ি থেকে নেমে নীরাকে টেনে গাড়িতে বসায়,,, নীরা ভালোভাবেই বুঝতে পারে আজও নীরার কপাল এ দুঃখ আছে,,,,,,
,
continue♥♥♥♥

প্রিয় পাঠক আপনারা যদি আমাদের (গল্প পোকা ডট কম ) ওয়েব সাইটের অ্যাপ্লিকেশনটি এখনো ডাউনলোড না করে থাকেন তাহলে নিচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে এখনি গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করুন  ??????

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.golpopoka.android

Comments are closed.

- Advertisment -

Most Popular

Love At 1st Sight-Season 3 Part – 70 [ Ending part ]

♥Love At 1st Sight♥ ~~~Season 3~~~ Part - 70 Ending part Writter : Jubaida Sobti সময় ঘনাতে লাগলো, মান-অভিমান সব ভুলে এই রাতটিতেই রাহুল তার...

ব্ল্যাকমেল ও ভালোবাসা

দোস্ত দেখ মেয়েটা সিগারেট খাচ্ছে! আমি একবার ওই দিকে দেখে বললাম- কুয়াশার কারণে তোর এমন মনে হচ্ছে। তারপর বললাম খেলার মাঝে ডিস্টার্ব করিস নাহ, এমনিতে...

অভিমান ও ভালোবাসা

সুন্দরী মেয়ে হাত ধরে হাটার ফিলিংসটা অন্যরকম, মেয়েটির সাথে হাঁটতে হাঁটতে জমিন থেকে উপরে উঠতে লাগলাম। আকাশে ভাসমান একটা রেস্তোরায় গেলাম, কোনো ওয়েটার নাই। মেনু দেখে...

ভালবাসা_ও_বাস্তবতা

ভালবাসা_ও_বাস্তবতা #লেখক-মাহমুদুল হাসান মারুফ #সাব্বির_অর্নব ঢাকা শহরে এত জ্যাম, বিকালটা শেষ হতেই যেন থমকে যায় রাস্তা গুলো। এত মানুষ,  এত গাড়ি তার উপর আবার মেট্রোরেলের কাজ। এই...

Recent Comments

গল্প পোকা on দুই অলসের সংসার
গল্প পোকা on মন ফড়িং ❤৪২.
গল্প পোকা on গল্পঃ ভয়
গল্প পোকা on গল্পঃ ভয়
গল্প পোকা on গল্পঃ ভয়
Samiya noor on গল্পঃ ভয়
Samia Islam on গল্পঃ ভয়
শূন্য মায়া on মন ফড়িং ❤ ৪০.
Siyam on বিবেক
Sudipto Guchhait on My_Mafia_Boss পর্ব-৯
মায়া on মন ফড়িং ৩০.
মায়া on মন ফড়িং ৩০.
মায়া on মন ফড়িং ২৬.
Shreyashi Dutta on  বিয়ে part 1
Sandipan Biswas on  বিয়ে part 1
Paramita Bhattacharyya on অনুরাগ শেষ পর্ব
জামিয়া পারভীন তানি on নষ্ট গলি পর্ব-৩০
সুরিয়া মিম on খেলাঘর /পর্ব-৪২
গল্প পোকা on মন ফড়িং ২১
গল্প পোকা on নষ্ট গলি পর্ব-৩০
গল্প পোকা on Love At 1st Sight Season 3 Part – 69
গল্প পোকা on Love At 1st Sight Season 3 Part – 69
গল্প পোকা on খেলাঘর /পর্ব-৪২
মায়া on মন ফড়িং ২১
গল্প পোকা on মন ফড়িং ❤ ২০.
গল্প পোকা on খেলাঘর /পর্ব-৪২
গল্প পোকা on খেলাঘর /পর্ব-৪২
গল্প পোকা on মন ফড়িং ❤ ১৬. 
Foujia Khanom Parsha on মা… ?
SH Shihab Shakil on তুমিহীনা
Ibna Al Wadud Shovon on স্বার্থ